বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

মিয়ানমারের আদালতে রোহিঙ্গাদের কান্না

মিয়ানমারের আদালতে রোহিঙ্গাদের কান্না

উপযুক্ত কাগজ ছাড়া ভ্রমণ করায় গ্রেপ্তার হওয়া শিশুসহ ৯৩ জন রোহিঙ্গাকে গত শুক্রবার হাজির করা হয় মিয়ানমারের একটি আদালতে। দেশটির পশ্চিমে অবস্থিত রাখাইন থেকে ইরাওয়াদি পালানোর সময় ২৮ নভেম্বর গ্রেপ্তার করা হয় তাদের।

৯৩ জনের এ গ্রম্নপে ২৩ জন শিশুও রয়েছে। পাথেইন এলাকার একটি আদালতে তাদের হাজির করা হয়। এ সময় আদালতে সাক্ষ্য দেন অভিযোগকারী অভিবাসন কর্মকর্তা। অভিযোগ প্রমাণ হলে আটকদের দুই বছর পর্যন্ত কারাদন্ড হতে পারে।

আদালতে রোহিঙ্গাদের আইনজীবী থাজিন মিইন্ট মিয়াত উইন বলেন, তারা জানিয়েছেন, ওখানে (রাখাইন প্রদেশ) পরিস্থিতি অনেক খারাপ বলে তারা পালাতে চেয়েছিল। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যেই মূলত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বাস।

সেনাবাহিনীর অভিযানের পর ২০১৭ সালে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশে পালিয়ে যায়। গণহত্যার অভিপ্রায়ে এই অভিযানে হত্যা ও ধর্ষণ চালানো হয়েছিল বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের তদন্ত দল।

রাখাইনে এখনো ছয় লাখের কাছাকাছি রোহিঙ্গা বাস করেন। স্বাস্থ্যসেবা ও শিক্ষাসহ মৌলিক অধিকারগুলোর কোনোটিই ঠিকমতো পান না তারা। জাতিসংঘের প্রতিবেদনে এ অবস্থাকে শোচনীয় বলে উলেস্নখ করা হয়েছে।

আদালতে পরবর্তী শুনানির সময় ধার্য করা হয়েছে ৩ জানুয়ারি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2020

Design and developed by Orangebd


উপরে