নিজস্ব গায়কীর ঐশী

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত গায়িকা ফাতিমা তুয যাহরা ঐশী। খুব অল্প সময়েই সংগীত অঙ্গনে নিজের জায়গা পোক্ত করেছেন তরুণী এই কণ্ঠশিল্পী। সংগীতে ক্রমশ তার কদর বাড়ছে। সম্প্রতি বলিউড তারকা সানি লিওন তার গানে ঠোঁট মিলিয়েছেন।
নিজস্ব গায়কীর ঐশী
ফাতিমা তুয যাহরা ঐশী

২০২১ সালের শেষপ্রান্তে এসে ঐশী চিকিৎসক হওয়ার প্রথম ধাপ এমবিবিএস করেছেন রাজধানীর এমএইচ শমরিতা হসপিটাল অ্যান্ড মেডিকেল কলেজ থেকে। পড়াশোনার পরের ধাপগুলো পেরিয়ে মেডিসিনের চিকিৎসক হতে চান এই শিল্পী। এজন্য নিজেকে তৈরি করছেন। দুই মাস ধরে ইন্টার্ণশিপ করছেন তিনি। জানালেন, সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সময় দিতে হচ্ছে হাসপাতালে। ব্যস্ত সময়ের ফাঁকে কথা হয় তার সঙ্গে। গানের শিল্পী বলে গান দিয়েই শুরু হয় আলাপন।

ঐশী সম্প্রতি নতুন করে আলোচনায় এসেছেন 'দুষ্টু পোলাপাইন' গান দিয়ে। তার কণ্ঠে এ গানে নেচেছেন বলিউড তারকা সানি লিওন। গত ২৮ ডিসেম্বর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টি এম রেকর্ডস 'দুষ্টু পোলাপাইন' শিরোনামের গানটি প্রকাশ করে। প্রকাশের পর পরই দর্শক-শ্রোতারা গানটি লুফে নেন। গানটির কথা, সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন কৌশিক হোসেন তাপস। আলোচিত এ গানটি ঐশীর ক্যারিয়ারে নতুন মাত্রা যোগ করেছে। ঐশী বলেন, 'আমার ক্যারিয়ারে অন্যরকম প্রাপ্তি যে আমার গানের মডেল হয়েছেন বলিউডের নামকরা তারকা সানি লিওন। যখন জানলাম সানি লিওন এ গানে মডেল থাকবেন, সেটা আমার জন্য সারপ্রাইজ ছিল। অপেক্ষায় ছিলাম কখন গানটি প্রকাশ পাবে। গানটি গেয়েছি প্রায় ৬ মাস আগে আর ডিসেম্বরে দৃশ্যায়ন হয়েছে মুম্বাইয়ে। প্রকাশের পর থেকে ভালো সাড়া পাচ্ছি। শ্রোতাদের মাঝে অন্যরকম আলোড়ন তৈরি করছে।' তিনি আরও বলেন, 'আমাকে স্বপ্ন দেখার সাহস দেখিয়েছেন তাপস ভাই ও ফারজানা মুন্নী ভাবি। আমার মতো তরুণ শিল্পীদের বড় স্বপ্নের দিকে হাঁটতে শিখিয়েছেন তারা। টিএম রেকর্ড যেভাবে গান নিয়ে কাজ করছে তাতে একসময় বাংলা গানের বিপস্নব সাধন হবে।' গানের পাশাপাশি মেডিকেলে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়া অনেক কঠিন। শুরুতে সংগীতাঙ্গনের অনেকে ঐশীকে নিরুৎসাহিত করেছিলেন পড়া আর গান একসঙ্গে হবে না। কিন্তু সমালোচকদের জবাব মানতে রাজী নন এ গায়িকা। ঐশী বলেন, 'নিজের কাছে প্রতিজ্ঞা করেছিলাম, কাজটা আমি করে দেখাব। যদিও দুটি কাজ একসঙ্গে করা ভীষণ কঠিন ছিল। সামনে যে বিশাল পথ বাকি, সেখানেও আমি গান ও ডাক্তারি দুটি একসঙ্গে চালিয়ে যেতে চাই।' ঐশী চিকিৎসক সেবার পাশাপাশি গানকেও ধরে রাখতে চান রক্তে-মাংসের সঙ্গে। ঐশী বলেন, 'গান ও চিকিৎসা সেবা দুটোই আমার ভালো লাগার এবং দুটো নিয়েই আমার স্বপ্ন। আমৃতু্য এই দুটো নিয়ে থাকতে চাই।' গানের পাশাপাশি মেডিকেলে পড়া কঠিন কাজ। শুরুতে সংগীতাঙ্গনের অনেকে ঐশীকে নিরুৎসাহিত করেছিলেন পড়া আর গান একসঙ্গে হবে না। ঐশী বলেন, 'নিজের কাছে প্রতিজ্ঞা করেছিলাম, কাজটা আমি করে দেখাব। যদিও দুটি কাজ একসঙ্গে করা ভীষণ কঠিন ছিল। সামনে যে বিশাল পথ বাকি, সেখানেও আমি গান ও ডাক্তারি দুটি একসঙ্গে চালিয়ে যেতে চাই।'

গত বছরের প্রায় পুরোটা সময় পড়ালেখার পাশাপাশি নতুন গানের প্রস্তুতি নিয়েছেন ঐশী। নিজের ইউটিউব চ্যানেল ঐশী এক্সপ্রেস ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের চ্যানেলের জন্য বেশ কিছু নতুন গান করেছেন তিনি। নিজের চ্যানেলে প্রকাশ করেছেন 'ভালোবাসা এমনই রোগ'। গানটির সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন বাপ্পা মজুমদার, লিখেছেন সাহান কবন্ধ। এ ছাড়া আহমেদ হুমায়ুনের সুর ও সোমেশ্বর অলির লেখা সম্প্রতি প্রকাশিত ঐশীর আরেকটি গান 'ঘোমটা পরা গান'। নতুন বছরেও গান নিয়ে সরব থাকতে চান ঐশী। এজন্য কাজও করছেন। নতুন নতুন গানের পাশাপাশি টেলিভিশন প্রোগ্রাম ও কনসার্ট করছেন। ঐশী বলেন, 'মাঝে করোনা, একাধিকবার আমার গ্র্যাজুয়েশন ফাইনাল পরীক্ষা (মেডিকেল) পিছিয়ে যাওয়া ও তার প্রস্তুতি নিয়ে বশ ব্যস্ত ছিলাম। অবশেষে সব শেষ করে এখন গানে সরব হয়েছি। তাছাড়া ভালো কিছু পেতে হলে একটু অপেক্ষা করতে হয়! দর্শকের সেই অপেক্ষার ফল এখন ভালো ভালো কাজের মাধ্যমে দিচ্ছি। আর নিয়মিত স্টেজ শো তো আছেই।' ২০০০ সালে রংপুর শিশু একাডেমিতে গান শেখা শুরু করেন ঐশী। ২০০৩ সালে নোয়াখালীতে মুহাম্মদ শরীফ ও পরে হাফিজ উদ্দীন বাহারের কাছে উচ্চাঙ্গ ও নজরুলসংগীতে তালিম নেন তিনি। ঢাকায় আসার পর 'হৃদয় মিক্স থ্রি' অ্যালবামের জন্য শিল্পী বাছাই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে একটি মুঠোফোন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান। সেই প্রতিযোগিতার নানা ধাপ পেরিয়ে সেরা পাঁচে জায়গা করে নেন ঐশী। এই আয়োজনের সেরা প্রতিযোগীদের নিয়ে তৈরি এক অ্যালবামে 'দখিন হাওয়া' শিরোনামে একটি গানে কণ্ঠ দেন তিনি। সেই থেকে শুরু। ২০১৫ সালে প্রকাশিত হয় ঐশীর প্রথম একক অ্যালবাম 'ঐশী এক্সপ্রেস'। 'মায়া: দ্য লস্ট মাদার' সিনেমার 'মায়া' গানটির জন্য ২০২০ সালে জাতীয়

পুরস্কার লাভ করেন ঐশী।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে