'হাওয়া'র আলোচিত তুষি

রেদওয়ান রনির 'আইসক্রিম' সিনেমার মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় অভিষেক হয় অভিনেত্রী নাজিফা তুষির। এর মধ্যে তিনি 'নেটওয়ার্কের বাইরে' ওয়েব ফিল্মে কাজ করে প্রশংসিত হয়েছেন। তবে 'হাওয়া' সিনেমার সফলতা তাকে ক্যারিয়ারে অনেকটা এগিয়ে দিয়েছে। এই সিনেমায় 'গুলতি' চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করেছেন
'হাওয়া'র আলোচিত তুষি

চলতি বছর তো বটেই। বিগত এক দশকের মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত সিনেমা হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে সদ্য মুক্তি পাওয়া সিনেমা 'হাওয়া'। প্রেক্ষাগৃহে আসার আগেই গান ও ট্রেইলরে এতটাই দর্শক মাতিয়েছে সিনেমাটি- যা ইতোপূর্বে কখনো হয়নি। মেজবাউর রহমান সুমনের প্রথম পরিচালিত এই সিনেমাটি দেশে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। মুক্তির আগেই তিন দিনের এমনকি কোনো কোনো সিনেমা হলে সাত দিনের অগ্রিম টিকিট বিক্রিতে যেমন নজির স্থাপন করেছে, তেমনই এই সিনেমার মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিন পর কোনো সিনেমা হল হাউসফুল যাচ্ছে। সিনেমাপ্রেমীদের মুখে মুখে উচ্চারিত হচ্ছে 'হাওয়া' সিনেমার নাম ও গান। বলা চলে, হাওয়ায় ভাসছেন দেশের চলচ্চিত্রের দর্শক।

আর দর্শকের মতোই হাওয়ায় ভাসছেন এই সিনেমার অভিনেত্রী নাজিফা তুষি। সিনেমাটি মুক্তির আগে থেকে এখন পর্যন্ত 'হাওয়া' নিয়ে প্রচন্ড ব্যস্ত সময় পার করছেন তুষি। বিভিন্ন সিনেমা হলে যাওয়ার পাশাপাশি টিভি অনুষ্ঠান ও গণমাধ্যমের মুখোমুখি হতে হচ্ছে তাকে। গতকাল বুধবার এত ব্যস্ততার ফাঁকে এই অভিনেত্রী বলেন, 'দারুণ সাড়া পাচ্ছি। ভালো লাগছে প্রতিটি শো হাউসফুল যাচ্ছে। দর্শকরা সিনেমাটি গ্রহণ করেছেন। মঙ্গলবার রাজধানী মিরপুরের সনী সিনেমা হলে গিয়েছিলাম, সেখানেও হল ভর্তি দর্র্শকের উচ্ছ্বাস দেখেছি। অনেক বছর পর দর্শক একটি সিনেমা নিয়ে মাতামাতি করছেন। শুধু 'হাওয়া' টিমের নয়, পুরো ইন্ডাস্ট্রির জন্য এটি আনন্দের। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে, ফোনে প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন। এ এক অন্যরকম আনন্দ। বিষয়টি আমি খুব ইনজয় করছি।' রেদওয়ান রনির 'আইসক্রিম' সিনেমার মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় অভিষেক হয় অভিনেত্রী নাজিফা তুষির। এর মধ্যে তিনি 'নেটওয়ার্কের বাইরে' ওয়েব ফিল্মে কাজ করে প্রশংসিত হয়েছেন। তবে 'হাওয়া' সিনেমার সফলতা তাকে ক্যারিয়ারে অনেকটা এগিয়ে দিয়েছে। এই সিনেমায় 'গুলতি' চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করেছেন। এজন্য তাকে পরিশ্রম কম করতে হয়নি। কারণ 'হাওয়া'র জার্নিটা ছিল তার জন্য অনেক চ্যালেঞ্জিং। শুটিংয়ের ছয় মাস আগে থেকেই ওই চরিত্রের জীবনযাপন শুরু করতে হয়েছে। চরিত্র হয়ে ওঠার জন্য বেদেপলস্নীতে গিয়ে তাদের সঙ্গে মিশেছেন। শুটিংয়ের এক মাস মোবাইল ফোন ছিল বন্ধ। তিনি বলেন, 'চরিত্রটির জন্য মানুষের ভালোবাসায় আমি মুগ্ধ। তবে এর জন্য আমাকে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে। আমার কোনো স্কুলিং ছিল না। জার্নিটা ছিল অনেক চ্যালেঞ্জিং। এর শুটিং স্থলে নয়, জলে। সিনেমাটির পরতে পরতে ছিল চ্যালেঞ্জ। ব্যতিক্রমী অভিজ্ঞতা। এর আগে আমাকে এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হয়নি কখনো। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ৩/৪ বার একেকবার একেক অনুভূতি তৈরি হয়েছে।' তুষি জানান, 'হাওয়া'র জার্নিটা ছিল প্রায় ৪ বছরের। করোনার কারণে সিনেমাটি মুক্তি হতে বিলম্ব হয়। অনেকটা পরে হলেও সিনেমাটি ঝড় তুলেছে। 'হাওয়া'র পালে ভিড়েছে দর্শকের ভালোবাসা। সিনেমাটি নিয়ে তুমুল আলোচনা হলেও পিছু ছাড়েনি সমালোচনা। নকলের অভিযোগের পাশাপাশি শিল্পীদের মন্তব্য নিয়েও চলছে হইচই। সমালোচনায় পড়েছেন তুষি নিজেও।

একটি ভিডিও নিয়ে শুরু হয়েছে সেই বিতর্ক। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে গণমাধ্যমে তাড়াতাড়ি সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় 'হাওয়া'র পোস্টারের সঙ্গে থাকা অন্য দুটি সিনেমা 'পরাণ' ও 'দিন: দ্য ডে'র পোস্টার সরাতে বলেন তুষি। এই ভিডিও নিয়ে চলছে তোলপাড়। অনেকেই তুষির সমালোচনায় মুখর হয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এসব দেখে বাকরুদ্ধ অভিনেত্রী। এ নিয়ে তুষি বলেন, 'বিষয়টি নিয়ে আমি আমার ফেসবুকে জবাব দিয়েছি। আসলে সমালোচনা হবেই। একজনের কাজকে সবাই গ্রহণ করবে তা কিন্তু নয়। অনেক বড় বড় তারকাদের নিয়েও সমালোচনা হয়েছে। সংশোধনের উদ্দেশ্যে সমালোচনা অবশ্যই হতে পারে। কিন্তু কাউকে ছোট করার জন্য এমনটি করা উচিত নয়। আমি কখনো কাউকে হেয় করিনি। যে যাই বলুক, আমি আমার ক্যারিয়ার নিয়ে আগাতে চাই।'

'হাওয়া' সিনেমার পর আরও কয়েকটি নতুন কাজের প্রস্তাব পেয়েছেন তুষি। তবে গল্প ও চরিত্রে গুরুত্ব দিয়ে নিজেকে নতুন সিনেমায় হাজির করতে চান। তিনি বলেন, 'আমার প্রতি দর্শকের যে ভালোবাসা তৈরি হয়েছে তা ধরে রাখা কঠিন। তাই এমন কিছু করতে চাই না- যার মাধ্যমে প্রাপ্যটা বিলিন হয়ে যায়।'

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে