বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯
walton1

সামান্থার বলিউড যাত্রা

জাহাঙ্গীর বিপস্নব
  ১০ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০
দক্ষিণী সিনেমার এই সময়ের সবচেয়ে আলোচিত অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম সামান্থা রুথপ্রভু। ভারতীয় এই মডেল-অভিনেত্রী তেলেগু ও তামিল চলচ্চিত্রে নিজের অভিনয় দক্ষতা দেখিয়ে খুব অল্প সময়েই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এসেছেন। এরই মধ্যে বগলদাবা করে নিয়েছেন চারটি ফিল্মফেয়ারসহ বিভিন্ন পুরস্কার অর্জন। তামিলনাড়ুতে বেড়ে ওঠা এই অভিনেত্রী ছেলেবেলাতেই মডেলিং পেশার প্রতি আকৃষ্ট ছিলেন। বর্তমানে দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্পে একজন নেতৃস্থানীয় অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। পুষ্পা, আরআরআর, কেজিএফ চ্যাপ্টার-২, লাইগার সিনেমার মাধ্যমে তর তর করে বাড়তে থাকে সামান্থার জনপ্রিয়তা। অভিনয়ের পাশাপাশি 'পুষ্পা'র একটি আইটেম গানেও ব্যতিক্রমী নাচ দিয়ে এই তারকা হইচই ফেলে হরণ করে নেন কোটি কোটি দর্শকের হৃদয়। তবে এতদিন দক্ষিণী সিনেমায় অভিনয় করলেও এবার প্রথমবার বলিউডের সিনেমায় দেখা মিলবে এই অভিনেত্রীর। তাও আবার শুরুতেই কেন্দ্রীয় চরিত্রে। সিনেমাটির নাম 'যশোদা'। এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সামান্থা। আগামীকাল ১১ নভেম্বর হিন্দিসহ পাঁচটি ভাষায় মুক্তি পাচ্ছে সিনেমাটি। দক্ষিণী সিনেমায় জনপ্রিয়তা থাকলেও হিন্দি ভাষা বা বলিউডের সিনেমায় অভিনয়ের শখ সব ভারতীয় অভিনয় শিল্পীদের রয়েছে। শুধু হিন্দি বুলি নয়, এই সিনেমার জন্য শারীরিকভাবেও প্রস্তুতি নিয়েছেন সামান্থা। খুব কঠিন লাইফস্টাইল অনুসরণ করেছেন তিনি। হলিউডের নামকরা বিশেষজ্ঞের কাছ থেকে অ্যাকশনের প্রশিক্ষণ নিয়েছেন এই দক্ষিণী তারকা। মনের মধ্যে জমা থাকা দীর্ঘদিনের সেই লালিত স্বপ্ন শেষমেশ পূরণ হওয়ার একদম দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে সামান্থা। এ জন্য কয়েকদিন ধরে মনের মধ্যে বাড়তি উন্মাদনা কাজ করছে এই নায়িকার। এরই মধ্যে প্রকাশ পেয়েছে 'যশোদা'র ট্রেইলার। আর ট্রেইলারেই ঝড় তুলে দিয়েছেন সামান্থা। তামিল-তেলুগু দুই ভাষায় নির্মিত সিনেমাটি সারোগেট মায়েদের সঙ্গে জড়িত একটি অবৈধর্ যাকেটের গল্পে অ্যাকশন-থ্রিলার। ট্রেইলারটি প্রকাশের পরপরই সামান্থা ভক্তরা বেশ উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়েছেন। চিরাচরিত রোমান্টিক ইমেজ ভেঙে দুর্দান্ত অ্যাকশন ইমেজে সামান্থাকে একেবারে ভিন্নরকম লাগছে। ট্রেইলারের একটি দৃশ্যে সামান্থাকে বেশ কয়েকজন গার্ডের সঙ্গে তুমুল লড়াই করতে দেখা যায়। নিজেকে ভেঙে একেবারে নতুন আঙ্গিকে উপস্থাপন করেছেন তিনি। এর আগে 'দ্য ফ্যামিলি ম্যান-২'-তেও এমন মারকুটে ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন তিনি। সামান্থাকে এমন ভূমিকায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সবাই প্রশংসা করছেন এ অভিনেত্রীর। \হ ট্রেইলারটি দেখে বোঝা যাচ্ছে, গল্পটি যশোদাকে কেন্দ্র করে, যিনি অর্থের জন্য সারোগেট মা হতে চান। তিনি ইভা নামে একটি কোম্পানিতে যুক্ত হন, যারা সারোগেসির মাধ্যমে অন্যদের বাবা-মা হওয়ার স্বপ্ন পূরণ করতে সাহায্য করে। অতঃপর সেই কোম্পানির কার্যক্রম থেকেই গল্পের থ্রিল শুরু হয়। যশোদার গল্পও শুরু হয়। এমনটাই আভাস পাওয়া যাচ্ছে ট্রেইলারে। সামান্থা নিজের ইনস্টাগ্রামে ট্রেইলারটি প্রকাশ করে লিখেছেন, 'এটি এমন একটি স্ক্রিপ্ট- যা শুনে আমি শান্ত হয়ে গিয়েছিলাম। প্রথমবার যখন আমি এই স্ক্রিপ্টটি শুনেছি, তখনই সিনেমাটা করব বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এটি দুর্দান্ত এক অনুভূতি। আমি আশা করি, আপনারাও একই অভিজ্ঞতা লাভ করবেন।' হরি এবং হরিশের পরিচালনায় ও শ্রীদেবী মুভিজের ব্যানারে শিভালেঙ্কা কৃষ্ণ প্রসাদ প্রযোজিত যশোদা ১১ নভেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে। সামান্থা ছাড়াও সিনেমাটিতে আরো অভিনয় করেছেন ভারলক্ষ্ণী শরৎকুমার, উন্নি মুকুন্দন, রাও রমেশ, মুরালি শর্মা, সম্পাথ রাজ, শত্রম্ন, মধুরিমা, কল্পিকা গণেশ, দিব্যা শ্রীপদ, প্রিয়াঙ্কা শর্মাসহ অনেকে। প্রায় তিন মাস আগে অটোইমিউন ডিজিজ মায়োসাইটিস রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন সামান্থা প্রভু। অসুস্থতার কারণে কিছুদিন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। এখন অনেকটাই সুস্থ আছেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি 'যশোদা'র প্রচারে এসে এক সাক্ষাৎকারে নিজের শারীরিক অবস্থা নিয়ে মুখ খুলেছেন সামান্থা। আবেগঘন কণ্ঠস্বর নিয়ে সামান্থা বলেছেন, 'যেমনটা আমার পোস্টে (ইনস্টাগ্রাম) বলেছি, সময় কখনো ভালো যায় আবার কখনো খারাপ যায়। এমন একটা দিন এসেছে মনে হয়েছে আর কোনোদিনও পা ফেলতেই পারব না, কঠিন হবে। কিন্তু যখন আমি পেছনে ফিরে তাকাই, আমি ভাবি অনেক কিছু অতিক্রম করে এতদূর এসেছি। আমাকে লড়াই করতে হবে।' এই অভিনেত্রী আরো বলেন, 'আমি একটি জিনিস পরিষ্কার করতে চাই। অনেক প্রতিবেদনে আমার অবস্থাকে জীবনের হুমকি হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে। আমি যে পর্যায়ে আছি, তা জীবনের জন্য হুমকি নয়। আমি এখনো মরে যাইনি। আমার মনে হয় না এ ধরনের অতিরঞ্জিত শিরোনামগুলোর খুব প্রয়োজন ছিল।' সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে 'যশোদা'র প্রোমোশন থেকে একটি ছবি শেয়ার করেছেন সামান্থা রুথপ্রভু। ক্যাপশনে লিখেছেন, 'আমার বন্ধু বলে দিন খারাপ যেতে পারে। সবকিছু খারাপ হতে পারে। তবে ইতিবাচক মনোভাবকে আঁকড়ে বাঁচতে হবে। তার জীবনের নীতি খুব স্পষ্ট। ঘুম থেকে উঠ। স্নান কর। শেভ কর এবং নিজেকে সবার সামনে সেরাভাবে তুলে ধর।'
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে