logo
মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারি ২০২০, ৮ মাঘ ১৪২৭

  রঙ বেরঙ ডেস্ক   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

হালকা শীতে হুডি

একটা সময় হুডি ছিল শুধু জ্যাকেটের মতো, সামনে জিপার দেওয়া অথবা বড় পকেট দেওয়া। তবে এখন তার মধ্যে অনেকটাই নতুনত্ব যোগ হয়েছে। হুডি মোটা কটন কাপড় দিয়ে করা হতো, এখন সেটি পাতলা টি-শার্ট ও ফতুয়ায় যোগ হচ্ছে। সঙ্গে হাতা কাটা হুডির চলও আসছে। হালকা শীতে হুডির বিকল্প নেই। হুডি কেন পরা হয় এর উত্তর বোধহয় ফ্যাশন আর শীতে আরাম। যে কোনো পোশাকের চেহারা বদলে যায় শুধু হুড যোগ করার ফলে। আর শীতে তো এটা দারুণ কার্যকর।

হালকা শীতে হুডি
মডেল: আশিক ড্রেস: ভিউ পয়েন্ট
যান্ত্রিক এই শহরে ঠান্ডার অনুভূতি কম হলেও পোশাকের দিকে তরুণদের ফ্যাশনের কমতি থাকে না। কনকনে ঠান্ডা হোক বা হালকা বাতাস, পছন্দের তালিকায় বেছে নেওয়া হয় স্টাইলিশ হুডি।

ইদানীং সন্ধ্যা বা ভোরের দিকে বয়ে যাওয়া হিমেল বাতাস কিন্তু জানান দিচ্ছে গুটি গুটি পায়ে চলে আসছে শীত। হালকা শীতে হুডির বিকল্প নেই। হুডি কেন পরা হয় এর উত্তর বোধহয় ফ্যাশন আর শীতে আরাম। যে কোনো পোশাকের চেহারা বদলে যায় শুধু হুড যোগ করার ফলে। আর শীতে তো এটা দারুণ কার্যকর। এমনকি গরমেও অনেকে হুডসহ শার্ট পরতে পছন্দ করেন। একটু ভিন্ন রকম ক্যাজুয়াল ভাব আসে তাতে। অনেকের কাছে সাদামাটা কাটের সোয়েটার পরতে ভালো লাগে না। আবার পাশ্চাত্য ধাঁচের পোশাক পরতেও খুব পছন্দ করেন। হুড দেওয়া সোয়েটার বা জ্যাকেট তাই ভালো লাগে তাদের কাছে, যারা শীতে তো পরেনই, গরমেও খাটো হাতার হুডি টপ পরতে ভালো লাগে তাদের কাছে ডেনিম প্যান্টের সঙ্গে হুডি টপ দারুণ ফ্যাশনেবল বলে মনে হয়।

সাধারণত শার্ট ও টি-শার্টে হুডির ব্যবহার হয়ে থাকে। তবে এবার বৈচিত্র্য এসেছে হুডিতে। এক কালার শার্টে চেক হুডির ব্যবহার আবার চেক শার্টে নান্দনিক এক কালার হুডি ব্যবহার করা হয়েছে, তবে এবার হুডি শার্ট ও হুডি গেঞ্জি বেশ ভালো চলছে। ডিজাইনাররা বিভিন্ন কটন, কলারের হ্যান্ডস্টিচ, অ্যাম্ব্রয়ডারি, হাতের কাজের চেইন ও বোতামের বৈচিত্র্য, টু-ইন ওয়ানসহ অসংখ্য ডিজাইন করে ব্যবহার করছেন কালো, মেরুন, অ্যাশ, ঘন নীলসহ তারুণ্যের সব রং। মেয়েদের হুডিগুলো সাধারণত কিছুটা শর্ট ফিটিং হয়ে থাকে। বাজারে চামড়ার তৈরি হুডিসহ জ্যাকেটও পাওয়া যাচ্ছে, তবে এর দাম তুলনামূলকভাবে বেশি। মেয়েদের জন্য পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন ধরনের স্ট্রাইপ দেওয়া রং-বেরঙের হুডি। মেয়েরাও জিন্সের সঙ্গে বেছে নিচ্ছেন হুডওয়ালা জ্যাকেট বা টপস। মেয়েদের হুডিগুলো সাধারণত উজ্জ্বল রঙের হয়ে থাকে। হলুদ, গোলাপি, বেগুনি, নীল, লাল, কালো ইত্যাদি রঙের। এ ছাড়া প্রিন্টেড হুডি, সামনে রঙিন কার্টুন, বার্বির ছবি আঁকা হুডিও পাওয়া যায়। নিট কাপড়ের হুডিগুলো টি-শার্টের মতো পাতলা হওয়ায় দিনের অল্প শীতে বেশ আরামদায়ক। মেয়েদের হুডির কাটছাঁটে বৈচিত্র্য আরো বেশি। কটি, টি-শার্ট, টু-ইন ওয়ান হুডি এমনকি টপস স্টাইলের হুডিরও দেখা মেলে ফ্যাশন হাউস ঘুরে।

মেয়েদের হুডিতে ব্যবহার করা হয় বৈচিত্র্যময় বোতাম, স্টিকার, অ্যাম্ব্রয়ডারি। একটা সময় হুডি ছিল শুধু জ্যাকেটের মতো, সামনে জিপার দেওয়া অথবা বড় পকেট দেওয়া। তবে এখন তার মধ্যে অনেকটাই নতুনত্ব যোগ হয়েছে। হুডি মোটা কটন কাপড় দিয়ে করা হতো, এখন সেটি পাতলা টি-শার্ট ও ফতুয়ায় যোগ হচ্ছে। সঙ্গে হাতা কাটা হুডির চলও আসছে।

শীত আসার আগেই শোরুমগুলোয় ঠান্ডার আমেজ আসে উইন্টার কালেকশনে। তরুণদের মধ্যে ফ্যাশনসচেতনতা সব সময় একটু বেশি ট্রেন্ডিং থাকে, তাই উইন্টার কালেকশনগুলো ট্রেন্ডি করে তোলেন ফ্যাশন ডিজাইনাররা। ছোট থেকে বড়দের ফ্যাশনে হুডির ধাঁচ রেখে নিয়ে আসেন স্টাইলিস হুডি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে