বহুমুখী জাহিদ হাসান

নাটক ও চলচ্চিত্রের আলোচিত ও আলোকিত এক নাম জাহিদ হাসান। বহুরূপী সফল এক অভিনেতা; যিনি দর্শকপ্রিয়তায় অন্যতম সমুজ্বল এক তারকা। বিজ্ঞাপন চিত্রের মডেল হিসেবেও তার জুড়ি নেই। পাশাপাশি ক্যামেরার সামনেও সমানতালে সময় দিচ্ছেন নন্দিত এ তারকা। একাধিকবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া জাহিদ হাসান মুগ্ধতা ছড়িয়ে প্রতিনিয়ত নিজের দক্ষতার প্রমাণ দিয়ে যাচ্ছেন সবখানে। গুণী এই অভিনেতাকে নিয়ে প্রতিবেদনটি সাজিয়েছেন
বহুমুখী জাহিদ হাসান

টিভি নাটকে বরাবরই জাহিদ হাসানের চাহিদা অন্যরকম। একটি শেষ করতে না করতেই প্রস্তাব আসে নতুন আরেকটি নাটকের। নির্মাতারা তার শিডিউলের অপেক্ষায় থাকেন। তবে এই অভিনেতা সব গল্পের নাটকেই নিজেকে উপস্থাপন করেন না। পছন্দসই গল্প ও চরিত্র না হলে অভিনয় করেন না। এরই ধারাবাহিকতায় জাহিদ হাসান অভিনয় করছেন নতুন একটি ধারাবাহিকে। নাম 'অদল বদল'। শফিকুর রহমান শান্তনুর রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন সোহেল রানা ইমন। মনস্তাত্ত্বিক থ্রিলারধর্মী গল্প নিয়ে নাটকটি তৈরি হচ্ছে। জাহিদ হাসান বলেন, 'এই নাটকের প্রথম লটের শুটিং শেষ করেছি। এই সময়ে এসে আমি চেষ্টা করছি গতানুগতিক ধারার বাইরে গিয়ে ভিন্ন কিছু করার। যা এই নাটকের গল্পে ও চরিত্রের মধ্যে আছে। নিজের গেটাপেও পরিবর্তন এনেছি। তাই এর প্রতিটি পর্বই উপভোগ্য হবে বলে আমার বিশ্বাস।' জাহিদ হাসানের নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা পুষ্পিতা ভিজু্যয়াল থেকে নাটকটি নির্মাণ করা হচ্ছে। এর আগেও বেশ কিছু নাটক প্রযোজনা করে প্রশংসিত হয়েছেন এই অভিনেতা। তিনি বলেন, 'পুষ্পিতা ভিজু্যয়ালের ব্যানারে আলোচিত ধারাবাহিক নাটক 'লাল নীল বেগুনী'র কথা এখনো দর্শকদের মনে আছে। কাজেই ভালো কাজ করার ব্যাপারে আমি দর্শকদের কাছে দায়বদ্ধ।' খুব শিগগির 'অদল বদল' নাটকটি কোনো একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার শুরু হবে। এ নাটক ছাড়াও জাহিদ হাসান অভিনয় করছেন সাইদুল ইসলাম রাসেল ও আবু হায়াত মাহমুদের পরিচালনায় 'একশতে একশ' নামের একটি ধারাবাহিক নাটকে। নাটকের বাইরে জাহিদ হাসান এখন ওয়েব পস্ন্যাটফর্ম ও চলচ্চিত্রে নিয়মিত অভিনয় করে যাচ্ছেন। ভিডিও স্ট্রিমিং পস্ন্যাটফর্ম 'চরকি' প্রযোজিত নতুন একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন জাহিদ হাসান। এখানে তিনি নতুন চমক নিয়ে হাজির হচ্ছেন দর্শকের মাঝে। পিপলু আর খান পরিচালিত চলচ্চিত্রটির নাম 'এই মুহূর্তে'।

ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে জাহিদ হাসান নায়ক চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসা পান। সেই সময়ের চাহিদাসম্পন্ন টিভি অভিনেত্রীদের বিপরীতে নিয়মিতই দেখা গেছে তাকে। এরপর বহুরূপী চরিত্রে নিজেকে নিঁখুতভাবে উপস্থাপন করে সবার নজর কাড়েন। ধীর ধীরে হয়ে ওঠেন বৈচিত্র্যময় চরিত্রের অভিনয়শিল্পী। প্রতিনিয়তই নিজেকে মেলে ধরেন ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রে। দর্শকরাও তার অভিনয় দেখেন আগ্রহ নিয়ে। এ প্রসঙ্গে জাহিদ হাসান বলেন, 'এটা আসলে বিধাতার কৃপা। আর আমি চরিত্র বিশ্লেষণ করি। সবাই যেভাবে লিখে, আর আমার নিজের জীবনের পর্যবেক্ষণ থেকে, ওই চরিত্রে কী বুঝাতে চেয়েছে সেটা ভালোভাবে বুঝে গল্পের সঙ্গে মিলিয়ে যেটা দাঁড়ায় সেটা করার চেষ্টা করি। কতটা হয় তা আমি জানি না।'

সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে টেলিভিশন চ্যানেলের সংখ্যাও বেড়েছে। সেই সঙ্গে আবির্ভাব ঘটেছে ইউটিউব চ্যানেলের। এতসব চ্যানেলের জন্য নির্মিত হচ্ছে অসংখ্য নাটক। এত নাটকের ভিড়ে জাহিদ হাসানের উপস্থিতি তুলনামূলকভাবে অনেক কম। এ নিয়ে এই অভিনেতা বলেন, 'ভালো চিত্রনাট্য পাই না। এ কারণে কমিয়ে দিয়েছি। ভালো চিত্রনাট্য না পাওয়ার কারণে কাজটা উপভোগ করছি না। এই বয়সে এসে ওই রকম কমেডি অভিনয় করতে ইচ্ছা করে না। আমাদের এখানে নির্মাণে যত্নের খুব অভাব, পরিকল্পনার অভাব। চ্যানেলের যে দোষ দেব, সেটাও দিতে পারছি না। সব মিলিয়ে আসলে শক্ত নীতিমালা নেই, এটাই সমস্যা।'

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে