​​​​​​​মানিকগঞ্জে বড়ভাইকে হত্যার দায়ে ছোট ভাইয়ের মৃত্যুদণ্ড

​​​​​​​মানিকগঞ্জে বড়ভাইকে হত্যার দায়ে ছোট ভাইয়ের মৃত্যুদণ্ড

মানিকগঞ্জে চাঞ্চল্যকর সাইজুদ্দিন হত্যার মামলায় প্রধান আসামি আপন ছোট ভাই মোঃ ছাহের উদ্দীনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই মামলায় আরো দুই আসামি দলিল উদ্দীন ধুলু ও সেলিমকে ১ বছরের মৃত্যুদণ্ড দেয় বিচারিক আদালত। এ মামলার এজাহারে থাকা বাকি ৬ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) বিকালে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ উৎপল ভট্টাচার্য এ রায় দেন। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের ১২ ই জুন জমি-জমা নিয়ে বিরোধের জেরে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার পুটাইল গ্রামে জমিতে কাজ শেষে বাড়ী ফেরার পথে আপন ভাই ছাহের উদ্দিন এর হাতে খুন হন কৃষক সাইজুদ্দিন। এ ঘটনায় সাইজ উদ্দিনের ছেলে আশিম আলী তার চাচা ছাহের উদ্দিন সহ ১০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

নিহত সাইজুদ্দিন ওরফে সাজুর ছেলে মো: আশিম আলী জানান, আমার চাচা ছাহের উদ্দিনের সাথে জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। আমার বাবা চাচারা তিন ভাই ছিল। আমাদের বাড়ি দুই চাচার বাড়ির মধ্যের অংশে হওয়ায় তাদের জায়গা দিয়ে আমাদের চলাচল করতে হতো। এজন্য আমাদের বাড়ি থেকে বাহিরে যেতে চাচারা বাধা সৃষ্টি করতো।

মামলার এজাহার সূত্রে আরো জনাযায়, ১২ জুন ২০১৩ ইং তারিখে সকাল ৬ টার দিকে আমার বাবার সাথে আমি চকে যাই। এরপর সকাল ৮ টার দিকে চকে থেকে বাড়ি ফেরার পথে বাড়ির নিচের রাস্তায় আসা মাত্র পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আমার বড় চাচা ছাহের উদ্দিন, দলিল ওরফে ধলু, সেলিম, সোহেল, মনজুরুল, নছির উদ্দিন ওরফে নাসু, জিলুক, আসমা বেগম, রুপবান, রেজাউল করিমসহ অজ্ঞাত ৫/৬ জন লাঠি , লোহার রড, দা, কাতরা ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমাদের উপর আক্রমন করে। চাচার ছাহের উদ্দিনের হাতে থাকা কাতরা দিয়ে আমার বাবার বুকের বামপাশে কোপ দিলে আমার বাবা মাটিতে পড়ে যায়। বুকের ক্ষত স্থান দিয়ে ফিনকি দিয়ে রক্ত বের হতে থাকে। আমি বাবাকে বাচাতে জড়ায়ে ধরি। অন্যান্য আসামীরা বাবাকে এলোপাথাড়ি মারপিট করতে থাকে। পরে বাবার মৃত্যুর সংবাদ নিশ্চিত হয়ে আসামীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়।

যাযাদি/এসআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে