শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

নতুনভাবে আসছেন রাশমিকা

রেজাউল করিম খোকন
  ১৬ মে ২০২৪, ০০:০০
নতুনভাবে আসছেন রাশমিকা

গত ডিসেম্বরে মুক্তি পেয়েছে পরিচালক সন্দীপ রেড্ডি বঙ্গার ছবি 'অ্যানিমাল'। এই ছবিতে একেবারে অন্য অবতারে দেখা গেছে রণবীর কাপূরকে। হাতে কুড়াল, রক্তমাখা মুখ, বড় চুল। রোম্যান্টিক হিরোর খোলস ছেড়ে তিনি অ্যাকশন হিরো হয়ে এসেছেন এখানে। এই প্রথমবার দক্ষিণের রাশমিকা মান্দানার সঙ্গে জুটি বেঁধেছিলেন অভিনেতা। স্বাভাবিকভাবেই অনুরাগীদের মধ্যে উত্তেজনা ছিল এই নতুন জুটিকে বড় পর্দায় দেখার ব্যাপারে। 'অ্যানিম্যাল' ছবিটি নিয়ে তৈরি হওয়া বিতর্কের কারণে এই ছবির দিকে তাকিয়ে ছিলেন অনেকেই। রণবীর- রাশমিকা অভিনীত 'অ্যানিমেল' ছবির গান 'হুয়া ম্যায়' এ দেখা গেছে পরিবারের সবার সামনেই রণবীরের ঠোঁটে ঠোঁট রাখছেন রাশমিকা। তারপরই টুক করে বিমানে চড়ে উড়ে গেলেন আকাশপথে। সেখানেও ককপিটে বসে চুমু! তারপর বরফ ঘেরা পাহাড়ের মাঝে রণবীরের গলায় মালা। সেখানেও চুমু। একের পর এক চুমু ভরা রাশমিকা ও রণবীরের ভিডিও 'টক অব দ্য টাউন' হয়ে উঠেছিল। ছবির 'হুয়া ম্যায়' গানও সুপারহিট। আর সেই গানের ভিডিও ঘিরেই একেবারে হইচই পড়ে গেছে বলিপাড়ায়। সেই গানের একটি ঝলকেই রাশমিকাকে ঠোঁটঠাসা চুমু খান রণবীর। 'গুডবাই'-এর পর বলিউডে রাশমিকার মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ছিল 'মিশন মজনু'। তবে দু'টি ছবিই ব্যর্থ। তারপর রাশমিকার জীবনে আশার আলো দেখিয়েছে 'অ্যানিমাল' ছবিটি। আর তাতেই উচ্ছ্বসিত তিনি। আগেভাগেই বলে দিয়েছেন, এই ছবি কামাল করেছে। রাশমিকা ভীষণ আশাবাদী ছিলেন এই ছবিটি নিয়ে। 'অ্যানিম্যাল'-এর প্রথম প্রচার ঝলক প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়েছিল বিতর্ক। দক্ষিণ কোরিয়ার একটি ছবি থেকে নাকি হুবহু নকল করে ছবি বানিয়েছেন পরিচালক, অভিযোগ তোলেন নেটাগরিকদের একাংশ। এই ছবির সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার ছবি 'ওল্ডবয়'-এর একটি দৃশ্যের মিল খুঁজে পেয়েছিলেন নেটাগরিকরা। তবে এসবে কান দিতে নারাজ অভিনেত্রী। রাশমিকার কথায়, 'অ্যানিমাল' ছবিটি আমার জন্য ভীষণ লাকি। তার প্রথম ছবি 'কিরিক পার্টি'। এ ছাড়াও 'পুষ্পা', 'চমক', 'অঞ্জনিপুত্র' তার কেরিয়ারে হিট ছবি। তিনি জানান, 'অ্যানিমাল'-এর মতো ছবি দর্শক আগে দেখেননি। তার চরিত্রটাই একেবারে অন্য রকম। অভিনেত্রী নিজেও কখনও কল্পনা করেননি এমন এক চরিত্রে অভিনয় করার কথা। এই ছবিতে দর্শক তাকে দেখে কী প্রতিক্রিয়া দেন, তা দেখার জন্য তিনি মুখিয়ে ছিলেন। কেউ নাকি তাকে ভালবাসেন না, দুঃখ করেন তিনি। এর কোনো কারণ নেই। কেন যে লোকে তাকে পছন্দ করেন না, ভেবেই পান না দক্ষিণের এই নায়িকা। তবে দমে যাননি তিনি। বরাবরের মতো বলেছেন, মানুষ ভালোবাসে, ঘৃণাও করে। সবার মন জুগিয়ে চলা যায় না। এদিকে যা ভাবলেন তা কাজে করতে পারলেন না রাশমিকা। লোকজন তার ওপর চটে থাকলে তিনিও যে ফুরফুরে মেজাজে থাকতে পারেন না, তা আগেও দেখা গেছে। মুখে বলেন, তার কিছুতে কিছু আসে যায় না, এদিকে মন খারাপ করে বসে থাকেন নিজেই। বলার কথা কি এবার ফিরিয়ে নেবেন? নাকি লোকের মন জুগিয়ে ভেবেচিন্তে কথা বলবেন এর পর থেকে? এর আগেও কথার প্যাঁচেই বেকায়দায় পড়েছিলেন 'পুষ্পা'খ্যাত রাশমিকা। এক সাক্ষাৎকারে নিজের শুরুর দিকের কথা বলতে গিয়ে ঊহ্য রেখেছিলেন প্রযোজনা সংস্থার নাম। এদিকে সেই সংস্থার হাত ধরেই অভিনয় জগতে পা রাখা রাশমিকার, এমনই দাবি করেন প্রযোজকরা। এরপর বিপুল অশান্তি দানা বাঁধে। তাকে অকৃতজ্ঞ মনে করে দক্ষিণের ছবির জগৎ মুখ ফিরিয়ে নেয়। তাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার ডাকও দিয়েছিলেন দক্ষিণের প্রযোজকরা। সে অবস্থায় কেরিয়ার চৌচির হয়ে যেতে বসেছিল রাশমিকার। তাই কি বলিউডকেই আঁকড়ে ধরতে চাইছেন এখন? একের পর এক ছবি করছেন বলিউডেই। কিছু দিন আগে তার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। অন্য এক মহিলার শরীরের সঙ্গে রাশমিকার মুখজুড়ে দিয়ে এমন এক ডিপফেক ভিডিও তৈরি করা হয়েছিল, যে দেখে রীতিমতো চমকে গিয়েছিলেন সবাই। যে ধরনের পোশাকে ওই ভিডিওতে তাকে দেখা গিয়েছিল এ যাবত তাকে ওই ধরনের পোশাক পরতে দেখা যায়নি। এ নিয়ে বিস্তর জলঘোলা হলেও এখনো সমস্যা মেটেনি। ফের অশ্লীলতার শিকার হলেন রাশমিকা। ওই ভিডিওতেও দেখা যাচ্ছে স্বল্প পোশাক পরে নাচছেন রাশমিকা। মুখে চোখে অদ্ভুত অভিব্যক্তি। তবে ওটি রাশমিকা নন, সবই আদপে ডিপফেকের কারসাজি। ঘটনায় ভীষণই রেগে গেছেন রাশমিকার ভক্তরা। কেন বারংবার তাদের প্রিয় অভিনেত্রীকেই পড়তে হচ্ছে এমন সমস্যার মুখে? সে প্রশ্নই তুলেছেন তারা। প্রথম ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর মুখে খুলেছিলেন রাশমিকা। তবে এবার আর তাকে মুখ খুলতে দেখা যায়নি। প্রসঙ্গত, রাশমিকার প্রথম ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। শুধু বিগ-বিই নন, প্রতিবাদ করেছিলেন, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখরও। আবার 'শ্রীবলস্নী'রূপে দর্শকের হৃদয়ে জায়গা করে নিতে আসছেন অভিনেত্রী রাশমিকা মান্দানা। পুষ্পা ছবির দ্বিতীয় সিকুয়েলে তিনি আলস্নু অর্জুনের সঙ্গে জুটি বেঁধে আসতে চলেছেন। পুষ্পা টু ছবিতে নিজের চরিত্রের বিষয়ে কিছু খোলাসা করেছেন ভারতের 'জাতীয় ক্রাশ' রাশমিকা। ২০২১ সালে মুক্তি পেয়েছিল পুষ্পা: দ্য রাইজ ছবিটি। সুকুমার পরিচালিত এই ছবিতে আলস্নু অর্জুন আর রাশমিকার জুটি সবাই দারুণ পছন্দ করেছিলেন। তবে রাশমিকার অনুরাগীদের আক্ষেপ, এই ছবিতে তাদের প্রিয় অভিনেত্রীর পর্দায় উপস্থিতি নেহাতই কম ছিল। রাশমিকা সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, পুষ্পা টু-তে তিনি তা পুষিয়ে দেবেন। পুষ্পা রাজের স্ত্রী 'শ্রীবলস্নী'রূপে আবার রুপালি পর্দায় আসা প্রসঙ্গে রাশমিকা এবার খোলাখুলি কথা বলেছেন। এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, 'পুষ্পা ওয়ান-এর সময় আমি আমার অভিনীত চরিত্র 'শ্রীবলস্নী' সম্পর্কে বিন্দুবিসর্গ জানতাম না। কারণ, আমি ছবির কাহিনীর বিষয়ে জানতাম না। একজন শিল্পী হিসেবে আমি কিছুই জানতাম না। 'শ্রীবলস্নী' চরিত্রটা পর্দায় কীভাবে মেলে ধরব, সে সম্পর্কে আমার কোনো ধারণা ছিল না। এমনকি আমি জানতাম না যে, কোন দুনিয়ার আমি বাসিন্দা হতে চলেছি। সত্যি বলতে, আমি কিছুই জানতাম না। আর তাই প্রতিদিন সেটে মনে হতো, আমি যেন খেলার ময়দানে আছি।' পুষ্পা ছবিতে নিজের অভিনীত চরিত্রের প্রসঙ্গে রাশমিকা বলেছেন, 'শ্রীবলস্নী'র সরলতা আর স্বতঃস্ফূর্ততা আমার দারুণ লেগেছিল। তাই চরিত্রটা আমার বেশ মজাদার মনে হয়েছিল। এর পাশাপাশি চরিত্রটা চ্যালেঞ্জিং লেগেছিল।' পুষ্পা: দ্য রুল ছবির 'শ্রীবলস্নী'র প্রসঙ্গে রাশমিকা বলেছেন, 'আমি এখন আমার চরিত্রের বিষয়ে অনেক বেশি জানি। আর এখন যে দুনিয়ার বাসিন্দা, তার ব্যাপারেও অনেক বেশি জানি। তবে নিজের চরিত্রের বিষয়ে আমি এখনই বেশি কিছু খোলাসা করতে পারব না। পুষ্পা টুর 'শ্রীবলস্নী' নিজে যা চায়, সে ব্যাপারে খুব স্বচ্ছ। আর সে অনেক বেশি সাবধানী আর পরিপক্ব।' আগামী ১৫ আগস্ট মুক্তি পাবে পুষ্পা টু: দ্য রুল ছবিটি।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে