logo
শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০ ৯ কার্তিক ১৪২৭

  বিনোদন রিপোর্ট   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০  

কেমন আছেন রাজ্জাক তনয় বাপ্পারাজ-সম্রাট

কেমন আছেন রাজ্জাক তনয় বাপ্পারাজ-সম্রাট
দুই ছেলে সম্রাট ও বাপ্পারাজের সঙ্গে রাজ্জাক

তিন বছর আগে না-ফেরার দেশে পাড়ি জমান ঢাকাই চলচ্চিত্রের শক্তিমান অভিনেতা নায়করাজ রাজ্জাক। তার অভাব ও শূন্যতা আজও বিরাজ করছে চলচ্চিত্র ও তার পরিবারে। বাবার হাত ধরে চলচ্চিত্রে পা রেখেছিলেন নায়করাজের দুই ছেলে বাপ্পারাজ ও সম্রাট। বিশ্বের শোবিজাঙ্গনে বড় বড় তারকাদের উত্তরসূরিদের মতো বাংলাদেশি চলচ্চিত্রেও নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে পারেননি রাজ্জাকের দুই ছেলে। বাপ্পারাজ অনেকটা এগিয়ে থাকলেও সুবিধা করতে পারেননি ছোট ছেলে সম্রাট। নায়করাজ জীবিত থাকাবস্থায় অভিনয় ও পরিচালনা নিয়ে দুই ছেলে কিছুটা ব্যস্ত থাকলেও বর্তমানে দুজনেই মিডিয়া থেকে অনেকটা দূরে। ব্যবসায়িক কাজ ও পরিবার নিয়েই তাদের দিনরাত কেটে যাচ্ছে। তবে শূন্যতায়ও সবসময় বাবার উপস্থিতি অনুভব করেন বাপ্পা-সম্রাট। বড় ভাই ব্যবসা ও সংসার নিয়ে বেশি ব্যস্ত হয়ে পড়ায় বাবা রাজ্জাককে সময় দিতেন ছোট ছেলে সম্রাট। বাবার সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল মধুর। চলতে-ফিরতে সবসময় বাবার পাশে থাকতেন তিনি। সম্রাট বলেন, 'সন্তানের কাছে বাবার শূন্যতা কেমন তিনিই তো জানবেন, যার বাবা নেই। এ বিষয়টি প্রকাশ করার মতো ভাষা নেই। মনে হয়, আব্বা আমাদের ছেড়ে চলে যাননি। তিনি আমাদের সঙ্গেই আছেন। সব সময় আমরা এটাই অনুভব করি। আমরা সবাই একসঙ্গে খাচ্ছি, গল্প করছি, আড্ডা দিচ্ছি। হঠাৎ আব্বার চেয়ারটায় চোখ পড়লে খুব কষ্ট হয়। বাবার টাইম-টু-টাইম ফোন করে খবর নেওয়া, বিভিন্ন কাজে পরামর্শ দেওয়াটা খুব মিস করি। তিনি ছাড়া একেবারে শূন্য মনে হয়।' নায়করাজের মৃতু্যর পর তাদের দুই ভাইকে অভিনয়ে না দেখার কারণ নিয়ে সম্রাট জানান, ব্যবসা ও পারিবারিক বিষয় নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে তাদের। এখন অন্যরাও তাদের তেমন অভিনয়ে ডাকেন না। কেন ডাকেন না সেটিও জানা নেই দুই ভাইয়ের। এতে কোনো আপত্তি বা কষ্ট নেই বলেও জানান সম্রাট। বাবার পথে চলতে গিয়ে সম্রাট কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করলেও দর্শকের গ্রহণযোগ্যতা পাননি। অভিনয়ের বাইরে কিছু নাটক-টেলিফিল্ম পরিচালনা করেছেন সম্রাট। বাবার মৃতু্যর পর অভিনয় ও পরিচালনা দুটো থেকেই দূরে আছেন তিনি। তবে শাকিব খানের সঙ্গে 'ক্যাপ্টেন খান' ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন। এর আগে শাকিব খানের সঙ্গে 'শুটার' ছবিতে কাজ করেছেন সম্রাট। অভিনয় থেকে দূরে থাকার বিষয়ে সম্রাট চলচ্চিত্রের বর্তমান পরিবেশকেই দায়ী করেন। সম্রাটের মতো অভিনয় ও পরিচালনায় নেই বাপ্পারাজ। ১৯৮৬ সালে 'চাপাডাঙার বউ' ছবি দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছিল তার। তিন দশকেরও বেশি সময়ের ক্যারিয়ারে বাপ্পারাজ অভিনয় করেছেন শতাধিক চলচ্চিত্রে। নানা আমেজ, ইমেজ, স্বাদের গল্প ও চরিত্রে তাকে দেখেছেন দর্শক। তবে সবকিছু ছাপিয়ে ত্রিভুজ প্রেমের ছবিতে স্যাক্রিফাইসিং চরিত্রগুলোতে বা ব্যর্থ প্রেমিকের চরিত্রে বাপ্পারাজ এই দেশের সিনেমায় একটি ব্র্যান্ড, একটি খ্যাতি এবং দারুণ সাফল্যের উদাহরণ। তবে আজকাল আর অভিনয়ে নিয়মিত নন তিনি। বাবার মৃতু্যর পর নিজেকে আরও গুটিয়ে নিয়েছেন চলচ্চিত্র থেকে। প্রায় ১০ বছর পর তিনি কাজ করেন 'পোড়ামন-২' সিনেমায়। এরপর আর তাকে দেখা যায়নি। তবে চলতি বছরে সাফিউদ্দিন সাফি পরিচালিত 'সিক্রেট এজেন্ট' সিনেমায় অভিনয় করেছেন অতিথি চরিত্রে। এখানে তাকে দেখা যাবে পুলিশ কমিশনারের চরিত্রে। চলচ্চিত্রে অনিয়মিত হলেও নিয়মিত ডাক পান অভিনয়ে। কিন্তু মানহীন কাজের সঙ্গে আপস করতে নারাজ এই অভিনেতা। বাপ্পারাজ বলেন, 'এখন আর সিনেমা করার সেই পরিবেশটা নেই, যা আমাদের সময় ছিল। এই পরিবেশে আমার পক্ষে কাজ করা সম্ভব নয়। ধীরে ধীরে নিজেকে একদম গুটিয়ে নিতে চাই চলচ্চিত্র থেকে।' রাজ্জাকের জন্ম ১৯৪২ সালের ২৩ জানুয়ারি কলকাতার টালীগঞ্জে, বেড়ে ওঠাও সেখানে। পরে তিনি ঢাকায় চলে আসেন। প্রথমে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করলেও পরে অভিনয়ে জড়িয়ে পড়েন। ২১ আগস্ট ২০১৭ না-ফেরার দেশে চলে যান এই কিংবদন্তি অভিনেতা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে