সংবাদ সংক্ষেপ

সংবাদ সংক্ষেপ

শেষ হলো ব্রিটেনের দীর্ঘতম বিয়ে বিচ্ছেদের মামলা

ম আইন ও বিচার ডেস্ক

পাঁচ বছরের দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর শেষ হয়েছে ব্রিটেনের ইতিহাসের দীর্ঘতম বিয়ে বিচ্ছেদের মামলা। শেষ পর্যন্ত ১৮ কোটি ৬০ লাখ ডলারে সাবেক স্ত্রীর সঙ্গে সমঝোতায় এসেছেন রাশিয়ান ধনকুবের ফারখাদ আখমাদেভ।

তেল ও গ্যাস ব্যবসায়ী ফারখাদ তার স্ত্রী তাতিয়ানা আখমেদোভার সঙ্গে বিয়ে বিচ্ছেদের মামলা লড়ছিলেন ২০১৬ সাল থেকে। আইনি ইতিহাসে একে বৃহত্তম বিয়ে বিচ্ছেদ-পরবর্তী দেনা-পাওনার ঘটনা হিসেবে উলেস্নখ করা হয়। দুজনে ১৯৮৯ সালে প্রথম দেখা করেন। চার বছরের প্রেমের পর লন্ডনে চলে যান। ২০১৪ সালে তারা ডিভোর্সের পথ বেছে নেন।

বিয়ে বিচ্ছেদের মামলায় ২০১৭ সালে লন্ডনের একটি আদালত আখমেদভকে ৫ হাজার ১৩ কোটি টাকা পরিশোধ করতে বলেন। এ ছাড়া বিশ্বব্যাপী তার লেনদেন স্থগিতের নির্দেশ দেন আদালত। কিন্তু আখমেদভ এই রায় চ্যালেঞ্জ করেন। তার দাবি ছিল, অযৌক্তিকভাবে তাকে এত অর্থ দিতে বলা হচ্ছে। শেষ পর্যন্ত শুক্রবার তিনি একটি সমঝোতায় আসতে পারলেন।

ফোর্বসের তথ্য অনুযায়ী, আখমেদভের সম্পদের পরিমাণ ১৪০ কোটি মার্কিন ডলার। আখমেদভের একজন মুখপাত্র বিবৃতিতে বলেছেন, তাতিয়ানা আখমেদভ নগদ অর্থ ও শিল্পকর্মের মালিকানা নিয়ে বিচ্ছেদ নিষ্পত্তির প্রস্তাব গ্রহণ করেছেন। এই অর্থমূল্য আদালত যা দিতে বলেছিলেন তার এক-তৃতীয়াংশের কাছাকাছি। এই সম্মতি দীর্ঘ দিনের তিক্ত আইনি লড়াইয়ের অবসান ঘটাল।

বিচ্ছেদ চুক্তির অন্যতম বাধা ছিল ১১৫ মিটার (৩৮০ ফুট) দৈর্ঘ্য, নয় ডেকের বিলাসবহুল সুপার ইয়ট লুনার মালিকানা ভাগাভাগি। এখন অবশ্য ইয়টটির মালিকানা ফারখাদ আখমেদভের কাছেই থাকছে। তাতিয়ানা পেতে যাচ্ছেন ১৮ কোটি ৬০ লাখ ডলার।

তাতিয়ানার মুখপাত্র এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

করোনার ভুয়া টিকা ও সার্টিফিকেট সরবরাহের অভিযোগে সৌদি আরবে ১২০ জন গ্রেপ্তার

ম আইন ও বিচার ডেস্ক

হজকে সামনে রেখে করোনার ভুয়া টিকা ও সার্টিফিকেট সরবরাহের অভিযোগে সৌদি আরবে অন্তত ১২০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৯ জন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা। সৌদি সরকারি বার্তা সংস্থা এসপিএ এ তথ্য জানিয়েছে।

করোনা মহামারির কারণে এবার অন্যান্য দেশ থেকে সৌদিতে হজে যাওয়ার অনুমতি নেই। সৌদি সরকার কেবল ৬০ হাজার স্থানীয় বাসিন্দাকে হজের অনুমতি দিয়েছে। তবে শর্ত হিসেবে করোনার টিকা গ্রহণ করতে হবে ও এই সংক্রান্ত সার্টিফিকেট জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

এসপিএ জানিয়েছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজেদের ভুয়া সেবার প্রচার করছিল প্রতারকরা। এর মধ্যে রয়েছে পজিটিভকে নেগেটিভ দেখানো, টিকা নেওয়ার স্ট্যাটাস পরিবর্তন এবং এক কিংবা দুই ডোজ নেওয়া হয়েছে কিনা সেই সার্টিফিকেট দেওয়া। প্রতারক চক্রের দালাল ২০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৯ জন সৌদি নাগরিক এবং ১২ জন বাসিন্দা।

কমিশন কাজে বাধা প্রদানকারীদের বিরুদ্ধে আদালতের স্বপ্রণোদিত মামলা

ম আইন ও বিচার ডেস্ক

আদালতের ডিক্রিকৃত জমি মাপজোখ করে সে মর্মে কমিশন রিপোর্ট প্রদানের কাজে বাধা প্রদান করায় সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়েরের নির্দেশ প্রদান করেছেন ঈশ্বরদী সিনিয়র সহকারী জজ আদালত। আদালতের পক্ষে বিচারক এস এম শরিয়ত উলস্নাহ্‌ এই মামলা দায়ের করেন। আদালতসূত্রে জানা যায়, ঈশ্বরদী আদালতে একট বাটোয়ারা মামলা করে বাদী ডিক্রিপ্রাপ্ত হন। ডিক্রির নির্দেশনা মোতাবেক সরেজমিনে মাপজোখ করে সাহাম বণ্টন এবং রিপোর্ট দাখিলের জন্য আদালত একজন অ্যাডভোকেট কমিশনার নিযুক্ত করেন। অ্যাডভোকেট কমিশনার আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী মাপজোখ এবং প্রতিবেদন প্রস্তুতের জন্য নালিশি জমিতে গেলে বিবাদী পক্ষের লোকজন তাকে কাজে বাধা এবং হুমকি প্রদান করেন। বিধায় অ্যাডভোকেট কমিশনার আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ সম্পাদন করতে পারেননি। কমিশনার উক্ত কারণ উলেস্নখ করে আদালতে একটি প্রতিবেদন দাখিল করেন। একই সঙ্গে আদালতের কাজে বাধা প্রদানকারীদের নাম, ঠিকানা উলেস্নখ করে তাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রার্থনা করেন। আদালত অ্যাডভোকেট কমিশনারের প্রতিবেদন এবং অভিযোগটি আমলে নিয়ে আদালতের কাজে বাধা প্রদানকারীদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি আইন অনুযায়ী উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট আমলি আদালতে মামলা দায়েরের নির্দেশ প্রদান করেন। সে অনুযায়ী আদালতের পক্ষ হতে পাবনার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি ফৌজদারি

মামলা দায়ের করা হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে