রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
walton

ইচ্ছামতো মাল্টিভিটামিন খাওয়া কি ঠিক?

সুস্বাস্থ্য ডেস্ক
  ০৩ এপ্রিল ২০২৪, ০০:০০

অন্যান্য পুষ্টিগুণের মতোই ভিটামিন শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। বিভিন্ন খাবার যেমন মাছ, মাংস ও শাকসবজি থেকে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিন পাওয়া যায়। তবে সবরকম খাবার অনেকেই খান না বা খেতে চান না। এ কারণে অনেকেই ভিটামিনের ঘাটতি পূরণে আলাদা সাপিস্নমেন্ট খান। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া সাপিস্নমেন্ট কিনে খাওয়ার ফল ভয়ানক হতে পারে। ভারতীয় গণমাধ্যম আইএএনএসের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

ভিটামিন মূলত বয়স্ক ব্যক্তি ও গর্ভবতী নারীদের জন্য বেশি প্রয়োজন হয়। এর বাইরেও কোনো শারীরিক সমস্যা থাকলে ভিটামিন সাপিস্নমেন্ট খেতে হয়। তবে সেটি অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে খাওয়া উচিত?। তা না হলে হজমের সমস্যা, কিডনির সমস্যা এমনকি হার্টের সমস্যাও দেখা দিতে পারে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোনো চিকিৎসা বা চিকিৎসকের অনুমতি ছাড়াই ওষুধ খাওয়া শরীরের পক্ষে বিপজ্জনক হতে পারে। এতে বমি, মাথা ঘোরা, পেটে ব্যথা হতে পারে। এছাড়াও বেশ কিছু অঙ্গের ক্ষতিও করে প্রেসক্রিপশন ছাড়া ভিটামিন খাওয়ার প্রবণতায়।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, অনেকেই সুগার, উচ্চ রক্তচাপের সমস্যার কারণে চিকিৎসকের দেওয়া কিছু নির্দিষ্ট ওষুধ খান। এর পর নিজের ইচ্ছামতো ভিটামিন সাপিস্নমেন্ট খেলে তা সমস্যা তৈরি করতে পারে। কারণ কিছু ওষুধের সঙ্গে বিক্রিয়া করতে পারে? ভিটামিনগুলো। তার ফলে শরীরের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়বে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সবার মাল্টিভিটামিনের প্রয়োজন পড়ে না। সাধারণ ফল, শাকসবজি, ডাল, বীজজাতীয় খাবার থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন শরীর পায়। এর বাইরে আলাদা করে সাপিস্নমেন্ট খাওয়ার প্রয়োজন হয় না। তাদের ভাষায়, এই খাবারগুলো না খেয়ে শুধু ভিটামিন খাওয়া মোটেও ঠিক নয়। এতে শরীর অন্যান্য জরুরি পুষ্টিগুণ পায় না- যা মাল্টিভিটামিনে থাকে না। এছাড়া, বয়স, লিঙ্গ ও শারীরিক সমস্যা বুঝে ভিটামিন সাপিস্নমেন্ট খাওয়া উচিত। তা না হলে শারীরিক জটিলতা দেখা দিতে পারে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে