রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

সোনালি সময়ে সামান্থা

তারার মেলা ডেস্ক
  ৩০ মার্চ ২০২৩, ০০:০০
সামান্থা রুথ প্রভু

সামান্থা রুথ প্রভুকে বলা হচ্ছে দক্ষিণী সিনেমার চলমান সময়ের সবচেয়ে আলোচিত অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম। দক্ষিণের বহুল আলোচিত ও ব্যবসাসফল 'পুষ্পা' সিনেমায় অভিনয় না করলেও এর আইটেম গান 'ও আন্তাভা'তে অংশ নিয়ে মাত করে দিয়েছিলেন গোটা ভারতীয় সিনেমপ্রেমীদের। মাত্র তিন মিনিট নেচেই পর্দায় ঝড় তুলেছিলেন এই অভিনেত্রী। আইটেম গানে তার নাচের স্টেপ বেশ জনপ্রিয়তা পায়। এক নাচেই বেড়েছিল এই অভিনেত্রীর জনপ্রিয়তা। সেই জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে অভিনয়ে পারশ্রমিকও বাড়িয়ে দিয়েছিলেন সামান্থা। সামান্থার এই আইটেম গানটি তখন বিশ্বের সেরা ১০০ মিউজিক ভিডিওর তালিকায় জায়গা করে নিয়েছিল। ছোট থেকে বুড়ো সবাই কোমড় দুলিয়েছিলেন এই গানে। এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতেই প্রথম সিনেমার মতো 'পুষ্পা-২'র আইটেম গানে নাচার জন্য সামান্থা রুথ প্রভুকে প্রস্তাব দেন নির্মাতারা। শুধু নাচ নয়, সিনেমার গল্পে তার জন্য রাখা হয়েছিল কয়েকটা দৃশ্যও। কিন্তু তিনি এই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। ক্যারিয়ারের সোনালি সময় পার করা এই অভিনেত্রী। এই সময়ে এসে এখন আর আইটেম গানে নাচতে চান না তিনি।

নতুন করে ঘুরে দাঁড়াতে চান সামান্থা রুথ প্রভু। এখন থেকে নারী-পুরুষের সমান অধিকার প্রতিষ্ঠায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চান এই তারকা। নারী-পুরুষের অন্যতম প্রতিবন্ধকতা পারিশ্রমিকের বৈষম্য। প্রায় সব ক্ষেত্রেই এই চিত্র দেখা যায়। সিনেমা অঙ্গনে ব্যবধান যেন আরও বেশি। ভারতীয় কোনো নায়ক যেখানে সিনেমা প্রতি ৫০-১০০ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নিচ্ছেন, সেখানে নায়িকার পাশ্রিমিক বড়জোর ৩-৪ কোটি রুপি। এই ব্যবধান ঘোচাতে নিয়মিত কথা বলছেন অনেক তারকা। তবে উলেস্নখযোগ্য পরিবর্তন আসেনি এখনো। সামান্থা মনে করেন, তিনি কখনো পারিশ্রমিকের জন্য ভিক্ষা করবেন না। বরং নিজেকে এমনভাবে গড়ে তুলবেন, যাতে প্রযোজক-পরিচালকরা নিজ থেকেই তাকে মোটা অংকের প্রস্তাব দেন।

এই অভিনেত্রী বলেন, 'আমি প্রচন্ড লড়াই করছি, সরাসরি না। এটা এমন নয় যে, আমি সমান পারিশ্রমিকের জন্য লড়ছি। আমি এটা নিজের কাজ ও সফলতার সঙ্গে স্বাভাবিকভাবেই পেতে চাই। মানুষ আসবে আর বলবে, 'হঁ্যা, তোমাকে আমরা এই অংকের পারিশ্রমিক দিতে চাই।' আমাকে এর জন্য ভিক্ষা করতে হবে না। আমার বিশ্বাস, অসামান্য কঠোর পরিশ্রমের ফলে এটা আসবে।'

নিজের ইনস্টাগ্রাম বায়োতেও এই মতাদর্শের কথা লিখে রেখেছেন সামান্থা। কথাটি এরকম 'তোমার সামর্থ্য যাই হোক না কেন, তোমাকে সেটার শেষ অব্দি চেষ্টা করতে হবে কিংবা আরও বেশি।' ওই কথার রেশ ধরেই সামান্থা বললেন, 'যখন ইন্ডাস্ট্রিতে আপনি একজন নারী, তখন শুধু নিজের সামর্থ্যকে শেষ অব্দি টেনে নেওয়াই যথেষ্ঠ নয়, বরং সেটাকে আরেকটু বাড়ানো প্রয়োজন। এই 'একটু বেশির মধ্যে অনেক চাপ আছে, কারণ এটা অনেক কঠিন।'

ভারতীয় এই মডেল-অভিনেত্রী তেলেগু ও তামিল চলচ্চিত্রে শিল্পে নিজের অভিনয় দক্ষতা দেখিয়ে খুব অল্প সময়েই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এসেছেন। এরই মধ্যে বগলদাবা করে নিয়েছেন চারটি ফিল্মফেয়ারসহ বেশ কয়েকটি আলোচিত পুরস্কার। তামিলনাড়ুতে বেড়ে ওঠা এই অভিনেত্রী ছেলেবেলাতেই মডেলিং পেশার প্রতি আকৃষ্ট ছিলেন। বর্তমানে দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্পে নিজেকে একজন নেতৃস্থানীয় অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। অনেক দিন ধরেই অসুস্থতার সঙ্গে লড়াই করছেন সামান্থা। তবে এর মধ্যেও হাত গুটিয়ে বসে নেই তিনি। নিয়মিত কাজ করছেন। আগামী ১৪ এপ্রিল মুক্তি পাবে তার নতুন সিনেমা 'শকুন্তলাম'। গুনাশেখর নির্মিত ছবিটি হিন্দি, তামিল, মালায়লাম ও কন্নড় ভাষায় একযোগে মুক্তি পাবে। সিনেমাটি নিয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত তিনি। এই সিনেমাটি নিয়ে অনেক বেশি প্রত্যশা ব্যক্ত করেছেন এই অভিনেত্রী। কথা ছিল গত বছরের নভেম্বরে সিনেমাটির মুক্তির। কিন্তু কোনো এক কারণে সিনেমার মুক্তি পিছিয়ে যায়। এরই মধ্যে এর অফিসিয়াল মোশন পোস্টার প্রকাশ করেছে সিনেমাটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। সামান্থাও তার অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন পোস্টারটি। শকুন্তলামের গল্পটি শকুন্তলা এবং মহাভারতের রাজার প্রেমের গল্পকে ঘিরে আবর্তিত। এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সামান্থা রুথ প্রভু। এ কারণে এটাকে ক্যারিয়ারের অন্যতম সিনেমা হিসেবে মন্তব্য করেছেন তিনি। এতে তার বিপরীতে দেখা যাবে দেব মোহনকে।

গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে অটোইমিউন ডিজিজ মায়োসাইটিস রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন সামান্থা। অসুস্থতার কারণে কিছুদিন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। এখন অনেকটাই সুস্থ আছেন অভিনেত্রী।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে