বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ধুনটে শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের পর হত্যা

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি
  ০৬ মে ২০২৩, ০৯:৪৬
ধুনটে শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের পর হত্যা

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় প্রথম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবার (৫ মে) রাত ৯টার দিকে ধুনট থানা পুলিশ ওই শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করেছে।

নিহত শিশু রজনী আকতার (৭) ধুনট উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের এলাঙ্গী পশ্চিমপাড়া এলাকার গাজিউর রহমানের মেয়ে এবং সে এলাঙ্গী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর ছাত্রী ছিল।

নিহতের পরিবার জানায়, বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে শিশু রজনী বাড়ি থেকে বের হয়ে এলাঙ্গী বাজারের দিকে যায়। কিন্তু সে আর বাড়িতে ফিরে যায় না। পরে তার পরিবার সন্ধ্যার পর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি করেও তার সন্ধান পায় না। একারনে নিখোঁজ ওই শিশুকে খুঁজতে মসজিদে ও বিভিন্ন এলাকায় এলাকায় মাইকিংও করা হয়। কিন্তু তারপরও শিশুটির কোন সন্ধান পায় না তার পরিবার। এতে নিরুপায় হয়ে শুক্রবার দুপুরের দিকে শিশু রজনীর বাবা তার মেয়েকে ফিরে পেতে ধুনট থানায় একটি জিডি দায়ের করেন।

এদিকে শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এলাঙ্গী ইউনিয়ন পরিষদের উত্তর পাশে^র একটি জঙ্গলে শিশু রজনী আকতারের মরদেহ দেখতে পেয়ে ধুনট থানা পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ সংবাদ পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত শিশু রজনীর মাথা সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ ধারনা করছে, তাকে ধর্ষণের পর হত্যা করে মরদেহ জঙ্গলে ফেলে দেওয়া হয়েছে। তবে স্থানীয়দের ধারনা পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই এমন ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

এবিষয়ে ধুনট থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত মনিরুল ইসলাম জানান, সংবাদ পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধরনা করা হচ্ছে ধর্ষণের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশের কয়েকটি দল আপরাধীদের ধরতে কাজ করছে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়