আদালতে গির্জার সদস্যপদ ত্যাগের আবেদন বাড়ছে জার্মানিতে

আদালতে গির্জার সদস্যপদ ত্যাগের আবেদন বাড়ছে জার্মানিতে

জার্মানিতে গত বছর ২ লাখ ২১ হাজার ৩৯০ জন চার্চের সদস্যপদ ত্যাগ করেছেন। তার আগের বছর এ সংখ্যা ছিল চার লাখ ৪১ হাজার। গত বছর সদস্যপদ ত্যাগের সংখ্যা কম হলেও তা আগের কয়েক বছরের তুলনায় অনেক বেশি।

সদস্যপদ ত্যাগের অপেক্ষায় আছেন আরও অনেকে। কোলন শহরে অপেক্ষমাণদের এ তালিকা বেশ লম্বা। আর পার্শ্ববর্তী বন শহরের আদালত সদস্যপদ ত্যাগের আবেদন সামাল দিতে অতিরিক্ত কর্মকর্তা নিয়োগ দিয়েছে।

চার্চের সদস্যপদ ত্যাগের বিষয়ে জার্মান সরকারের সুনির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে। চার্চ ত্যাগ করতে চাইলে অবশ্যই ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে তা জানাতে হবে কারণ চার্চের এমন সদস্যপদের সাথে ট্যাক্স লেনদেনের বিষয় যুক্ত। সব সদস্যকেই চার্চের জন্য আলাদা কর দিতে হয়। তবে সদস্যপদ ত্যাগ করলে ওই কর আর দিতে হয় না।

প্রতিবছর যখন সদস্যপদ ত্যাগের সংখ্যা প্রকাশ করা হয় তখন চার্চ কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করতে দেখা যায়। চলতি বছরের সদস্যপদ ত্যাগের বিষয়ে জানাতে গিয়ে জার্মান বিশপ কনফারেন্সের চেয়ারম্যান জর্জ বেটসিংগ বলেন, 'চার্চের প্রতি অনেকেই আস্থা হারিয়ে ফেলেছেন এবং বোঝাতে চাইছেন যে এখানে সংস্কার প্রয়োজন। চার্চগুলোকে সমালোচনা সহ্য করতে হবে।'

২০১৮ সালের এক অনুসন্ধানে চার্চে শিশুদের উপর যৌন নির্যাতনের ঘটনা বেরিয়ে এসেছে। গির্জার পাদ্রিরা যেভাবে এসব ঘটনাকে সামাল দিয়েছিল তা-ই মূলত ব্যাপক হারে সদস্যপদ ত্যাগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

অনেকের মতে, যে নীতিমালায় গির্জাগুলো চলছে তা অনেক সেকেলে। নৈতিক কর্তৃত্বের জায়গায় দাঁড়িয়েও তারা সেই মূল্যবোধ ধারণ করে না।

কোলনের একটি ক্যাথলিক চার্চের সদস্য আন্ড্রেয়াস নিজেন। আসছে বুধবার তিনি আদালতে একটি সাক্ষাৎকারের তারিখ ধার্য করেছেন। কারণ চার্চের সদস্যপদ ত্যাগ করতে চান তিনি। শিক্ষক আন্ড্রেয়াস তার স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে নিজের ইচ্ছায়ই চার্চের সদস্য হয়েছিলেন। নিজের ক্ষোভের কথা প্রকাশ করে আন্ড্রেয়াস বলেন, সদস্যপদ ত্যাগের যে সিদ্ধান্ত তিনি নিয়েছেন সে বিষয়ে তার সন্তুষ্টি আছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে