logo
শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  মো. নজরুল ইসলাম   ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

ফল চাষে বদলালো ভাগ্য

ফল চাষে বদলালো ভাগ্য
মধুপুর উপজেলার লাউফুলা (উত্তরপাড়া) গ্রামের আবুল কালামের স্ত্রী ফিরোজা বেগম আনারস চাষ করে সফলতা পেয়েছেন। স্বামী-স্ত্রী, দুই ছেলেমেয়ে নিয়ে ভালো আছেন ফিরোজা। এখন তাকে আর পেছনে ফিরেও তাকাতে হয় না। পেছনের রহস্য খুঁজে জানা গেল, আনারস চাষ করে সচ্ছলতা ফিরে এসেছে তার ৪ সদস্যবিশিষ্ট সংসারে। কয়েক বছর আগেও স্বামী আবুল কালাম দিনমজুরের কাজ করে যা আয় করত তা দিয়ে সংসার চলত না। অর্থের অভাবে সংসার চালানো তার পক্ষে খুবই কষ্টের ব্যাপার। আবুল কালামের পক্ষে এত বড় সংসার এবং ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ার খরচ জোগানো অত্যন্ত কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। কীভাবে সংসারের সচ্ছলতা ফিরে আসবে, এ নিয়ে দুচিন্তায় পড়ে যায় ফিরোজা বেগম। তবে স্বামী-স্ত্রী মিলে নিজের পায়ে দাঁড়ানোর প্রবল ইচ্ছা ও চেষ্টা ছিল। তাদের চেষ্টা থাকা সত্ত্বেও অর্থের অভাবে কোনো কিছু করতে পারছিল না। ২০১৭ সালের ওই সময় বিজিএসের সহায়তায় ফিরোজা বেগম পদ্ম কেন্দ্রের সদস্য হয়ে প্রথমে ২০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করে শুরু করেন নিজের মতো কিছু করার। স্বল্প পরিসরে নিজের ভিটা জমিতে আনারস চাষ শুরু করে সফলতার মুখ দেখা শুরু করেন। বছর শেষে মোটামুটি ভালো আয় হয় দেখে খুশি হয়ে পরবর্তী সময়ে কয়েক দফায় ঋণগ্রহণ করে আনারস চাষ আরও সম্প্রসারিত করেন। বর্তমানে সে ১.৫ একর জমিতে আনারসের চাষ করে। সাহস আর ইচ্ছাশক্তির বলে দরিদ্রকে জয় করে সংসারে এনেছে সচ্ছলতা।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে