বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ভাতৃত্বের বন্ধনে জবি প্রেস ক্লাবের ইফতার

লিমন ইসলাম
  ০৬ এপ্রিল ২০২৪, ০০:০০
ভাতৃত্বের বন্ধনে জবি প্রেস ক্লাবের ইফতার

রোজা মুসলমানদের জন্য অবশ্য পালনীয় বিধান। শেষ রাতে সেহরির পর দিনশেষে ইফতার পরম আনন্দের মুহূর্ত। তবে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের ইফতার আয়োজন অনেকটাই ভিন্ন। রমজানে প্রতিদিন পশ্চিম আকাশে সূর্য ঢলে পড়ার সাথে সাথেই শুরু হয় ইফতারির প্রস্তুতি। খোপে খোপে বসে ক্যাম্পাসে ইফতারের প্রস্তুতি নেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন চত্বরে জমে ওঠে ইফতারের আয়োজন। ক্যাম্পাসের সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে তাদের নিজস্ব কার্যালয়ে বা বিশ্ববিদ্যালয় মিলনায়তনে ইফতারের আয়োজন করা হয়। ব্যতিক্রম নয় প্রগ?তিশীলতা, অসাম্প্রদা?য়িকতা ও নির?পেক্ষতা এই মূল মন্ত্র নিয়ে এগিয়ে যাওয়া ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের সংগঠন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবও। প্রতিদিনই স্বল্প পরিসরে পেশাগত দায়িত্বের পাশাপাশি দিন শেষে সবার সাথে একত্রে ইফতারের আয়োজন করে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের সব সদস্যের সম্মিলিত অংশগ্রহণে সৌহার্দ্য সম্প্রতির মেলবন্ধনে প্রাণচাঞ্চল্য হয়ে ওঠে ইফতার আয়োজন। রোজা শুধু মুসলমানদের ইবাদাত হলেও এদের সঙ্গে যোগ দিয়ে থাকেন অন্য ধর্মাবলম্বীর সদস্যরাও। ইফতারের পর সারাদিনের ক্লান্তি আর অবসাদ কাটাতে আড্ডায় মুখর হয়ে ওঠে জবি প্রেস ক্লাবের কার্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাশ ভবনের ৪০৪ নং কক্ষে ছোট এই ইফতারের আসরে প্রতিদিন আনন্দমুখর হয়ে ওঠে। সচরাচর তাদের ইফতারির মধ্যে থাকে মুড়ি, আলুর চপ, পেঁয়াজু, ডিমের চপ, জুস, বেগুনি, জিলাপি, শরবত, খেজুর, বুন্দিয়া, নানা রকম মৌসুমি ফল-ফলাদি। এছাড়াও থাকে পুরান ঢাকার খাবারের কোনো বিখ্যাত পদ। এ যেন এক আত্মিক মিলনমেলা।

এছাড়াও পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তির সাংবাদিকদের সংগঠন 'জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাব'-এর উদ্যোগে ২৮ মার্চ সংগঠনটির কার্যালয়ে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লা?বের সভাপ?তি সুবর্ণ আসসাইফের সভা?পতিত্বে এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ। এ সময় জবি প্রেস ক্লাবের সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দসহ অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ইফতার মাহফিলে জ?বি প্রেস ক্লা?বের সভাপ?তি সুবর্ণ আসসাইফ বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সবার মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখার একটি অন্যতম উপায় ইফতার। আমরা প্রায় প্রতিদিনই স্বল্প পরিসরে হলেও সবাই একসাথে ইফতারের আয়োজন করার চেষ্টা করেছি। এছাড়াও প্রতি বছরের মতো এবারও আমাদের ইফতারে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ বলেন, জবি প্রেস ক্লাবের সদস্যরা প্রতিদিন একসাথে ইফতারের সবকিছুর আয়োজন করেন। এরপর সবাই মিলে একসঙ্গে ইফতার করেন। এতে সবার সাথে ভাতৃত্ব বজায় থাকে। ভবিষ্যতেও আমাদের এ ধরনের আয়োজন অব্যাহত থাকবে।

জবি প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি ও উপদেষ্টা ইমরান আহমেদ অপু বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য জবি প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকরা অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন। আমি আশা করব জবি প্রেস ক্লাবের সাথে যারা জড়িত তারা সঠিক দায়িত্ব পালন করবেন। মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও চেতনায় পরিচালিত হবে। আশা করি জবি প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকরা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য সুনাম বয়ে আনবেন। তারা সত্যটাকে সামনে নিয়ে আসবে।

সংগঠনটির প্রধান উপদেষ্টা কাজী মোবারক হোসেন বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের জায়গা খুবই কম। যে আদর্শ নিয়ে জবি প্রেস ক্লাব যাত্রা শুরু করেছে, সেই আদর্শ মনে প্রাণে ধারণ করতে হবে। এ সময় তিনি সংক্ষিপ্ত সময়ে সুন্দর এ আয়োজনের জন্য উপাচার্য জবি প্রেস ক্লাবের নেতৃবৃন্দ ও সদস্যদের ধন্যবাদ জানান এবং সবসময় পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

ইফতার মাহফিলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. জহির উদ্দিন আরিফ, মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. অশোক কুমার সাহা, সংগঠনের সাবেক সভাপতি জাহিদুল ইসলাম সাদেক ও মোস্তাকিম ফারুকী, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকরা, অতিথিরা, ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দ, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ক্রিয়াশীল সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ জবি প্রেস ক্লাবের সদস্যরা এবং বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে