logo
সোমবার ২৫ মার্চ, ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫

  আলামীন হোসেন   ১১ মার্চ ২০১৯, ০০:০০  

ঝলমলে সুন্দর চুল

ঝলমলে সুন্দর চুল
ঝলমলে সুন্দর চুল কে না চায় বলুন? উজ্জ্বল ও সুস্থ চুল যেন সব নারী-পুরুষেরই স্বপ্ন থাকে। সুন্দর চুল সবারই সৌন্দর্য বাড়িয়ে দেয় অনেকখানি। কিন্তু সুন্দর চুল কি আর চাইলেই পাওয়া যায়? চুলের সৌন্দর্য বাড়াতে হলে প্রয়োজন বিশেষ যত্ন ও সতর্কতার। প্রতিদিন নিজেদের নানা অসতর্কতার কারণে নষ্ট হয় আমাদের সাধের চুল। আজকাল খুব ঝরছে আপনার চুল, মাথা টেকো হয়ে যাচ্ছে? জেনে নিন তাহলে এটার জন্য আপনার নিজেরই কিছু ভুল দায়ী! চুল

সারাদিন এখানে-ওখানে ঘোরাঘুরির কারণে চুলে ধুলাবালি লেগে যায়। সেই সঙ্গে চুলে লেগে থাকে জট। দিন শেষে চুল শ্যাম্পু করার আগে অবশ্যই চুল আঁচড়ে নেয়া উচিত। তাহলে চুলের জট ছেড়ে যায়। চুল শ্যাম্পু করার সময়ে চুল ভিজে নরম হয়ে যায়। আগেই জট ছাড়িয়ে না নিলে চুল ধোয়ার সময় চুল ছিঁড়ে যেতে পারে এবং চুলের ক্ষতি হতে পারে।

অনেকেই শুধু চুলের আগা আঁচড়ে নেন। চুলের গোড়া আঁচড়ানোর বেলায় রাজ্যের আলসেমি ভর করে অনেকের। কিন্তু চুলের আগা তো বটেই চুলের গোড়া আঁচড়ানোও জরুরি। কারণ চুলের গোড়া আঁচড়ালে রক্তচলাচল বৃদ্ধি পায় এবং মাথার তালুর থেকে তেল পুরো চুলে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে চুল উজ্জ্বল থাকে এবং এর বৃদ্ধি স্বাভাবিক থাকে।

প্রতিদিনই কি শ্যাম্পু করার অভ্যাস আছে আপনার? যদি আপনার প্রতিদিন শ্যাম্পু করার অভ্যাস থাকে তাহলে আপনি নিজেই ক্ষতি করছেন আপনার চুলের। প্রতিদিন চুল শ্যাম্পু করলে চুলের গোড়ার প্রাকৃতিক তেল ধুয়ে গিয়ে চুলকে রুক্ষ করে ফেলে। সেই সঙ্গে শ্যাম্পুর অতিরিক্ত কেমিক্যাল চুলকে ভঙ্গুর করে ফেলে।

চুলকে পরিপাটি রাখার জন্য অনেকেই হেয়ার ড্রায়ার, কার্লিং মেশিন ও স্ট্রেইটনার ব্যবহার করেন। কিন্তু এগুলোর অতিরিক্ত তাপমাত্রা খুব সহজেই চুলকে নিষ্প্রাণ করে ফেলে। এগুলোর নিয়মিত ব্যবহারে চুল ভঙ্গুর হয়ে যায় এবং চুলের স্বাভাবিক রঙ পরিবর্তন হয়ে যায়। সেই সঙ্গে কমে যায় চুলের বৃদ্ধি।

অনেকেই গোসল করে এসে দীর্ঘ সময়ে ধরে টাওয়েল পেঁচিয়ে রাখে চুলে। চুলের পানি শুকিয়ে নেয়ার জন্য দীর্ঘ সময় টাওয়েল পেঁচিয়ে রাখলে চুলের ক্ষতি হয়। অনেকক্ষণ ভেজা টাওয়েল পেঁচিয়ে রাখার কারণে চুল দুর্বল হয়ে যায়। সেই সঙ্গে চুলের গোড়া বেশিক্ষণ ভেজা থাকার কারণে চুল ঝরে পড়া বৃদ্ধি পায়।

চুল পড়ার হার দ্বিগুণ তিনগুণ হয়ে যায় যদি আপনি ধূমপায়ী হয়ে থাকেন। যদি মনে হয় আজকাল মাথাটা খালি হয়ে যাচ্ছে, অবিলম্বে ছেড়ে দিন সিগারেট।

অতিরিক্ত স্ট্রেস ও দুশ্চিন্তা যারা করেন, থাকেন খুব টেনশনে এবং পর্যাপ্ত ঘুমান না বলে স্ট্রেসে ভোগেন, তাদের মাথার চুল পড়ে যায় সবার আগে!

আপনার চুল যে পুষ্টিহীনতায় ভুগছে, তার অন্যতম লক্ষণ হলো চুলের ভঙ্গুর হয়ে যাওয়া, চুল পড়া এবং চুলের আগা ফাটা। চুলের এসব অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পেতে অনেকে অনেক কিছুই করে থাকেন। কিন্তু যে কাজটা করলে সবচেয়ে দ্রম্নত ফল লাভ করবেন তা হলো চুলে ডিমের প্রয়োগ। ডিমের গন্ধের কারণে অনেকেই চুলে ডিম দিতে চান না। জেনে নিন চুলে ডিম দেয়ার একটি গন্ধহীন পদ্ধতি।

ডিমের সাদা অংশটি আলাদা করে নিয়ে খুব ভালো করে ফেটুন। ফেনা না ওঠা পর্যন্ত ফেটতে থাকুন। এরপর এতে দুই টেবিল চামচ অলিভঅয়েল দিয়ে আবার ফেটুন। এবার এতে এক চা চামচ লেবুর রস দিয়ে ভালো করে মেশান। মিশ্রণটি পুরো চুলে লাগান। আধা ঘণ্টা রেখে চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত একবার এভাবে চুলে ডিম লাগান। এতে আপনার চুল হবে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে