logo
শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২২ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

গায়িকা আবারও নায়িকা

গায়িকা আবারও নায়িকা
জেনিফার লোপেজ
জাহাঙ্গীর বিপস্নব

তাকে বলা হয় অলরাউন্ডার। একাধারে তিনি গায়িকা, নায়িকা, নৃত্যশিল্পী, প্রযোজক। পাশাপাশি তিনি যুক্ত রয়েছেন বিভিন্ন ব্যবসা ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে। অনেক টিভি চ্যানেলে রিয়েলিটি শোর বিচারক হিসেবেও দেখা যায় তাকে। কখনও গান দিয়ে, কখনও অভিনয় দিয়ে, কখনও আবার খোলামেলা পোশাক পরে বছর জুড়েই আলোচনায় থাকেন তিনি। সম্প্রতি চতুর্থবার বিয়ে করে আবারও তাক লাগিয়ে দিয়েছেন বিশ্ববাসীকে। বলা হচ্ছে, জেনিফার লোপেজের কথা। কদিন আগেই পঞ্চাশে পা দিলেন এই তারকা। কিন্তু বয়স পঞ্চাশ হলেও যেন বিন্দুমাত্র কমেনি তার শারীরিক সৌন্দর্যের ঝলকানি। তার শারীরিক সৌন্দর্য এখনও আগের মতোই দু্যতি ছড়াচ্ছে সবখানে। পঞ্চাশে পা রেখেও অষ্টাদশী বালিকার মতোই উদ্যম তার চলাফেরা।

বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী হলেও জেনিফার লোপেজ নিজেকে একজন গায়িকা হিসেবেই পরিচয় দেন। কণ্ঠই তার মূল সম্পদ বলে মনে করেন তিনি। নতুন খবর হলো- প্রায় এক বছর পর আবার নায়িকা হয়ে আসছেন এই গায়িকা। আগামী মাসেই মুক্তি পাচ্ছে তার নতুন ছবি 'দ্য হুইসটিয়ারস অ্যাটস্কোরস'। হিপ-হপ কমেডিনির্ভর এ ছবিতে ভিন্নধারা একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন লোপেজ। এরই মধ্যে ছবিটির টিজার প্রকাশ পেয়েছে। ছবিটি মুক্তির আগে বেশ প্রচারণাও চালাচ্ছেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও শেয়ার করছেন ছবিটির নানান রকম ছবি ও মন্তব্য। ছবিটি নিয়ে অনেক আশাবাদী কণ্ঠে লোপেজ বলেন, 'অনেক ছবিতে অভিনয় করেছি। কিন্তু এরকম গতানুগতিক ধারার বাইরের একটি চরিত্রে অভিনয় করে যে মজা পেয়েছি, তা অন্য কোনো ছবিতে পাইনি। আমার বিশ্বাস আমার ভক্তরাও আমার এমন চরিত্র দেখে মজা পাবে।'

জেনিফার লোপেজের সর্বশেষ অভিনীত ছবি 'সেকেন্ড অ্যাক্ট' মুক্তি পায় গত বছর ডিসেম্বরে। সিনেমাটিতে তাকে একটি ভ্যালু শপের অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার মায়া ভারগাসের ভূমিকায় দেখা গেছে। মায়া তার ৪৩তম জন্মদিনে চাকরিতে একটি প্রমোশন পেতে মরিয়া হয়ে ওঠে। তবে তার কর্মজীবনের রেকর্ড ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে সন্তুষ্ট করতে পারে না। মায়া ভারগাস দোকানে আসা ক্রেতাদের চাহিদার কথা শোনার পর সে অনুযায়ী কাজ করে। এক সময় তার চাকরিটা চলে যায়। এরপর নিজের যোগ্যতা প্রমাণের জন্য ম্যাডিসন এভিনিউতে নতুন আরেকটি কাজে লেগে পড়ে। ১০৪ মিনিট দৈর্ঘ্যের হলিউডি সিনেমাটির কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন জেনিফার লোপেজ। এ সিনেমা তার অভিনয় জীবনে একটি উলেস্নখযোগ্য সংযোজন বলে মন্তব্য করেন এই তারকা। 'সেকেন্ড অ্যাক্ট' সিনেমার মায়া ভারগাস চরিত্রটি জেলোর ক্যারিয়ারে দারুণ এক চ্যালেঞ্জ হয়ে এসেছিল, এ কথা সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে স্বীকার করেছেন তিনি।

\হজেনিফার লোপেজকে নিয়ে সব সময় ভক্তদের থাকে ভিন্নরকম উন্মাদনা। তাই প্রতিনিয়ত নানারূপে হাজির হয়ে সবাইকে মন্ত্রমুগ্ধ করে রেখেছেন এই তারকা শিল্পী। এবার নতুনরূপে পর্দায় দেখা যাবে তাকে। সম্প্রতি আরও একটি কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। কলম্বিয়ার কুখ্যাত মাদকসম্রাজ্ঞী গিস্নসেন্ডো বস্ন্যাঙ্কোর জীবনী নিয়ে নির্মিত হতে যাচ্ছে 'দ্য গডমাদার' শিরেনামের একটি ছবি। ছবিতে গডমাদারের ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। অভিনয়ের পাশাপাশি ছবিটি প্রযোজনাও করছেন তিনি। বস্ন্যাঙ্কোকে বলা হতো কোকেনের গডমাদার। দীর্ঘ চার দশকের বেশি সময় তিনি কলম্বিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামি, নিউইয়র্ক আর ক্যালিফোর্নিয়ার মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করতেন। সত্তর ও আশির দশকে যুক্তরাষ্ট্রে মাদক বাণিজ্যে বিপস্নব ঘটান তিনি। এমন চরিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে লোপেজ বলেন, 'বস্ন্যাঙ্কোর জীবনের গল্প আমাকে অনেক কৌতূহলী করত। এমন রহস্যময় অন্ধকারাচ্ছন্ন জীবনকে বড়পর্দায় তুলে ধরার জন্য আমি মুখিয়ে আছি। এ ধরনের চরিত্রে অভিনয় করা যে কোনো অভিনয় শিল্পীর জীবনে স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতো ব্যাপার। আশা করছি, দারুণ কিছু হবে।'

গানের মানুষ হয়েও অভিনয়ে বেশ সিরিয়াস জেনিফার লোপেজ হলিউড তারকা হিসেবে চমৎকার একটি অবস্থানে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। অবশ্য এর পিছনে তার একান্ত প্রচেষ্টা সবচেয়ে বেশি কাজ দিয়েছে। হলিউডে জেনিফার লোপেজ প্রথমত একজন গায়িকা, যিনি অভিনয়ে এসে সাফল্য পেয়েছেন।

হলিউডে জেনিফার লোপেজের পদচারণার শুরু ১৯৮৬ সালে। 'মাই লিটল গার্ল' সিনেমায় তাকে প্রথম দেখা গিয়েছিল একটি ছোট্ট রোলে। গায়িকা, নৃত্যশিল্পী, প্রযোজক ইত্যাদি পরিচয়ে পরিচিতি লাভ করলেও অভিনেত্রী হিসেবে জেলো কোনো অংশে কম যান না- এর মধ্যেই তিনি এটা প্রমাণও করেছেন। বর্তমানে তিনি এইচবিওর জন্য নির্মাণাধীন টেলিভিশন ফিল্মটির নির্বাহী প্রযোজক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে