logo
রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ৫ আশ্বিন ১৪২৭

  মাসুদুর রহমান   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০  

চরিত্র সংকটে প্রিয়দর্শিনী

চরিত্র সংকটে প্রিয়দর্শিনী
মৌসুমী
দেশীয় চলচ্চিত্রের এক সফল অভিনেত্রীর নাম মৌসুমী। দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে যিনি রূপালি পর্দায় মুগ্ধতা ছড়িয়ে যাচ্ছেন। সময়ের পালা বদলে অনেক কিছুর পরিবর্তন হলেও সৌন্দর্যে ভাটা পড়েনি মৌসুমীর। তার এতটুকু চাহিদা কমেনি। এখনো আলোকিত করে রেখেছেন নিজেকে। তাই দর্শকরা আজো খুঁজে বেড়ান তাদের প্রিয়দর্শিনী মৌসুমীকে। অমর নায়ক সালমান শাহ থেকে শুরু করে সময়ের আলোচিত প্রায় সব নায়কের বিপরীতেই দেখা গেছে প্রিয়দর্শিনী এ নায়িকাকে। জুনিয়র নায়কের নায়িকা হয়েও অভিনয় করেছেন মৌসুমী। তার অভিনীত প্রায় ছবিই ব্যবসা সফল। কিন্তু ক্যারিয়ারের এ সময়ে এসে চরিত্র ও নায়কের সংকটে পড়েছেন এ অভিনেত্রী। একদিকে যেনতেন চরিত্রে অভিনয় করতে চাইছেন না, অপর দিকে তার বিপরীতে মানানসই কোনো নায়ক পাওয়া যাচ্ছে না।

এই সময়ের শীর্ষ নায়ক শাকিব খানের বিপরীতে মৌসুমীকে একেবারেই মানায় না। যদিও তাদের 'দেবদাস' ছবিতে একসঙ্গে দেখা গেছে অনেক আগে। তবে এখন মৌসুমী ও শাকিব খান দুজনের কেউই জুটি হয়ে অভিনয় করতে আগ্রহী নন। নির্মাতাদেরও ইচ্ছে নেই। রিয়াজের সঙ্গে বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেন মৌসুমী। কিন্তু রিয়াজ এখন চলচ্চিত্রে অনিয়মিত। ফেরদৌসের সঙ্গে মৌসুমীর অভিনীত ছবিগুলো সাড়া পেলেও ফেরদৌসের চাহিদা এখন নির্মাতাদের কাছে নেই বললেই চলে। মৌসুমী ডিপজলের মতো নায়কের বিপরীতেও অভিনয় করেছেন। গল্পের প্রয়োজনে জুটি বাঁধেন আদনান, সাকিল খান, মোশাররফ করিম ও নিলয়ের সঙ্গে।

বাপ্পী চৌধুরী, সাইমন সাদিক, আরিফিন শুভ, নিরব-ইমন ও সিয়াম আহমেদের সঙ্গে একেবারেই বেমানান এই অভিনেত্রী। নায়িকা চরিত্রে মৌসুমী অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি 'রাত্রির যাত্রী'। হাবিবুল ইসলাম হাবিব পরিচালিত এই ছবিটি মুক্তি পায় গত বছরের ফেব্রম্নয়ারিতে। যদিও এ ছবির কাজ শুরু হয়েছিল ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে। এরপর আর কোনো ছবিতে মৌসুমীকে মূল নায়িকা চরিত্রে দেখা যায়নি। এ ছবিতে মৌসুমীর নায়ক ছিলেন ছোটপর্দার অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন। নতুন পুরানো মিলে অনেকের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করলেও নায়ক মান্নার সঙ্গে মৌসুমীর ছবিগুলো দারুণ সাড়া ফেলে। সালমান শাহ ও মান্নার বিপরীতে মৌসুমীর ছবিগুলো সবচেয়ে বেশি ব্যবসা সফল হয়েছে। কিন্তু দুর্ভাগ্য দুজনেই অকালে চলে যান পরপারে। সালমান শাহর মৃতু্যর পর মৌসুমী নিজেকে সামলে নিলেও হিমশিম খেতে হয় নায়ক মান্নার মৃতু্যর পর। মান্নার মৃতু্যর পর পরই মূলত মৌসুমী জুটি সংকটে পড়েন। নায়ক মান্নার সঙ্গে গড়ে তোলা জুটি প্রসঙ্গে মৌসুমী বলেন, 'মান্নার সঙ্গে অভিনয় করা আমার প্রথম ছবি 'লুটতরাজ'। এটি মান্না ভাইয়ের প্রথম প্রযোজিত ছবি। তারই আগ্রহে ছবিটিতে কাজ করি। অনেকেই তখন বলেছিলেন তার সঙ্গে আমাকে মানাবে না। তিনি অ্যাকশন হিরো। আমি রোমান্টিক ছবি বেশি করেছি। অথচ দর্শক আমাদের জুটিকে দারুণভাবে পছন্দ করে ফেলল। তারপর কত ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছি তার ইয়ত্তা নেই।'

\হমৌসুমী আরো বলেন, 'মান্না ভাইয়ের মৃতু্যর কয়েকদিন আগে চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। অনেকটা একঘেয়েমি থেকেই সিদ্ধান্তটা নিতে বাধ্য হই। এ সময় পরিচালক চাষী নজরুল ইসলাম তার 'দুই পুরুষ' ছবির প্রস্তাব নিয়ে আমার কাছে আসেন। আমি তাকে সবিনয়ে ফিরিয়ে দেই। মান্না ভাই জানতে পারেন ঘটনাটা। ফ্যামিলি নিয়ে চলে আসেন আমার বাসায়। অবসর পেলে এটা তিনি প্রায়ই করতেন। আমাদের দুই পরিবারের মধ্যেও বেশ ঘনিষ্ঠতা ছিল। মান্না ভাই বাসায় এসে আমাকে বোঝাতে শুরু করলেন। তার জোড়াজুড়িতে চাষী ভাইয়ের ছবিতে কাজ করতে রাজি হই। তারই কয়েকদিন পর ওপারের ডাকে চলে গেলেন মান্না ভাই। অভিনয়টা এখনো করছি, ছাড়িনি। যার জন্য থেকে যাওয়া, তিনিই চলে গেলেন। আমি যে দুজন নায়কের সঙ্গে অভিনয় করে সবচেয়ে সাফল্য পেয়েছি, তারা হলেন- সালমান শাহ ও মান্না। দুর্ভাগ্যজনকভাবে তারা দুজনই অকালে পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন।'

এদিকে নির্মাতাদের ভাষ্য, চলমান চলচ্চিত্রের পরিবেশে মৌসুমীর বিপরীতে অভিনয়ের জন্য মানানসই নায়ক ঢালিউডে নেই। কয়েকজন পরিচালক বলেন, মৌসুমীকে নিয়ে ছবি করলে লাভবান হওয়া যেত, কিন্তু তার জন্য নায়ক নেই। তাই একক নায়িকা নিয়ে ছবি তো করা যায় না!

নায়কের অভাবে কিংবা চরিত্র সংকটে ভুগলেও মৌসুমী প্রচুর ছবির প্রস্তাব পান। তবে ভিন্ন চরিত্রের জন্য। কিন্তু নায়িকা চরিত্রের জন্য এখনো অনেক সুযোগ রয়েছে বলে মনে করেন চলচ্চিত্রের এই নায়িকা। এখনই মা, ভাবি, বড় বোনের চরিত্রে নিজেকে দেখতে চান না মৌসুমী।

প্রসঙ্গে মৌসুমীর মন্তব্য, আমার আগের প্রজন্মের অভিনেত্রী শাবানা-ববিতা-কবরীকে অনেক বয়স পর্যন্ত আমি নায়িকা হিসেবে অভিনয় করতে দেখেছি। আমার মনে হয়, এখনো আমি এতটা বুড়িয়ে যায়নি যে, মায়ের চরিত্রে আমাকে অভিনয় করতে হবে। খুব বেশি হলে নায়কের ভাইয়ের স্ত্রী, অর্থাৎ ভাবী চরিত্রে অভিনয় করা যেতে পারে। মা-খালা-চাচির ভূমিকায় আমি অভিনয় করতে মোটেও রাজি নই।

অনেকেই মনে করেন, এখন পর্যন্ত মৌসুমীর বিকল্প হিসেবে ঢালিউডে কাউকে পাওয়া যায়নি। তাই এখনো মৌসুমী শুটিং নিয়ে থাকেন ব্যস্ত। 'মধুর ক্যান্টিন'সহ বেশ কয়েকটি ছবির কাজ মৌসুমীর হাতে রয়েছে। করোনা পরিস্থিতি আরও স্বাভাবিক হলেই শুরু হবে ছবিগুলোর শুটিং।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে