মুজিব পদাবলি

মুজিব পদাবলি

কবি আলমগীর খোরশেদের 'মুজিব পদাবলি' কবিতার বইটি বের হয়েছিল ফেব্রম্নয়ারি ২০২০ সালে। মার্চ, ২০২১ সালে সংশোধিত ও বর্ধিত কলেবরে বইটির দ্বিতীয়বার প্রকাশ হয়েছে। প্রসঙ্গত বলা দরকার, কবি এই কবিতার বইটি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম থেকে মৃতু্য পর্যন্ত, জীবন কাহিনিকে কবিতায় প্রকাশ করতে চেয়েছেন। পদাবলিকে আশ্রয় করে, সহজ ভাষার বুননে তিনি বঙ্গবন্ধুর জীবনকে আঁকতে চেয়েছেন- যেখানে প্রকাশ পেয়েছে বঙ্গবন্ধুর প্রতি কবির গভীর শ্রদ্ধা ও মমত্ববোধ। বঙ্গবন্ধুর জীবন জন্ম, ছেলেবেলা. শিক্ষা, রাজনৈতিক জীবন, মহানুভবতাসহ বিভিন্ন প্রসঙ্গ উঠে এসেছে কবির পদাবলিতে। বইটি পাঠে এটা স্পষ্ট হয় যে, কবি কতটা দরদ দিয়ে কাব্যিক আবহে অক্ষর গেঁথেছেন, যেখানে বঙ্গবন্ধুর জীবনকে তিনি স্পষ্ট করতে চেয়েছেন পাঠকের সামনে।

প্রথম কবিতা, 'জন্ম ও ছেলেবেলা'তে কবি তুলে ধরেন, 'মধুমতী নদীর তীরে, টুঙ্গিপাড়া গ্রাম/ শিল্পীর তুলিতে আঁকা যেন ছবি,/ শেখ পরিবারে শত বছর আগে/ জন্ম নেয় নক্ষত্র শিশু, উজ্জ্বল রবি।' এভাবে প্রতিটা কবিতাতে বঙ্গবন্ধুর জীবনের নানা ঘটনা, পরিক্রম, বেড়ে ওঠা কবিতায় সাবলীলভাবে উপস্থাপন করতে চেয়েছেন কবি। তার হৃদয়ে বঙ্গবন্ধুকে ধারণ করে যে পদাবলি তিনি পৃষ্ঠাতে লিপিবদ্ধ করেছেন তা পড়তে পড়তে যেন বঙ্গবন্ধুর জীবন দৃশ্যমান হয়ে ওঠে পাঠকের হৃদয়ে। শেষ কবিতাটি 'মুজিব পদাবলি' শেষ করেছেন এভাবে - 'খুনিরা ভেবেছিল, হত্যা করলেই মুজিব শেষ/ মৃত মুজিব, জীবিত মুজিবের চেয়ে শক্তিশালী,/ বুঝেনি ওরা, টুঙ্গিপাড়া কবর থেকে/ ছড়িয়ে গেছে বিশ্বময় 'মুজিব পদাবলি।'

বঙ্গবন্ধুর জীবন, কর্মের বিশালতাকে আত্মস্থ করে কবি মুজিব পদাবলি রচনা করেছে। কবিতার পরতে পরতে উঠে এসেছে, বঙ্গবন্ধুর জীবন থেকে মৃতু্য পর্যন্ত নানাবিধ বিষয়। সোহরাওয়ার্দীর সান্নিধ্যে খোকা, খোকার বিয়ে, রাজনীতিতে খোকা, দুর্ভিক্ষে খোকা, ভাষা আন্দোলনে খোকা, ৭ মার্চের কবি, কারাগারে বঙ্গবন্ধু, পয়েট অব পলিটিক্স, মুক্তিযুদ্ধ, স্বদেশ প্রত্যাবর্তন, মুজিব হত্যাকান্ডসহ বিভিন্ন শিরোনামের কবিতাগুলো 'মুজিব পদাবলি' বইয়ে স্থান পেয়েছে। সামগ্রিকভাবে দেখা যায়, কবি আলমগীর খোরশেদ-এর 'মুজিব পদাবলি' প্রকৃত অর্থে কবিতার ঢঙে বঙ্গবন্ধুর সংক্ষিপ্ত জীবনপুঞ্জির আলোকপাত। বঙ্গবন্ধুর অমর কীর্তি, খ্যাতি, উদারতা, মানবতা, মহানুভবতাকে পাঠকের সামনে তুলে ধরতে বিভিন্ন উপমা ব্যবহার করেছেন কবি আন্তরিকভাবে। বঙ্গবন্ধুর জীবন, বেড়ে ওঠা, দেশের প্রতি তার যে মমত্ববোধ, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বসহ তার পুরো জীবনকেই যেন সংক্ষিপ্তভাবে কবিতার ঢঙে আঁকতে চেয়েছেন কবি আলমগীর খোরশেদ। সহজ-সরল ভাষার বুননে তিনি যেন পাঠকের হৃদয়ে গাঁথতে চেয়েছেন বঙ্গবন্ধুর জীবনের ঘটনা-পরিক্রমা। মুজিব জন্মশতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর কালে 'মুজিব পদাবলি' বইটি পাঠকপ্রিয় হোক, বইটির সফলতা কামনা করি।

আহমেদ নিলয়

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে