শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

সংবাদ সংক্ষেপ

সংবাদ সংক্ষেপ

গীতাঞ্জলি সম্মাননা পদক-২০২০ পাচ্ছেন তিন গুণি

তারার মেলা রিপোর্ট

ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক চর্চাকেন্দ্র গীতাঞ্জলি ললিতকলা একাডেমি প্রতিষ্ঠার ১৬ বছর পূর্তি উপলক্ষে আগামী ৬ নভেম্বর বিকাল ৫টায় উত্তরায় স্কিটি অডিটোরিয়ামে দেশের শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য বরেণ্য অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূর (এমপি), বরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসিরউদ্দীন ইউসুফ ও বরেণ্য কবি কামাল চৌধুরীকে গীতাঞ্জলি সম্মাননা পদক-২০২০ প্রদান করা হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। দেশবরেণ্য শিক্ষাবিদ গীতাঞ্জলির উপদেষ্টা রফিকুল ইসলাম অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গীতাঞ্জলির সদস্যদ্বয় শহিদুল আলম ও নাজমুন্নাহার। অনুষ্ঠানটি সার্বিক পরিচালনায় থাকবেন গীতাঞ্জলি ললিতকলা একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মাহবুব আমিন মিঠু। পদক প্রদানের পর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

অবস্থার আরও অবনতি সৌমিত্রের

তারার মেলা রিপোর্ট

শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে পশ্চিম বাংলার অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের। স্টেরয়েডের ডোজ কমাতেই শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে বলে জানা গেছে। অথচ মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত খবর আসছিল, আগের থেকে ভালো রয়েছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। আচ্ছন্ন ভাব থাকলেও চোখ খুলছেন তিনি। সেইসঙ্গে ডাকলে সাড়াও দিচ্ছেন বর্ষীয়ান এ অভিনেতা। এমনকি হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, শরীরের অন্য সমস্যাও অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে সত্যজিতের 'অপু'র।

তার স্বাস্থ্যের উন্নতির জন্য বিগত কয়েক দিন ধরেই দিনের বেলায় রবীন্দ্রসঙ্গীত শোনানো হচ্ছিল 'ফেলুদা'কে। বিগত কয়েকদিন ধরে তার অন্যথা হয়নি। হাসপাতাল সূত্রে খবর, আচ্ছন্ন অবস্থাতেও রবীন্দ্রসঙ্গীত মন দিয়েই শুনছেন সৌমিত্র।

ন্যাজাল ক্যানুলা মারফত অক্সিজেন দিয়েই তার রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা ১০০ শতাংশ ছুঁই ছুঁই হয়েছিল। প্রতিমিনিটে ৪-৬ লিটার অক্সিজেন দেওয়াও হচ্ছিল। প্রতি দু'ঘণ্টা অন্তর রাইলস টিউব দিয়ে খাবার খাওয়ানো হচ্ছে সত্যজিতের অপুকে।

গত ৬ অক্টোবর করোনায় আক্রান্ত হয়ে ভারতের মিন্টো পার্ক লাগোয়া বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন সৌমিত্র। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ইন্টেন্সিভ কেয়ারে স্থানান্তর করা হয়। তবে, করোনা নেগেটিভ হতেও অসুবিধা হয়নি তার। কিন্তু সংক্রমণের জেরে মস্তিষ্কে কিছু সমস্যা দেখা দেয়। ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ অরিন্দম করের নেতৃত্বাধীন ১৬ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড তার চিকিৎসা করছে। তার শারীরিক অবস্থার ধারাবাহিক উন্নতিতে আশাবাদী হয়ে উঠছিলেন চিকিৎসকরা। কিন্তু এদিন থেকে ফের অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিন্তা বাড়ল।

৫০০ পর্বে 'মান অভিমান'

তারার মেলা রিপোর্ট

দীপ্ত টিভিতে বুধবার, সন্ধ্যা ৭টায় প্রচারিত হয় ধারাবাহিক নাটক 'মান অভিমান'র ৫০০তম পর্ব। বিখ্যাত লেখক জেন অস্টেনের জনপ্রিয় উপন্যাস 'প্রাইড অ্যান্ড প্রেজুডিস'-এর অনুপ্রেরণায় মান অভিমান নাটকটির চিত্রনাট্য করেছেন নাসিমুল হাসান এবং সংলাপ লিখেছেন সরোয়ার সৈকত। আশিস রায়ের পরিচালনায় নাটকটিতে অভিনয় করেছেন রোজী সিদ্দিকী, তোফা হাসান, সমাপ্তি মাশুক, ইফফাত আরা তিথি, শিবলী নওমান, সানজিদা ইপসা, ইমিলা হকসহ আরও অনেকে। 'মান অভিমান' নাটকের লাইন প্রোডিউসার জাহিদুল ইসলাম প্রত্যাশা করেন আগামী দিনে ধারাবাহিকটি আরও নতুন চমক নিয়ে দর্শকদের সামনে আসবে। ২০১৯ সালের ৫ জানুয়ারি নাটকটি দীপ্ত টিভিতে প্রথম প্রচার শুরু হয়। নাটকটি শুরু থেকেই নাটকপ্রেমিদের মাঝে তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করে এবং এখনও পর্যন্ত জনপ্রিয়তা ধরে রেখেছে। নাটকটি দীপ্ত টিভিতে প্রচারিত হচ্ছে শনি থেকে শুক্রবার প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টায়।

দুবাইয়ে 'হট' অবতারে সুহানা খান

তারার মেলা ডেস্ক

চলছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)-২০২০। যেখানে খেলছে শাহরুখ খানের দল কলকাতা নাইট রাইডার্স। নিজের দলের খেলা সরাসরি গ্যালারিতে বসে উপভোগ করতে পরিবারের সব সদস্যকে নিয়ে দুবাই গিয়েছেন কিং খান। এরই মধ্যে বেশ কয়েকবার দুবাইয়ের ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে দেখা গেছে শাহরুখ খান ও তার পরিবারের সদস্যদের। বাবার সঙ্গে মাঠে উপস্থিত থেকে দলকে উৎসাহ দিতে দেখা গিয়েছিল বলিউডের এই অভিনেতার মেয়ে সুহানা খান ও ছেলে আরিয়ান খানকেও। বাবার সঙ্গে ম্যাচ দেখার পাশাপাশি দুবাইয়ে চুটিয়ে ছুটি উপভোগ করছেন সুহানা। তাও আবার 'হট' অবতারে। সম্প্রতি দুবাইয়ের একটি সমুদ্রের সামনে দাঁড়িয়ে পোজ দিতে দেখা গেছে সুহানা খানকে। যেখানে বেশ আবেদনময়ী হিসেবে ধরা দিয়েছেন তিনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2020

Design and developed by Orangebd


উপরে