শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০
walton
ফ্রেন্ডস ফোরাম ও ফুলবাড়ী সাহিত্য পরিষদের যৌথ আয়োজন

সাহিত্য চর্চায় ১১ কবিকে সম্মাননা প্রদান

ইউনুছ আলী আনন্দ
  ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০০:০০
সম্মাননা হাতে কবিদের সাথে ফ্রেন্ডস ফোরাম ফুলবাড়ী

সাহিত্য চর্চায় বিশেষ অবদান রাখার জন্য কুড়িগ্রামের জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার স্থানীয় ১১ জন কবিকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। ফেব্রম্নয়ারি মাসের প্রথম দিন ফুলবাড়ী সাহিত্য পরিষদের ৯ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ফুলবাড়ী মডেল প্রেস ক্লাবের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ১১ কবিকে সম্মাননা স্মারক হিসেবে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। সম্মাননাপ্রাপ্ত কবিরা হলেন- কবি ও গল্পকার তমসুর হোসেন; কবি, ছড়াকার ও গীতিকার আজিজুল হাকিম মন্ডল; কবি ও লেখক শাহজাদা খন্দকার; কবি ও গল্পকার আব্দুল মান্নান আকন্দ; কবি, লেখক ও সাংবাদিক ইউনুছ আলী আনন্দ; কবি ও লেখক আব্দুল মান্নান; কবি ও লেখক অনিল চন্দ্র রায়; কবি ও লেখক নুর ইসলাম; কবি ও গীতিকার হাফিজ মুহাম্মদ; কবি ও লেখক নাজমুল হুদা ও কবি ও লেখক নাজমুল হাসান।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের কর্মসূচিতে ছিল ফুলবাড়ী সাহিত্য পরিষদের অস্থায়ী কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, স্বরচিত কবিতা পাঠের আসর ও কেক কাটা, আলোচনা সভা ও কবি সম্মাননা প্রদান। এসব কর্মসূচির আয়োজন করেন ফুলবাড়ী সাহিত্য পরিষদ ও যায়যায়দিন ফ্রেন্ডস ফোরাম ফুলবাড়ী উপজেলা শাখার নেতারা। অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন ফুলবাড়ী জছিমিঞা মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবেদ আলী খন্দকার।

সম্মাননাপূর্ব আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক আবেদ আলী খন্দকার, কবি ও গল্পকার তমসুর হোসেন, কবি, ছড়াকার ও গীতিকার আজিজুল হাকিম মন্ডল, কবি ও লেখক শাহজাদা খন্দকার, কবি ও গল্পকার সিরাজুল ইসলাম সীমান্ত, কুমারী অনামিকা রানী রায়সহ আরও অনেকে।

বক্তারা ফুলবাড়ী উপজেলার মতো স্থানে স্থানীয় কবি ও লেখকদের নিয়ে সাহিত্য চর্চার একটি পস্ন্যাটফর্ম ধরে রাখা ও তাদের সম্মানে সম্মাননা প্রদানের উদ্যোগকে অভিনন্দন জানান। এই উদ্যোগ সফলতার আলো দেখবেন এই প্রত্যাশা করেন।

উপদেষ্টা

ফ্রেন্ডস ফোরাম ফুলবাড়ী, কুড়িগ্রাম।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে