চিলমারীতে দেয়ালে দেয়ালে পোস্টার, বাদ যায়নি স্কুলও

চিলমারীতে দেয়ালে দেয়ালে পোস্টার, বাদ যায়নি স্কুলও

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত আসন সাধারণ আসনের সদস্যদের চলছে জোড়ালো প্রচার-প্রচারণা। নির্বাচনী এলাকাজুড়ে প্রার্থীদের পোস্টার-ব্যানার ছেয়ে গেছে। তবে ক্ষেত্রে মানা হচ্ছে না নির্বাচন কমিশনের দেওয়া আচরণ বিধিমালা। এমনকি বিধি নিষেধ প্রয়োগে নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্টদের তৎপরতাও চোখে পড়েনি।

নির্বাচন কমিশনের আইন রয়েছে প্রার্থীদের পোস্টার নির্বাচনী এলাকায় অবস্থিত দেয়ালে লাগানো যাবে না। কিন্তু সেটা কেউই মানছেন না। বিভিন্ন সরকারি- বেসরকারি স্থাপনায়, প্রতিষ্ঠানের দেয়াল, বাসাবাড়ীর দেয়াল, বিদ্যুতের খুঁটি, শৌচাগার, গাছে গাছে প্রার্থীদের পোস্টার লাগানো হয়েছে। এতে বাদ যায়নি স্কুলের দেয়ালও।

থানাহাট ইউনিয়নের পানি উন্নয়ন বোর্ডের দেয়াল, থানাহাট ইউ পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের দেয়াল, থানাহাট ১নং নং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দেয়াল, উপজেলা পরিষদ চত্তরের ভবন, এলএসডি গোডাউন ভবন, শৌচাগার বিভিন্ন বাসা বাড়ীর দেয়ালসহ গাছে গাছে প্রার্থীদের পোস্টারে ভরে গেছে। সেখানে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হালিমুজ্জামান বাবলু আনারস প্রতিকের, রেজাউল করিম খুশুর চোশমা প্রতিকের, মহিউদ্দিন আহমেদ টেলিফোন প্রতিকের, হুমায়ুন কবির মন্ডলের মোটর সাইকেল প্রতিকের প্রতিকের, আব্দুর রাজ্জাক মিলনের নৌকা প্রতিকের, সংরক্ষিত আসনের মোছাঃ রেজিয়া বেগমের হেলিকপ্টার প্রতিকের, শেফা আক্তারের তালগাছ প্রতিকের, সাধারণ সদস্য মো. মমিনুল ইসলামের ফুটবল প্রতিকের, মোহাম্মদ খোকা মিয়ার মোরগ প্রতিকের, মোঃ মোক্তার আলী টিউবয়েল প্রতিকের সহ অন্যান্য প্রার্থীদের পোস্টারে ভরে গেছে।

রমনা ইউনিয়নের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের দেয়ালেও প্রার্থীদের পোস্টারে ভরে গেছে। শরীফের হাট এম ইউ উচ্চ বিদ্যালয় ভবনের দেয়াল, শরীফের হাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দেয়ালে স্বতন্ত্র প্রার্থী জোবাইদুল ইসলাম সুইটের অটোরিস্কা প্রতিকের, নুর--এলাহী তুহিনের ঘোড়া প্রতিকের, মোঃ গোলাম আশেক আকার মোটর সাইকেল প্রতিকের, মোঃ রাশেদুল ইসলাম রাশেদের হাতপাখা প্রতিকের, মোঃ হাবিবুর রহমানের আনারস প্রতিকের, ওবাইদুল হক হিরু মাষ্টারের টেলিফোন প্রতিকের, আজগর আলী সরকারের নৌকা প্রতিকের সহ অন্যান্য প্রার্থীদের পোস্টারে ভরে গেছে।

চিলমারী ইউনিয়নের কড়াই বরিশাল নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কড়াই বরিশাল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দেয়ালেও প্রার্থীদের পোস্টারে ভরে গেছে। সেখানে স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনুল ইসলামের চশমা প্রতিকের, রিয়াজুল হক জোদ্দারের আনারস প্রতিকের, গওছল হক মন্ডলের নৌকা প্রতিকের, সংরক্ষিত আসনে রসেনা বেগমের হেলিকপ্টার প্রতিকের, আফরোজা বেগমের মাইক প্রতিকের, লেবুনা বেগমের তালগাছ প্রতিকের, মতিজান বেগমের বক প্রতিকের, শাহনাজ পারভীনের কলম প্রতিকের, সাধারণ আসনে ৭নং ওয়ার্ডের মোঃ আঙ্গুর মিয়ার ফুটবল প্রতিকের, জিয়াউল হকের মোরগ প্রতিকের, ৮নং ওয়ার্ডের শহিদুল হকের ফুটবল প্রতিকের, এরশাদুল হকের মোরগ প্রতিকের, ৯নং ওয়ার্ডের আব্দুল জলিলের ফুটবল প্রতিকের, ওবাইদুল হকের মোরগ প্রতিকের পোস্টারে ভরে গেছে।

একই চিত্র দেখাগেছে, উপজেলার রাণীগঞ্জ অস্টমীর চর ইউনিয়নেও।

বিষয়ে প্রার্থীরা জানান, অনেকের দেখা দেখিতে পোস্টার লাগানো হয়েছে। এটা নির্বাচনী আচরণ বিধি পরিপন্থি। তারা পোস্টার সরিয়ে ফেলবেন।

বিষয়ে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম রাকিব বলেন, নির্বাচনী এলাকায় দেয়ালে, গাছে-গাছে পোস্টার লাগানো যাবে না। এটা নির্বাচনী অচরণবিধি পরিপন্থি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাগেছে, ৩১ জানুয়ারি উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নে ৬ষ্ঠ ধাপে ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। চেয়ারম্যান পদে পাঁচ ইউনিয়নে মোট ৩২ জন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে, সংরক্ষিত আসনে ৬৯ জন সাধারণ আসনে ১৯৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। পাঁচটি ইউনিয়নে মোট ভোটার রয়েছেন ৯০ হাজার ২২৩ জন।

যাযাদি/ এমডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে