নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্য নিশ্চিত করার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্য নিশ্চিত করার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

দেশের মানুষের খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তার প্রধান উৎস কৃষিতে সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপ ও যুগোপযোগী নীতিমালা প্রণয়নের ফলে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি পেয়েছে। নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা সরকারের জন্য অন্যতম চ্যালেঞ্জ। সরকারের একার প্রচেষ্টায় সবার জন্য নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা অনেক সময়ের ব্যাপার। ব্যক্তিগত সচেতনতা ও সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ অপরিহার্য। গত মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের (বিএআরসি) কনফারেন্স কক্ষে 'নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্য ভ্যালু চেইন উন্নয়নে সম্মিলিত প্রয়াস' শীর্ষক দুইদিনব্যাপী জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, সচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপশি কাজ করতে হবে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন, বাজারব্যবস্থাপনা নিয়ে। উৎপাদন থেকে শুরু করে প্রক্রিয়াজাতকরণ, সংরক্ষণ ও বিপণনের এবং খাবার টেবিলে পরিবেশন পর্যন্ত সর্বক্ষেত্রে নিরাপদ খাবার নিশ্চিতকরণের বিধি-বিধানগুলো পুরোপুরিভাবে অনুসরণ করা দরকার। না হলে নিরাপদ খাদ্যও অনিরাপদ হয়ে যেতে পারে। সরকার ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে উদ্যোগ নিয়েছে। 'সবার জন্য পুষ্টিকর ও নিরাপদ খাদ্য : মুজিববর্ষে অঙ্গীকার' স্স্নোগানকে সামনে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে বিসেফ ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল যৌথভাবে দুই দিনব্যাপী এ সেমিনারের আয়োজন করে।

সম্মেলনটি উদ্বোধন করেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন বিএআরসি-এর নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাকের চেয়ারম্যান ড. হোসেন জিলস্নুর রহমান, বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) মাহবুব কবীর, এসিআই এগ্রো বিজনেসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এফ এইচ আনসারী। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিসেফ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে