বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

পোষ্য কুকুর কামড়ানোয় মালিককে তিন মাসের কারাদন্ডের নির্দেশ মুম্বাইয়ের আদালতের

আইন ও বিচার ডেস্ক
  ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০০:০০

১৩ বছর আগে ৭২ বছর বয়সি বৃদ্ধকে কামড়েছিল এক ব্যবসায়ীর রটওয়েলার প্রজাতির কুকুর। সেই মামলায় গত শনিবার ব্যবসায়ীকে ৩ মাসের কারাদন্ডের নির্দেশ দিলেন মুম্বাইয়ের আদালত। সোমবার এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে এসেছে। পুলিশ সূত্রে খবর, ২০১০ সালের ৩০ মে সাইরাস পার্সি হরমুসজি এবং তার এক আত্মীয় কেরসি ইরানি রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে কথা বলছিলেন। দীর্ঘ দিনের সম্পত্তি বিবাদ নিয়ে তারা আলোচনা করছিলেন। এ সময় সম্পত্তি নিয়ে দু'জনের মধ্যে বচসা বাধে। পাশেই রাখা ছিল হরমুসজির গাড়ি। যার মধ্যে ছিল ল্যাব্রাডর এবং রটওয়েলার প্রজাতির ২টি কুকুর।

কুকুরদ্বয় চিৎকার করায় গাড়ি থেকে তাদের বার করে হরমুসজি। অভিযোগ, এর পরই রটওয়েলার প্রজাতির কুকুরটি ৭২ বছর বয়সি কেরসির উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তার হাত এবং পায়ে ৩টি কামড় দেয় কুকুরটি। এর জেরে জখম হন ওই বৃদ্ধ। তর্কাতর্কির সময় কুকুরটিকে ছেড়ে দেওয়া নিয়ে হরমুসজির বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেন ওই বৃদ্ধ। সেই মামলাতেই শনিবার সাজা ঘোষণা করেছেন আদালত।

আদালতের পর্যবেক্ষণ, কুকুরটির চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে হরমুসজি অবগত ছিলেন। তা সত্ত্বেও তিনি কুকুরটিকে গাড়ি থেকে/বের করেছিলেন। কুকুরটিকে ছাড়লে কারও যাতে ক্ষতি না হয়, সে ব্যাপারে দায়িত্বশীল হওয়া উচিত ছিল তার। ফলে এ ক্ষেত্রে হরমুসজির গাফিলতি ছিল। কুকুরকে বাইরে নিয়ে গেলে মালিকের দায়িত্বশীল হওয়া যে জরুরি, সে কথাই বলেছেন আদালত।

বিগত কয়েক মাসে ভারতে কুকুরের আক্রমণের একাধিক ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। নয়ডার একটি আবাসনে ১ বছরের শিশুকে কামড়ে দিয়েছিল কুকুর। তার জেরে মৃতু্য হয়েছিল শিশুটির। গুরুগ্রামেও কুকুরের আক্রমণের ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদে লিফ্‌েটর মধ্যে শিশুকে কামড়েছিল এক পোষ্য কুকুর। যা নিয়ে হইচই পড়ে গিয়েছিল। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটেছিল নয়ডার সেক্টর ৭৫ এলাকায়। গত মাসে গুজরাটের সুরতে এক বালিকার মুখে কামড়ে গালের মাংস ছিঁড়ে নিয়েছিল একটি কুকুর। এই আবহে কুকুরের কামড়ের কারণে মালিককে সাজা দেওয়ার নির্দেশ উলেস্নখযোগ্য।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে