logo
শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৫

  রাকিব হোসেন   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

ই স লা মী বি শ্ব বি দ্যা ল য়

বৃদ্ধাশ্রমে মায়েদের পাশে

বৃদ্ধাশ্রমে মায়েদের পাশে
'আপনের চেয়ে পর ভালো, পরের চেয়ে বৃদ্ধাশ্রম।' কঠিন এক সত্য। আর এ সত্যকে মেনেই অনেক বৃদ্ধ মা-বাবা আশ্রয় নেন বৃদ্ধাশ্রমে। বৃদ্ধ বয়সটা ভয়ঙ্কর রকমের নিঃসঙ্গ ও পরনির্ভশীল থাকে। একাকিত্বের সংজ্ঞা মনে হয় তাদের থেকে আর কেউ ভালো জানে না। সময়ের পরিবর্তন ব্যক্তিকে নানান পরিস্থিতির মধ্য ফেলে দেয়। সন্তানের কাছে যাদের বেশি কিছু চাওয়ার নেই। সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করে শেষ বয়সে আদরের সন্তানের পাশে থাকার ইচ্ছা থাকে। আর এ নিয়েই প্রতিটি পিতামাতা প্রহর গুণতে থাকেন দিবা-রাত্রি। কিন্তু অনেকেরই সেই সন্তান ও পরিবারে সঙ্গে থাকার সুযোগ না পেয়ে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয় বৃদ্ধাশ্রমে একটি সমাজের রুগ্নতা, জরাজীর্ণতা তখনই স্পষ্ট হয় যখন দেখা যায় দায় মুক্তির তাড়নায় একটার পর একটা বৃদ্ধাশ্রম সৃষ্টি হয়। আর সেই মমতাহীন বন্দিশালার ঘরগুলো মমতাময়ী অসহায় মা-বাবাতে পূর্ণ হয়। বৃদ্ধাশ্রমে থাকা বৃদ্ধ মায়েদের মানবেতর জীবন আপনজনের দেওয়া কষ্ট ও হতাশাগ্রস্ত থেকে আশার আলো এবং মুখে হাঁসি ফুটাতে সমাজের কিছু মানুষ ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ও ব্যতিক্রম নয়।

কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহের কিছু বৃদ্ধাশ্রমে থাকা বৃদ্ধাদের সাহায্য সহযোগিতা করে আসছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো। তার মধ্যে উদয়ন মা ও শিশু পুনর্বাসন কেন্দ্র অন্যতম। কথা হয়েছিল উদয়ন মা ও শিশু পুনর্বাসন কেন্দ্রের পরিচালক মিঠুর সাহেবের সঙ্গে। তিনি বলেন, দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে এই বৃদ্ধাশ্রম পরিচালনা করে আসছি। ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা প্রায় সাহায্য নিয়ে আসে। এটা তাদের জীবনযাপনে সহযোগিতাপূর্ণ। তবে এখন তাদের জন্য একটি বাসস্থান সময়ের দাবি। তাহলে তারা অনেকটা স্বাচ্ছন্দ্যে জীবনযাপন করতে পারবে।

'নবীন-প্রবীণ একই নীড়, থাকবে উঁচু সবার শির' স্স্নোগানকে সামনে রেখে সমাজ সচেতনতা ও মায়েদের নিয়ে দিনব্যাপী বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান করেছে শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের মফিজ লেকে বৃদ্ধা মায়েদের নিয়ে খেলা, খাবার বিতরণ ও ক্যাম্পাস পরিদর্শন করা।

এর আগে কুষ্টিয়ার উদয়ন মা ও শিশু পুনর্বাসন কেন্দ্রের বৃদ্ধাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের অবারিত সম্ভাবনা নিয়ে জাগ্রত তারুণ্য স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে তাদের মাঝে ৩টি চৌকি এবং ১টি ফ্যান বিতরণ করেছে। একই উদয়ন মা ও শিশু পুনর্বাসন কেন্দ্রের অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিত মায়েদের মাঝে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন 'বুনন' নতুন শাড়ি বিতরণ করে। এ ছাড়া 'উদয়ন মা ও শিশু পুনর্বাসন কেন্দ্রে' ২৫ জন বৃদ্ধের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন স্বপ্নকানন।

অনেকেরই সন্তানের কাছে আশ্রয় না হয়ে, আশ্রয় হয় বৃদ্ধাশ্রমে। শেষ বয়সটা মস্ত ফ্ল্যাটের ঘরের কোণেও অসহায় মা-বাবার এতটুকুও জায়গা মিলে না। ওদের রেখে আসা হয় প্রবীণ নিবাস বৃদ্ধাশ্রমে। তবুও প্রতিবাদ দানা বাঁধে না, মন অভিশাপ দেয় না। নাড়ি ছেঁড়া ধন ওরা। তাই চুপ থাকেন। মা শব্দটি একটি শব্দের। তবুও মা শব্দটির চেয়ে মধুর শব্দ মনে হয়, পৃথিবীতে দ্বিতীয়টি নেই। "আজ যারা বৃদ্ধ তারা একদিন যুবক ছিল। আমরা বৃদ্ধাশ্রম চাই না, আমাদের প্রতিটি জীবন গৃহাশ্রম হয়ে উঠুক এই হোক আমাদের অঙ্গীকার।"
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে