পোশাক শিল্পের ৩ প্রদর্শনী শুরুযাযাদি রিপোর্ট দেশের তৈরি পোশাক খাতের উন্নয়নে রাজধানীতে শুরু হয়েছে ৩টি আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী। রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরাতে একই ছাদের নিচে একই সময়ে আয়োজিত এসব প্রদর্শনী চলবে আগামী ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত। এ তিন প্রদর্শনীতে তৈরি পোশাক, পোশাকের লিংকেজ শিল্প এবং প্যাকেজিং সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রযুক্তির খবরাখবর পাবেন ক্রেতা ও ব্যবসায়ীরা।
'গার্মেন্টস বাংলাদেশ ২০১৬', 'ইয়ার্ন অ্যান্ড ফেব্রিক সোর্সিং ফেয়ার' ও 'গ্যাপেক্সপো ২০১৬ শীর্ষক এই প্রদর্শনী ৩টি বুধবার উদ্বোধন করেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। এর মধ্যে গার্মেন্টস বাংলাদেশের ১৫তম এবং ইয়ার্ন অ্যান্ড ফেব্রিক সোর্সিং ফেয়ার ও গ্যাপেক্সপো সপ্তম আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী এটি।
প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী বলেন, শিল্পের ব্যাকওয়ার্ড লিংকেজ হিসেবে জাতীয় অর্থনীতিতে তৈরি পোশাকের গুরুত্ব দিন দিন বাড়ছে। বর্তমানে এ শিল্পে প্রায় ২ লাখ শ্রমিক কর্মরত আছেন। প্রতি বছর পোশাক শিল্পে ১৩ শতাংশ হারে প্রবৃদ্ধি হচ্ছে। দেশে গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং খাতে প্রায় ১ হাজার ৩০০ শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। এ শিল্পে উৎপাদিত ৩০ থেকে ৩৫ ধরনের পণ্য পোশাক শিল্পে সরাসরি ব্যবহৃত হচ্ছে। ২০১৪-১৫ অর্থবছরে এখাত থেকে প্রায় ৫.৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছে।

গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্পের জন্য একটি টেস্টিং ল্যাবরেটরি স্থাপন করা হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং ইন্সটিটিউট স্থাপনের জন্য সমীক্ষা প্রতিবেদন তৈরির কর্মসূচি রয়েছে। এটি বাস্তবায়িত হলে শিল্প খাতের উৎপাদিত পণ্যের গুণগতমান ও জনবলের দক্ষতা বাড়বে।
প্রদর্শনীতে ৩০টি দেশের ৩০০টিরও বেশি প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত প্রদর্শনী চলবে।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close