কটিয়াদীতে ভুুট্টা আবাদের আগ্রহ বাড়ছে

কটিয়াদীতে ভুুট্টা আবাদের আগ্রহ বাড়ছে

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে ভুুট্টা চাষের উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। তাই এটি চাষে আগ্রহ বাড়ছে কৃষকদের মাঝে। তবে প্রধান সমস্যা এই ফলনটির এখনো পুরোপুরিভাবে বাজার সৃষ্টি হয়নি। এই উপজেলায় ভুুট্টা উৎপাদনের হার বৃদ্ধি পেয়েছে। 'তবে স্থানীয়ভাবে ভুুট্টার বাজার তৈরি হলে উৎপাদন আরো বাড়বে বলে মনে করেন স্থানীয় কৃষকরা। এদিকে কৃষি অফিস বলছে, কৃষকদের নতুন ফসল বাজারজাতকরণে তারা সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। জানা গেছে, ভুুট্টার ব্যবহার অনেক রকমের। এর পাতা উৎকৃষ্ট গোখাদ্য। ভুুট্টার ফলন ওঠার পর গাছ জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এটি দানাদার গোখাদ্য, পোল্ট্রি ফিড, মৎস্য ফিডসহ পশু পাখির সব খাবার তৈরিতেই ব্যবহার হয়। অপরদিকে মানুষের খাদ্য তৈরিতে ভুুট্টার ব্যবহার হয় ব্যাপক হারে। শিশু খাদ্য থেকে শুরু করে রোগীর পথ্য তৈরিতেও ভুুট্টার ব্যবহার রয়েছে।

কৃষি অফিসের তথ্য মতে, এ বছর কটিয়াদী উপজেলায় ১৮০ হেক্টর জমিতে ভুুট্টা চাষ হয়েছে। এদের মধ্যে ৩০০ জন কৃষককে বীজ ও সার দেয়া হয়েছে। প্রতি ১ বিঘা জমিতে ডিইপি সার ২০ কেজি, এমওপি সার ১০, বীজ ২ কেজি করে দেয়া হয়। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে পুরো কটিয়াদী উপজেলায় মাত্র ১৫ হেক্টর জমিতে ভুুট্টা চাষ করা হয়েছিল। সেই তুলনায় এ বছর ব্যাপক হারে ভুুট্টা চাষা করা হয়েছে।

বাগরাইট গ্রামের কৃষক আব্দুর রহিম জানান, গত বছর তিনি সাড়ে ১৭ শতাংশ জমিতে ভুুট্টা চাষ করেছিলেন। ভুুট্টা চাষে খরচ কম থাকায় এ বছর তিনি সুপার সাইন ২৭১০ জাতের ৩৩ শতাংশ জমিতে ভুট্টা চাষ করেছেন। এই চাষে খরচ কম এবং পরিশ্রমও কম। আমি আগামীতে আরো অধিক জমিতে ভুট্টা চাষ করব।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে