বাড়ছে শীত: তালায় হকারের হাঁকডাকে মুখরিত ফুটপাততালা (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা অগ্রহায়ণের শেষে শীতের তীব্রতা বাড়তে শুরম্ন করেছে। সাতক্ষীরার তালা উপজেলায় ফুটপাতে জমে উঠেছে গরম কাপড়ের কেনাবেচা।
রাস্ত্মায় শীতবস্ত্রের পসরা সাজিয়ে বসেছে হকাররা। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত্ম হকারদের হাঁকডাকে মুখরিত হয়ে উঠেছে ফুটপাত।
সরেজমিনে দেখা যায়, শীত থেকে বাঁচতে তালা উপজেলার হাটবাজারগুলোতে নতুন ও পুরাতন শীতবস্ত্রের কেনাকাটা শুরু হয়েছে পুরোদমে। পুরাতন শীতবস্ত্রের পাশাপাশি তৈরি জ্যাকেট, সোয়েটার, কানটুপি, মোজা, হাতমোজা, মাপলার, ছোট বাচ্চাদের সোয়েটার বেচাকেনার ধুম পড়েছে। পুরাতন শীতবস্ত্রের দাম গতবারের তুলনায় এবার দ্বিগুণ বেড়েছে। তারপরও নতুনের চেয়ে দাম কম হওয়ায় তালা থানার গ্রামগঞ্জে দরিদ্র শ্রেণির মানুষরা পুরাতন শীতের পোশাক কিনছে।
ব্যবসায়ীরা জানান, গত বছরের তুলনায় কাপড়ের দাম এবার বেশ চড়া। গতবার বাচ্চাদের যে কাপড় ৪০-৫০ টাকার মধ্যে ছিল এবার সেটা ৮০-১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ১০০ কেজি ওজনের এক বেল ছোটদের শীতের কাপড়ের দাম ৮ হাজার থেকে ৯ হাজার টাকা ও ৮০ থেকে ১০০ কেজি ওজনের জ্যাকেট ও সোয়েটারে এক বেলের দাম পড়ছে ১২ হাজার থেকে ১৪ হাজার টাকা। তাইওয়ান, জাপান, কোরিয়া থেকে আসে পুরাতন শীত বস্ত্রগুলো।
ক্রেতারা জানান, নতুন কাপড়ের দামের পাশাপাশি পুরাতন কাপড়েরও দাম বেশি। যে পরিমাণ টাকা নিয়ে এসেছি তাতে কেনাকাটা করা সম্ভব না। এখানকার অধিকাংশ ক্রেতা শীতবস্ত্রের দাম অনেক বেশি বলে অভিযোগ করেন।
এ ছাড়া ব্যবসায়ীরা বলছেন, চলমান দেশের জিনিসপত্রের দামের ঊর্ধ্বগতির কারণে বাইরে থেকে পুরনো শীতবস্ত্র আমদানি করা সম্ভব হচ্ছে না। এ ছাড়া উৎপাদন খরচ বাড়ায় এবার শীতবস্ত্রের দাম ৪০ শতাংশ বেড়েছে। এ কারণে এ বছর দামও বেশি।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
স্বদেশ -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin