logo
বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৬

  রায়হান রহমান   ০২ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

কেমন যাবে ২০২০

পুরানো দিনের সব দুঃখ ক্লেশ ভুলে নতুন দিনের প্রত্যাশায় সবাই এগিয়ে যেতে চান। পর্দার মুখগুলোও এর বাইরে নয়। তারাও দিন শেষে হিসাব কষেন- কী করছেন, কী ভুল ছিল, কী করা উচিত ছিল? হিসাব শেষে স্বপ্ন দেখেন বর্ণিল আগামীর।

কেমন যাবে ২০২০
সাদিকা পারভিন পপি
সদিকা পারভিন পপি : ২০১৯ বেশ ঝলমলেই কেটেছে। স্টেজ ও চলচ্চিত্রের কাজ নিয়ে ভালোই ব্যস্ত ছিলাম। তবে ২০২০ নিয়ে আমি আরও বেশি আশাবাদী। এ বছর আমার একাধিক ছবি মুক্তি পেতে পারে। এ ছাড়াও বেশ কিছু কাজ নিয়ে কথাবার্তা চলছে, ফলে এ বছর কাজের মাঝেই ডুবে থাকতে চাই।

সাজু খাদেম : বর্তমান সময়ে খন্ড নাটকের গল্পগুলো অনেক শক্তিশালী। গত বছর তার আঁচ আমরা ভালোভাবেই পেয়েছি। তবে এ বছরে নাটক নির্মাণে আরও বেশি মুন্সিয়ানা দর্শক দেখতে পাবে বলে আমার বিশ্বাস। দেশীয় নাটক দিনকে দিন উন্নতি করছে।

মৌসুমী হামিদ : ২০১৯ নিয়ে পর্যালোচনা করলে ভালো মন্দের মিশেল পাওয়া যাবে। বছরের শুরুতে যে পরিকল্পনা নিয়ে শুরু করেছিলাম, নানাবিদ কারণে সেভাবে বছরটি শেষ করতে পারিনি। তবে এ বছর দর্শককে আরও বেশি কাজ উপহার দেওয়ার ইচ্ছা আছে।

সোহেল খান : বিগত কয়েক বছরের মতো গত বছরও কিছু ভালো কাজ হয়েছে। এর মধ্যে আমারও কয়েকটি কাজ আছে। ফলে সদ্য প্রাক্তন হওয়া বছরটি দুর্দান্ত কেটেছে। আশা করছি, এ বছরেও গত বছরের রেশ থাকবে। নাটকে আরও বেশি সৃজনশীলতা দেখানো সুযোগ পাব বলেই আমার বিশ্বাস।

পথিক নবী: দীর্ঘ চৌদ্দ বছর পর গত বছর নতুন গানে কণ্ঠ দিয়েছি। ফলে গত বছর থেকে আমি আবারও নতুনভাবে যাত্রা করেছি। এ ধারা অব্যাহত থাকবে ২০২০-এও। শুরুর দিকে আমার কয়েকটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার কথা। কাজগুলো মোটামুটি গুছিয়ে রেখেছি। এখন সময়ের অপেক্ষা; আশা করি, দর্শককে গত বছরের চেয়ে আরও বেশি বিনোদন দিতে পারব।

শাহেদ আলী : আমি সবসময় ভালো কাজের অপেক্ষায় থাকি। এ বছরও থাকব। মৌলিক গল্প ও কাজের সুন্দর পরিবেশ পেলে সঙ্গে সঙ্গে কাজের প্রস্তাব লুফে নেই। যদিও পরিকল্পনা করে কোনো কাজ করি না। অন্যভাবে বলতে গেলে, আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে পরিকল্পনা করে কোনো কিছু করা সম্ভব নয়। এরপরও প্রত্যাশার খাতায় অনেক কিছু থাকে। চাইব সুন্দর ও সৃজনশীল একটি বছর পার করতে।

প্রাণ রায় : দেখতে দেখতে আরও একটি বছর অতিবাহিত করে ফেলেছি। খন্ড ও ধারাবাহিক নাটক মিলিয়ে খুব ব্যস্ত সময় গেছে। বেশিরভাগ নাটক প্রচারিত হওয়ার পরই দর্শকের ইতিবাচক সাড়া পেয়েছি। গত বছরের এমন দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা এ বছর কাজে লাগাতে চাই। আরও বেশি মানসম্মত কাজে মনোনিবেশ করার ইচ্ছে আছে। আর গত বছর যে ভুলগুলো করেছি, তা এ বছর করব না। আশা করছি, এ বছর আরও বেশি সুন্দর হবে।

তাসকিন রহমান : এ বছর আমার জন্য ব্যস্ততম একটি বছর হবে। শুটিং সিডিউলের দিকে নজর দিলেই সেটা বুঝা যাচ্ছে। বর্তমানে 'অপারেশন সুন্দরবন' নিয়ে আছি। এরপর 'স্বপ্নবাজি' ও 'ইত্তেফাক' ছবির কাজ রয়েছে। ফলে দম ফেলার ফুরসত হয়তো পাব না। তা ছাড়া ইতোমধ্যে 'মিশন এক্সট্রিম' ছবিটির মুক্তি দিনক্ষণ চূড়ান্ত হয়েছে। সবমিলিয়ে গত বছরের চেয়ে এ বছর আরও বেশি বর্ণিল হবে বলে আমার বিশ্বাস।

তৌসিফ মাহবুব : কয়েক বছর ধরে খন্ড নাটক নিয়েই ব্যস্ত রয়েছি। মাঝেমধ্যে একটি ধারাবাহিকেও কাজ করেছি। এর মধ্যে 'ব্যাচেলর পয়েন্ট' অন্যতম। সবমিলিয়ে গত বছর পর্যন্ত ভালোই গেছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে