সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
walton

বন্ধু ও বন্ধুত্ব

'বন্ধুু' ছোট এ শব্দের মাঝে মিশে আছে যেন পৃথিবীর সব নির্ভরতা। বন্ধুত্ব মানেই জীবনের সবুজতম সম্পর্ক। বন্ধু মানে দুটি দেহের একটি প্রাণ। আরও সহজ করে বলতে গেলে আত্মার কাছাকাছি যে বাস করে, সেই বন্ধু। সুসময় কিংবা অসময়ের সঙ্গী। কিশোর থেকে বৃদ্ধ সবাই বন্ধুত্বের কদর করেন। বলা হয়ে থাকে, যদি বন্ধু হও হাতটা বাড়াও। সেই হৃদয়ের আহ্বানে মিলেছে সব বন্ধুর হাত। সত্যিকারার্থেই বন্ধুত্ব এক অদ্ভুত সম্পর্কের নাম। রক্তের হয়তো কোনো লেনদেন থাকে না এ ক্ষেত্রে, তবু সে সম্পর্কের চেয়েও বেশি আবেগের হয়ে ওঠে বন্ধুত্ব। তবে বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের বন্ধুত্বটাও একটু অন্যরকম হয়। বন্ধু ও বন্ধুত্ব নিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের ভাবনাগুলো তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও ক্যাম্পাস সাংবাদিক
মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ
  ২০ আগস্ট ২০২২, ০০:০০

অটুট থাকুক 'বন্ধুত্ব'

নাজমুন নাহার সুপ্তি

শিক্ষার্থী, আইন বিভাগ

পুবাকাশের সূর্যটা আজ নতুন বার্তা নিয়ে আমাদের কাছে হাজির হয়েছে। সূর্যটা আজ ওঠেছে ভ্রাতৃত্ব আর সম্প্রীতির বন্ধন নিয়ে বন্ধুত্বের আহ্বানে। সে সূর্যের আলো আজ ছড়াবে সৌহার্দ্য আর ভালোবাসার রং। বন্ধু দিবসকে ঘিরে নানা কল্পনা জল্পনা থাকলেও প্রকৃত বন্ধু হলো সে যিনি অপর বন্ধুর দুঃখে সমব্যথী হয়, সুখকে সমানভাবে ভাগ করে নেয়। বন্ধুত্ব কোনো সূত্রের মাপকাঠিতে মাপা যায় না। যে কথাগুলো গুরুজন বা পিতা-মাতাকে বলা যায় না। সে কথাগুলো আমরা প্রাণ খুলে বন্ধুর কাছে প্রকাশ করি। ভালো লাগা, মন্দ লাগা, সুখ-দুঃখের কথা বন্ধুর কাছে নির্ভয়ে মন খুলে বলা যায়। বন্ধুত্বের বন্ধনে কোনো স্বার্থ থাকে না। বন্ধুত্ব যতই পুরাতন হয়, ততই দৃঢ় হয়। জীবনের প্রয়োজনেই মানুষ বন্ধু খুঁজে নেয়। তবে এ কথাও ঠিক, সব বন্ধুর গুরুত্ব সমান হয় নয়। সত্যিকারের বন্ধুত্ব নিয়ে নানান মত থাকলেও একটি ব্যাপারে সবাই একমত বন্ধু ছাড়া জীবন অসম্ভব। অটুট থাকুক সবার বন্ধুত্ব।

পথচলার সঙ্গী 'বন্ধু'

মো. জাহিদ হাসান

শিক্ষার্থী, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগ

পথচলার সঙ্গী হিসেবে কম-বেশি প্রত্যেকেই একজন বন্ধুকে পেতে চান। এমন একজন বন্ধু, যার সঙ্গে মন খুলে প্রতিটি কথা বলা যায়! কিন্তু সব সময় তা হয়ে ও ওঠে না। আসলে সবারই আলাদা একটি বন্ধুমহল রয়েছে। এমনকি আপনার পথচলার সঙ্গী যা করতে পারেন না, সেটিও হয়তো পারেন আপনার কোনো প্রিয় বন্ধু। কিন্তু সমস্যা তখনই দেখা দেয় যখন আপনার ভালোবাসার মানুষ নিষেধাজ্ঞা দিয়ে বসেন বন্ধুর ওপর। সে ক্ষেত্রে কিন্তু দোটানায় পড়তে হয়। বয়স বাড়ার সঙ্গে বন্ধুত্বের পরিসর বাড়তে থাকে, বাড়তে থাকে দায়িত্বও। তাছাড়া বন্ধু বন্ধুই হয়। তবে দুজনের মধ্যে আন্তরিকতা থেকে যদি প্রেমের জন্ম নেয় তা দোষের কিছু নয়। কিন্তু কোনোভাবেই একতরফা প্রেমের জন্য বন্ধুত্বের সম্পর্কে নষ্ট হতে দেওয়া ঠিক নয়। বন্ধুদের সঙ্গে কেবল আনন্দই মূল কথা নয়, বিপদে তার পাশে দাঁড়ানো, যথাসাধ্য সাহায্য করাও বন্ধুত্বের দাবি। বন্ধুই হোক আর পথচলার সঙ্গীই হোক, পরস্পরের প্রতি থাকতে হবে শ্রদ্ধা।

ভালো থাকুক 'বন্ধুত্ব'

তাজুল ইসলাম তাসিন

শিক্ষার্থী, সমাজকর্ম বিভাগ

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী রাশেদ উদ্দীন আহমেদ তপুর কণ্ঠে গীতিকার শিমুল সরকার লিখেছিলেন, 'সুসম্পর্ক, দুঃসম্পর্ক, আত্মীয়-অনাত্মীয়, শত্রু-মিত্র, রক্ত সম্পর্কে কেউ বা দ্বিতীয়। সৎ-অসৎ, দূরের-কাছের, বৈধ-অবৈধ হাজারও এসব সম্পর্ক ভাঙে, থাকে বন্ধুত্ব!' বাস্তবে বন্ধুত্ব হলো ঠিক এমনই একটা সম্পর্ক যেখানে থাকে না রক্তের সম্পর্ক-স্বার্থের টান, থাকে আত্মার বন্ধন। কখনও কখনও সব সম্পর্ককে হার মানিয়ে যে সম্পর্কটি আমৃতু্য টিকে থাকে সেই সম্পর্কের নামই বন্ধুত্ব। বিপদে-আপদে, মন খারাপে, কারণে-অকারণে, সুসময়-দুঃসময়ে নির্দ্বিধায় সব সময় পাশে পাওয়া যায় আমাদের প্রাণপ্রিয় বন্ধুদের। বন্ধু মানেই আড্ডা, টু্যর, গল্প আর ছবি তোলা। তবে করোনা মহামারির এই কঠিন সময়ে বন্ধুত্বে পড়েছে ভাটা। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিনিয়ত চলছে বন্ধু-আড্ডা। লকডাউনের কারণে ঘরে আবদ্ধ থাকায় আমাদের প্রিয় বন্ধুদের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয় না। তবে ঘরে বসে বন্ধুমহলের সুখস্মৃতি স্মরণ করতে ভুলবে না কেউই। সবশেষে বন্ধুত্ব নামক সম্পর্কটির সঙ্গে কখনও খারাপ শব্দটির ব্যবহার হয় না, বন্ধু মানেই ভালো কিছু।

'বন্ধুত্ব' থাকুক আজীবন

মুশফিকুর রহমান

শিক্ষার্থী, মার্কেটিং বিভাগ

ছোট্ট একটা পরিচয় থেকেই গড়ে ওঠে বন্ধুত্ব। আর বাড়তে থাকে বন্ধুর সংখ্যা। ক্লোজ ফ্রেন্ড, বেস্ট ফ্রেন্ড এখন আবার জাস্ট ফ্রেন্ডও রয়েছে। তবে সমসাময়িক সবার সঙ্গেই বন্ধুসুলভ সম্পর্ক হয়ে যায়। বন্ধুর সঙ্গে মোটামুটি সব বিষয়ই সহভাগিতা করা যায়। তবে অবশ্যই তার আগে বন্ধুর মনমানসিকতাও যাচাই করে নেওয়া প্রয়োজন। কারণ আমি যেই ধরনের অবস্থার ভেতর দিয়ে যাচ্ছি আমার বন্ধুর অবস্থা তার বিপরীতও হতে পারে সেক্ষেত্রে সে আমায় বুঝতে পারবেন না। বন্ধুকে নির্দ্বিধায় সবকিছু বলা গেলেও বিশেষ কিছু বা গোপনীয় কিছু বলার আগে ভেবে দেখা প্রয়োজন। আবার কোনো বন্ধু যদি নিজের কোনো ব্যক্তিগত কথা বলেও তাহলে তার বিশ্বাসকে সম্মান দেখানো উচিত। কোনোভাবেই তার কথা অন্যদের সঙ্গে আলোচনা করা উচিত না। বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে মনমানসিকতা মিল আর মেলামেশার মাধ্যমে। তাই বন্ধুদের অবশ্যই সব কিছু বলা যায়। তবে কিছু বিষয় থাকে যা বন্ধুকে বলার আগে অবশ্যই তাকে যাচাই করে নেওয়া উচিত। বন্ধুকে খোলা মনে কিছু বললাম আর সে তা অন্যদের কাছে বলে দিল তাহলে তো আর গোপনীয়তা থাকল না। তাই বন্ধুকে ভালোভাবে যাচাই করে তার সব কিছু বিবেচনা করে নিজের কথাগুলো বলা উচিত। আর এ বন্ধুত্বের সম্পর্ক আজীবন অটুট রাখা জরুরি।

প্রকৃত বন্ধুর নামই 'বন্ধুত্ব'

আঁখি আক্তার বন্যা

শিক্ষার্থী, ইতিহাস বিভাগ

আমাদের জীবনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য প্রকৃত বন্ধুর উপস্থিতি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বন্ধু যদি প্রকৃত হয় তাহলে জীবনের পথচলাগুলো মসৃণ হয়ে যায় কিন্তু সেই বন্ধুই যদি গোপন শত্রম্ন হয়ে যায় তাহলে হয়ে যায় দুর্বিষহ। আমাদের দৈনন্দিন চলার পথে সব থেকে বেশি সময় কাটানো হয় বন্ধুদের সঙ্গে। তাই খাঁটি বন্ধু প্রতিটি মানুষের জীবনেই আবশ্যক। বর্তমানে বন্ধুত্ব হয়ে গেছে অনেক সহজলভ্য ফেসবুকে ইনস্টাগ্রামে মাত্র এক ক্লিকেই হয়ে যায় একজন আরেকজনের বন্ধু এখানে কাউকে ভালো করে চেনাজানার, একসঙ্গে চলার সুযোগ থাকে না। আমাদের স্কুল জীবনের বন্ধুত্বগুলো খুবই নিঃস্বার্থ হয়। কেননা তখন খেলতে খেলতেই একটি আঙুলের মিলের মাধ্যমে বন্ধুত্ব হয়ে যায়। বর্তমানে আমাদের ব্যস্ত সময়ে আসল বন্ধু চেনার সময়টুকুও নেই। তাই বন্ধুর বেশে প্রতারণার হারও ক্রমেই বাড়ছে। বন্ধুর উপর বিশ্বাসে মরিচা ধরছে। এত এত বন্ধুর ভিড়ে আসল বন্ধুটিকে চিনে নেওয়ার কাজটি একটু কঠিনই বটে। প্রতিটি দিন একে অপরের পাশে থাকার নামই বন্ধুত্ব।

'বন্ধু' নির্বাচনে সতর্ক হোন

আফরোজা আক্তার

শিক্ষার্থী, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ

বন্ধু মানে একসঙ্গে পড়ালেখা করা সহপাঠীরা নয়, নয় একসঙ্গে চলাফেরা করা সমবয়সিরা। এক কর্মক্ষেত্রে কাজ করা কলিগরাও নয়। বন্ধুর সংজ্ঞা যেমন কঠিন, তেমনি বন্ধু নির্বাচন করাও কঠিন। এক শ্রেণিতে পড়া, এলাকায় বাস করা সবাই বন্ধু নয়। তারা আপনার পরিচিত সহপাঠী, বাসিন্দা। বন্ধু তারা যাদের সঙ্গে আপনি আপনার মনের সব কথা বলতে পারেন। কোনো সমস্যায় পড়লে সাহায্য চাইতে পারেন। যে আপনার বিশ্বাস কখনও ভাঙবে না, আপনার আড়ালে আপনাকে নিয়ে বাজে বলবে না। বন্ধুরা একসঙ্গে আড্ডা দেবে, গ্রম্নপ স্টাডি করবে, কারো বিপদে এগিয়ে আসবে, নিয়মিত যোগাযোগ রাখবে। আপনি কোনো একটা কাজ করবেন আপনাকে উৎসাহ দেবে। আপনাকে সময় দেবে। আপনাকে কটাক্ষ করবে না। কখনও কারো নামে গীবত, গুজব ছড়াবে না। আপনার সুসময়ে যারা পাশে থাকে এবং দুঃসময়ে দূরে চলে যায় খোঁজ নেয় না এরা প্রকৃত বন্ধু হতে পারে না। এরা আপনার বন্ধু হয়েছে শুধু নিজের লাভের জন্য আপনাকে ব্যবহারের জন্য। এরা আপনাকে সফলতার পথে বাধার সৃষ্টি করে। আপনার মাঝে বদ অভ্যাস তৈরি করে। বিপদের মাঝে ঠেলে দেবে, সাহায্য করবে না। তাই বন্ধু নির্বাচনে সতর্ক হোন।

বন্ধুত্বের কোনো নির্দিষ্ট অর্থ নেই

সাফা আক্তার নোলক

শিক্ষার্থী, দর্শন বিভাগ

বন্ধুত্ব হচ্ছে চুইংগামের মতো হৃদয়ের কাছাকাছি, যা একবার মনে স্থান করে নিলেই হলো, ছাড়তে চাইলেও তা সম্ভব হয় না। বন্ধুত্ব এমন একটি শব্দ যার অর্থ আজও বুঝে উঠা হলো না। হন্যে হয়ে খুঁজে ফিরি। কবিতা, গান, গল্প, উপন্যাস, নাটক, কথোপকথন, সিনেমাতে। আরও কত কিসে চলে এই রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা। বন্ধুত্বের কোনো নির্দিষ্ট দিন নেই, কারণ সারা বছরই বন্ধুত্বের দিনে ভরা। হঠাৎ অচেনা দুঃখে মন ভেঙে যাওয়া, কাউকে ভালো লাগলে, মনটা বেশ ফুরফুরে হয়ে গেলে, পেটের মধ্যে প্রজাপতিরা উড়াউড়ি শুরু করে তখনই মনে হয় প্রিয় বন্ধুর সঙ্গে ভালো লাগার রেশটা শেয়ার করে নেই। এটাই বন্ধুত্ব। বন্ধু হলো সে যার সঙ্গে সুখ ভাগ করলে বাড়ে, আর দুঃখ ভাগ করলে কমে। সে সময় বিশেষে আমাদের পাশে দাঁড়ানো সহমর্মী, পিঠে হাত রেখে বলে, যা করেছিস বেশ করেছিস, লড়ে যা, আমি পাশে আছি! আবার কখনও বাবা-মায়ের মতো শাসন করে বলে, ফের যদি ও রাস্তায় হেঁটেছিস, তাহলে দেব একরদ্দা! যে বকতে পারে, ভালোবাসতে পারে, বিপদে পাশে দাঁড়াতে পারে, অকারণে ট্রিট চাইতে পারে, জন্মদিন ভুলে যেতে পারে, ঝগড়া করেও দেঁতো হাসি হেসে নোটের খাতা চাইতে পারে- এমন লোককে মনে করার জন্য কোনো দিন আলাদা করে হয় নাকি! সারা বছরই তো তাকে মনে পড়ে! কিন্তু তবু যদি বছরের একটা বিশেষ দিন বরাদ্দ করা হয় তার জন্য যেদিনটা শুধু তার, তাহলে মন্দও হয় না। প্রতি বছর আগস্ট মাসের প্রথম রবিবারটা তাই সারা বিশ্ব বন্ধু শব্দটার জন্য তুলে রেখেছে। যেদিনটা তাকে মনে করার দিন, তাকে মনে করিয়ে দেওয়ার দিন যে, তুই না থাকলে সকালটা এত মিষ্টি হতো না।

বন্ধু আড্ডায় উলস্নাস

মিতালি আক্তার

শিক্ষার্থী, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ

বন্ধুত্ব তো সেটাই, যাকে কোনো কিছু দিয়ে পরিমাপ করা যায় না। বিভিন্ন বয়সে, বিভিন্ন প্রকারের সঙ্গা দিয়ে আসে জীবনে বন্ধু। তাইতো আমাদের পরম কাছের বন্ধু হতে পারে আপন মানুষ, পোষা প্রাণী এমনকি প্রকৃতির যে কোনো কিছুই। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সাদরে পালন করা হয় আন্তর্জাতিক বন্ধুত্ব দিবস। আমাদের দেশেও গত কয়েক বছরে এই বন্ধু দিবস ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। বিভিন্নভাবে এই দিনটিতে সবাই তাদের বন্ধুদের সঙ্গে এই দিনটি উদযাপন করে। বস্তুত বন্ধুদের জন্য আলাদা কোনো দিনক্ষণও প্রয়োজন হয় না। জীবনের যে কোনো পরিস্থিতিতে, যে কোনো সময়ে পাশে থাকে এই বন্ধু। বন্ধু ছাড়া জীবনে পথচলা মুশকিল। করোনা মহামারিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার দরুন সবকিছু অনলাইনভিত্তিক হয়ে গেছে। একদিকে কিছু মানুষের যেমন ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়েছে অন্যদিকে কিছু মানুষের সাথে দূরত্বও বেড়েছে। সবাই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে কবে আবার ফিরে পাবে সেই খুশিমাখা প্রাণোজ্জ্বল দিনগুলো যেখানে বন্ধুদের সঙ্গে উলস্নাসে মেতে উঠবে প্রতিটা ক্ষণে প্রতিটা প্রাণ; সবাই এক 'আমি' তে পরিণত হবে। খুব শিগগিরই এই মহামারির প্রকোপ কাটিয়ে সেই সুদিন আসবে বলে আশা করছি।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে