logo
রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  এম আব্দুল মোমিন   ০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

ব্রির বার্ষিক গবেষণা পর্যালোচনা কর্মশালা শুরু

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বিগত এক বছরে আমরা কি করেছি, তার জবাবদিহিতা আমাকেও করতে হবে। কৃষিকে লাভজনক করতে হলে শুধু ধান চাষ করলেই হবে না। ধানকে লাভজনক কৃষিপণ্যে রুপান্তর করতে হবে। গ্রামের কৃষকরা লাভবান হলে তারা নিজ পরিবারের জন্য পুষ্টিমানসম্পন্ন খাদ্য সংগ্রহ করতে পারবে। তিনি গত বৃহস্পতিবার গাজীপুরে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রি) মিলনায়তনে ব্রির বার্ষিক গবেষণা পর্যালোচনা কর্মশালা-২০১৮-১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। কৃষিমন্ত্রী বলেন, কৃষিতে উৎপাদন খরচ কমাতে ষান্ত্রিকীকরণ করতেই হবে। মানুষ এখন আর ওএমএসের মোটা চাল খেতে চায় না, যার প্রভাবে বাজারে চিকন চালের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। এর আগে কৃষক ধানের মূল্য না পাওয়ায় দীর্ঘদিন মিডিয়ায় অলোচনা হয়েছে। মূল্য কম হলেও সমালোচনা হয়। কৃষিজাত পণ্যের মূল্য নিয়ে সবাইকে ভাবতে হবে। দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ এটা ব্রির বিজ্ঞানীদের পরিশ্রমের ফল। এ ছাড়া দেশের দারিদ্র হ্রাসেও তাদের সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রয়েছে। ব্রির মহপরিচালক ড. মো. শাহজাহান কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (গবষণা) কমলা রঞ্জন দাস; ইমেরিটাস প্রফেসর ড. এম এ সাত্তার মন্ডল, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. আব্দুল মুঈদ ও বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. কবীর ইকরামুল হক। অনুষ্ঠানে গবেষণা পর্যালোচনা অগ্রগতি করেন ব্রির পরিচালক (গবেষণা) ড. তমাল লতা আদিত্য। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ব্রির পরিচালক (প্রশাসন) ড. কৃষ্ণপদ হালদার।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে