রোববার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

পাংশাতে চাঞ্চল্যকর স্কুল শিক্ষক হত্যা: অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার-৫

রাজবাড়ী প্রতিনিধি
  ০৫ মে ২০২৩, ১৪:১০
পাংশাতে চাঞ্চল্যকর স্কুল শিক্ষক হত্যা: অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার-৫

রাজবাড়ীর পাংশায় মিজানুর রহমান মুকু(৪৭) নামের এক স্কুল শিক্ষককে গুলি করে হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। সেই সাথে হত্যার সাথে জড়িত ৫ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে।এসময় তাদের কাছ থেকে একটি একনলা বন্দুক, দুুই পিস কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার(৫ মে) সকাল ১১ টায় পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিং এ তথ্য নিশ্চিত করেন পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো , রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের হাটবনগ্রামের কলম শেখের ছেলে শাকিবুল হাসান(১৬),আনন্দ সরকারের ছেলে আকাশ সরকার(১৯),ইন্দ্রজিৎ সরকারের ছেলে রামপ্রাসাদ সরকার,অজিৎ সরকারের ছেলে বিজয় সরকার(১৮),অরবিন্দু সরকারের ছেলে বাদল সরকার(১৮)।

নিহত মিজানুর রহমান মুকু পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের বসাকুষ্টিয়া গ্রামের ইব্রাহিম মন্ডলের ছেলে।সে পাংশা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক (গ্রন্থাগারিক ও তথ্য বিজ্ঞান) ছিলেন ।

এর আগে মঙ্গলবার মিজানুর রহমান মুকুর স্ত্রী শাহানারা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৮-১০ জনকে আসামী করে পাংশা মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।মামলা দায়ের হলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৫ আসামিকে গ্রেপ্তার করে।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান , মিজানুর রহমান পাংশা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও হোসেনডাঙ্গা বাজারে সার ব্যবসায়ি ছিলেন। গত রোববার(৩০ এপ্রিল) রাত ৯ টার দিকে তার সারের দোকানের হালখাতা শেষ করে ব্যক্তিগত মোটরসাইকেল বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হন।পথিমধ্যে বলাই বিশ্বাসের বাড়ির সামনে রাস্তা ভাঙা থাকায় মোটরসাইকেলের গতি কমলে আগে থেকেই ওৎ পেতে থাকা ৮/১০ জন ছিনতাইকারী তার টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার উদ্দেশ্যে গতিরোধ করে।

পরে ছিনতাইকারীরা তার নিকট টাকা না পেয়ে তার সাথে কথাকাঠি হয়।এক পর্যায়ে ছিনতাইকারীরা আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে মিজানুরের মাথায় গুলি করলে সে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

পরে এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে হত্যার সাথে জড়িত ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ সুপার শাকিলুজ্জামান আরও জানান, গ্রেপ্তারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।ঘটনার সাথে জড়িত অনান্য আসামি গ্রেপ্তার ও আলামত উদ্ধারে অভিযান অব্যহত রয়েছে।মূলত হালখাতার টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যেই এই হত্যাকন্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।দ্রুততম সময়ের মধ্যে মামলাটির তদন্ত নিষ্পত্তি করে বিজ্ঞ আদালতে পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(প্রশাসন ও অর্থ) মো.সালাহউদ্দিন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(ক্রাইম এন্ড অপস্) মো.রেজাউল করিম,সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল)সুমন কুমার সাহা,ডিআইও-১ মো.সাইদুর রহমান,পাংশা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান সহ জেলা পুলিশের অনান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে