logo
সোমবার ১৪ অক্টোবর, ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

  রঙ বেরঙ ডেস্ক   ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

ঝলমলে বণির্ল চুল

ঝলমলে বণির্ল চুল
ফ্যাশন-সচেতন যে কেউ চুলে রং করাতে পারেন। চুলের রঙের কারণে চেহারার পুরো আদলই বদলে যায়। তবে অবশ্যই লক্ষ্য রাখতে হবে, যার চুলে রং করা হচ্ছে তার বয়স, গায়ের রং ও ব্যক্তিত্বের সঙ্গে রংটা মানাচ্ছে কিনা।

কিশোরীদের চপলতার সঙ্গে মিল রেখে চুলের জন্য বণির্ল আর গাঢ় রং বেছে নেয়া যেতে পারে। আর এই বয়সের সঙ্গে খুব বেশি মানায় লাল, সবুজ, নীল, মেরুন, উজ্জ্বল সোনালি ও বাদামি রং। চাইলে সব কালো চুলের মধ্যে এক গোছা চুল নিয়ে একেক রং করা যায়। এতে দেখতে কিছুটা ভিন্নতা লাগে।

কৈশোর ছাপিয়ে তরুণী হয়ে উঠলে অনেকেই চান খুব উজ্জ্বল রঙের পরিবতের্ কিছুটা হালকা রং। এ ক্ষেত্রে পছন্দের তালিকায় বাদামি, ছাই, বøন্ড, কপার ও মেহগনি রং রাখা যেতে পারে। আবার চাইলে পুরো চুলেই হাইলাইট করতে পারেন। অথার্ৎ একগোছা করে চুল নিয়ে রং করতে পারেন। অনেকে আবার হাইলাইট না করে পুরো চুলে রং করান। অথবা কিছুটা অংশ এক রং, পরে আরেক রং করে থাকেন।

প্রৌঢ় হলেও বা কী যায় আসে! চুলে রঙের ছেঁায়া দিতে নেই বাধা। তবে এই সময়ে যেহেতু অনেকের চুলেই পাক ধরে, তাই চুলে রং করার সময় কিছুটা ভেবে নেয়া যেতে পারে। এই বয়সে বাদামি, সোনালি, হালকা মেরুন বা মেহেদির রং লাগিয়ে নিতে পারেন। আর যেহেতু কিছুদিন বাদেই চুল বড় হয়, তাই মাস অন্তর চুলে আবার রং করতে হয়। নয় তো পাকা চুল বেরিয়ে যেতে পারে। এই বয়সে এমন রং ব্যবহার করা যেতে পারে, যা রাতের অনুষ্ঠানেও ভিন্নরকম দেখায়।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে