মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯
walton1

ইনজুরির কারণে দলে থেকে ছিটকে গেলেন আরও দুই ব্রাজিলিয়ান তারকা

যাযাদি ডেস্ক
  ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ২০:০১

বিশ্বকাপ খেলতে এসে একের পর এক ইনজুরির শিকার ব্রাজিল দলের ফুটবলাররা। নেইমার, দানিলো, অ্যালেক্স সান্দ্রো- এ তিনজন রয়েছেন ইনজুরিতে। যদিও তারা বিশ্বকাপ থেকে পুরোপুরি ছিটকে গেছেন তা বলা হচ্ছে না। ব্রাজিল দল চেষ্টা করছে, পরের যে কোনো রাউন্ডে তাদের ফিরিয়ে আনার।

কিন্তু এরই মধ্যে নতুন খবর। ইনজুরিতে পড়ে পুরো বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে পড়েছেন ব্রাজিলের আরও দুই তারকা। তারা হলেন ফরোয়ার্ড গ্যাব্রিয়েল হেসুস এবং ডিফেন্ডার অ্যালেক্স টেলেস। দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় রাউন্ডে নামার আগেই বড় ধাক্কা খেলো ব্রাজিল।

ব্রাজিলের এক সংবাদমাধ্যমের পক্ষ থেকে এ দু’জনের ইনজুরিতে পড়া এবং পুরো বিশ্বকাপ খেলতে না পারার দাবি করা হয়েছে। দু’জনেই ক্যামেরুন ম্যাচে খেলতে গিয়ে প্রায় একই রকমের চোট পান। শনিবার জানা গেছে, বিশ্বকাপের বাকি অংশে তাদের পাওয়ার সম্ভাবনা কম। যদিও ব্রাজিলের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও কোনও ঘোষণা দেয়া হয়নি।

শুক্রবার ক্যামেরুন ম্যাচের পর ব্রাজিল দলের চিকিৎস রদ্রিগো লাসমার বলেন, ‘টেলেস বলছিল ওর হাঁটুতে যন্ত্রণা করছে। সাজঘরে ওর চোট পরীক্ষা করা হয়েছে। শনিবার এমআরআই করা হবে। এরপরই চোটের পরিস্থিতি বুঝতে পারব। হেসুসের ডান হাঁটুতে ব্যথা করছে। তাকেও পরীক্ষা করা হয়েছে এবং এমআরআই করা হবে।’

শনিবার এমআরআই করার পরেই জানা যায় দু’জনের চোটের অবস্থা খুব একটা ভাল নয়। যদিও এই দু’জন ব্রাজিলের প্রথম একাদশের সদস্য নন। ক্যামেরুনের বিপক্ষে পরিবর্তিত একাদশ মাঠে নামানোয় তারা প্রথম একাদশে ছিলেন। দ্বিতীয় রাউন্ডে দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে ব্রাজিল প্রথম একাদশ খেলালে তাদের দু’জনেরই সাইড বেঞ্চে থাকার সম্ভাবনা ছিল বেশি।

ব্রাজিল দলে চিন্তা রয়েছে নেইমার এবং দানিলোকে নিয়েও। সে প্রসঙ্গে রদ্রিগো লাসমার বলেন, ‘নেইমার এবং আলেক্স সান্দ্রোকে নিয়ে আমাদের হাতে সময় রয়েছে। সম্ভাবনাও রয়েছে ওদের খেলার। এখনই আমরা চূড়ান্ত কিছু বলতে পারছি না। কারণ এখনও নেইমার বল নিয়ে অনুশীলন শুরু করেনি। আশা করি দ্রুত অনুশীলন শুরু করবে। চোট সারিয়ে দলের সঙ্গে কিভাবে মানিয়ে নিতে পারে সেটার উপর অনেক কিছু নির্ভর করবে। তারপরই আমরা সিদ্ধান্ত নেবো ওদের খেলানো হবে কি না।’

রদ্রিগো আরও বলেন, ‘দানিলোর উন্নতি খুবই ভাল হচ্ছে। বলের সঙ্গে শুক্রবার ও ভালই অনুশীলন করেছে। যেভাবে খেলাতে চাইছি সেভাবে মানিয়ে নেওয়ার আপ্রাণ চেষ্টা করছে। আশা করি শনিবার সে ভালোভাবেই অনুশীলন করতে পারবে। দেখা যাক সেখানে সব ঠিকঠাক থাকে কি না। আশা করি তাকে অন্তত পরের ম্যাচে খেলতে দেখা যাবে।’

নেইমারকে শুক্রবার দলের সঙ্গে স্টেডিয়ামে আসতে দেখা যায়। গ্যালারিতে বসে সতীর্থদের তাতিয়েছিলেন তিনি। সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে জ্বরের কারণে হোটেলে কাটালেও ক্যামেরুন ম্যাচে তাকে স্টেডিয়ামে হাজির থাকতে দেখে উৎফুল্ল হযেছিলেন সমর্থকরা। নেইমার এরইমধ্যে জ্বর সারিয়ে জিমে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছেন।


যাযাদি/সৌলভ

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে