বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

দুর্ঘটনায় নিঃস্ব কিশোরকে দেড় কোটি রুপির বেশি ক্ষতিপূরণের নির্দেশ ভারতীয় আদালতের

আইন ও বিচার ডেস্ক
  ১৪ নভেম্বর ২০২৩, ০০:০০

দুর্ঘটনায় বাবা, মা, দিদিকে একসঙ্গে হারিয়েছেন এক কিশোর। তিন বছর আগের সেই দুর্ঘটনার জেরে এত দিনে ক্ষতিপূরণ পেতে চলেছে সে। আদালত তাকে দেড় কোটির বেশি টাকা ক্ষতিপূরণ হিসেবে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বিমা সংস্থাকে।

তিন বছর আগে ভোপাল-ইনদওর জাতীয় সড়কের উপর দুর্ঘটনায় তিনজনের মৃতু্য হয়। নিহতরা হলেন- মণীশ কপূর, তার স্ত্রী ভাব্যা এবং কন্যা লভলীন। বেঁচে গিয়েছিল কেবল তাদের পুত্র এবং আর এক কন্যা। সেই কন্যা বেঁচে গেলেও সুস্থ হতে পারেনি। এখনো সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এই পরিস্থিতিতে পরিবারের আইনজীবী মণীশ দ্বিবেদী ক্ষতিপূরণের আর্জি জানিয়ে আদালতে মামলা করেন।

সব পক্ষের বক্তব্য শুনে ভোপালের আদালত ১৪ বছরের ওই কিশোরকে ১,৬৬,৫৮,৫০০ রুপি ক্ষতিপূরণ হিসেবে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। ভোপাল-ইনদওর জাতীয় সড়কের মাঝখানে দাঁড় করানো একটি ট্যাঙ্কারে ধাক্কা খেয়েছিল মণীশদের গাড়ি। ওই ট্যাঙ্কারের মালিক এবং তার সঙ্গে যুক্ত বিমা সংস্থা এই ক্ষতিপূরণের অর্থ দেবে। আদালতের পর্যবেক্ষণ, মণীশ সমস্ত নিয়ম মেনেই সে দিন গাড়ি চালাচ্ছিলেন। ট্যাঙ্কারটি ভুল জায়গায় দাঁড় করানো হয়েছিল। সেই কারণেই এই দুর্ঘটনা। ট্যাঙ্কারের সঙ্গে বিমা সংস্থা চুক্তিবদ্ধ। তাই ক্ষতিপূরণের টাকা তাদেরই দিতে হবে। বিচারক জানিয়েছেন, বিমা সংস্থা এবং ট্যাঙ্কারের মালিক একত্রে অথবা আলাদাভাবে টাকা দিতে পারবেন।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে