logo
বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১২ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

শাহী তিন পদ

শাহী তিন পদ
ভেজিটেবল নবরত্ন পোলাও

উপকরণ

২৫০ গ্রাম বাসমতী চাল

১টি গাজর

১টি টমেটো

১/২ কাপ ফুল কপি

১/২ কাপ ব্রকলি

৫টি কাঁচামরিচ

১০টি কাজু, কিশমিশ, আলমন্ড

২ মুঠো মটরশুঁটি

পেঁয়াজ ১/২ কাপ কুচি

১/২ কাপ পনির কয়েক টুকরো।

২ টেবিল চামচ ঘি

স্বাদমতো লবণ

স্বাদমতো চিনি

১টি তেজপাতা

পরিমাণ মতো গোটা গরম মসলা

প্রণালী

চাল খুব ভালো করে ধুয়ে, ঝরঝরে ভাত বানিয়ে নিতে হবে

এবার একটা বড় পাত্রে ঘি গরম করে তাতে কাজু, কিশমিশ বাদাম আর পনির হালকা ভেজে তুলে নিয়ে ওই ঘিতেই পেঁয়াজ, তেজপাতা, গরম মসলা দিয়ে, নেড়ে নিতে হবে, বাকি সবজি দিয়ে ভাজতে হবে, মেশাতে হবে লবণ, চিনি স্বাদমতো। সবজি সেদ্ধ হলে, চালটা দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিয়ে আগে থেকে ভেজে রাখা ড্রাই ফ্রুট আর পনির মিশিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে মজাদার ভেজিটেবল নবরত্ন পোলাও।

তন্দুরি চিকেন

উপকরণ

মুরগির মাংস (চামড়া ছাড়া)- ১.৫ কেজি

সয়াবিন তেল- ৭ টেবিল চামচ

রাঁধুনী চিকেন তন্দুরি মসলা- ১ প্যাকেট

টকদই- ১ কাপ (২৫০ মি.লি.)

লেবুর রস- ৪ চা চামচ

সয়াসস- ৪ চা চামচ

চিনি- ১ চা চামচ

লবণ- পরিমাণমতো

রন্ধন প্রণালি

মুরগির মাংস ৬-৮ টুকরো করুন এবং ভালোভাবে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। প্রতি টুকরো মাংসে ৩-৪টি স্থানে ডিপ করে লম্বাভাবে কেটে নিন। টকদই, রাঁধুনী তন্দুরি মসলা, লেবুর রস, চিনি, সয়াসস, ৫ টেবিল চামচ তেল ও পরিমাণমতো লবণ দিয়ে ভালোভাবে মাখিয়ে ব্রয়লার মুরগির ক্ষেত্রে ৩ ঘণ্টা এবং দেশি মুরগির ক্ষেত্রে কমপক্ষে ৪-৫ ঘণ্টা মেরিনেট করুন। ওভেনের ট্রে-তে ২ টেবিল চামচ তেল মাখিয়ে মাংসের টুকরোগুলো সাজিয়ে দিন। এরপর ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সে. তাপমাত্রা সেট করে প্রথমে ১০ মিনিট প্রি-হিট করে নিন। তারপর সাজানো মাংসসহ ট্রে ওভেনে ঢুকিয়ে ৪০ মিনিট সেট করে দিন। এর মধ্যে ২০ মিনিট পর ট্রে বের করে মাংসের টুকরোগুলো উল্টিয়ে ওভেনে ঢুকিয়ে দিন। স্মোকি ফ্লেভারের জন্য ভাজা মাংসগুলো ওভেনের গ্রিলে আরও ৫ মিনিট রাখুন। মাংসের টুকরোগুলো ভাজা ভাজা হয়ে গেলে নামিয়ে কাটা শসা, টমেটো ও রিং আকৃতির পেঁয়াজ দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

তন্দুরি নান

উপকরণ

ময়দা- ২ +১/২ কাপ

ইস্ট- ১ চা চামচের সামান্য বেশি

(হাইকো ব্রান্ডেরটা দিয়েছি )

বেকিং পাউডার- ১/২ চা চামচ

কুসুম গরম পানি - ৩/৪ কাপ

(চার ভাগের ৩ ভাগ )

গুঁড়া চিনি - ১ টেবিল চামচ

তেল - ৩ টেবিল চামচ

লবণ - সামান্য

বাটার- সামান্য

লবণ পানি- ১ কাপ পানি,

১/২ চা চামচ লবণ ও ২ চিমটি

চিনি এক সঙ্গে মিক্সড করে রাখুন।

প্রণালি

প্রথমে কুসুম গরম পানিতে ইস্ট ও তেল দিয়ে গরম স্থানে ঢেকে রাখুন ৫ মিনিট। বাটার ছাড়া বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে বড় একটি পাত্রে মিশিয়ে রাখুন। ৫ মিনিট পর ইস্ট ময়াদার সঙ্গে মিক্স করে নিন। পানি লাগলে অল্প অল্প পানি দিয়ে মাখাতে থাকুন। অনেক সময় নিয়ে খুব ভালো করে নরম তুলতুলে করে ডো তৈরি করুন। রুটির ডোয়ের চেয়ে নরম হবে। এবার ভালো করে ঢেকে গরম স্থানে ১-২ ঘণ্টা রাখুন। ফুলে দ্বিগুণ হয়ে গেলে আবারও মেখে নিন। ছোট ছোট বল তৈরি করা হলে পাতলা করে রুটি বেলে মাঝখানে সামান্য বাটার ব্রাশ করে দিন। পরে পরোটার মতো করে গোল করে ভাঁজ করুন। ভাজ করা বলটি দিয়ে আবারও রুটি তৈরি করুন। রুটির চেয়ে সামান্য মোটা করে রুটি বেলুন। বেলার সময় সামান্য ময়দা ব্যবহার করতে পারেন। ফ্রাইপ্যান গরম করে অল্প আঁচ দিয়ে লবণ পানি হাতে করে নিয়ে ছিটিয়ে দিন। পরিমাণ মতো দেবেন। যাতে রুটি প্যানের সঙ্গে লেগে থাকে। লবণ পানি কম দিলে প্যান থেকে রুটি উঠে আসবে। নান দিয়ে কিছু সময়ের জন্য ঢেকে রাখুন। ফুলে উঠলে ঢাকনা সরিয়ে অন্য পিঠ সরাসরি আগুনের উপরে ধরুন। আগুন থেকে সামান্য দূরে রাখবেন। এতে রুটির উপর দিকে ফুলে উঠবে এবং হালাকা বাদামি কালার হবে। এই রুটিটা এভাবে তৈরি করার জন্য এর টেস্টটা অসাধারণ হয়। নিচের দিক সামান্য ক্রিস্পি আর উপরে সফট থাকে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে