পূর্ববর্তী সংবাদ
বিদেশে নালিশ দায়িত্বশীল হআচরণ নয় : কাদেরযাযাদি রিপোর্ট বুধবার ঢাকার গাবতলী বাসটার্মিনাল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের -যাযাদিবিএনপি নেতাদের ভারত সফরের দিকে ইঙ্গিত করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিদেশে 'নালিশ' জানানো কোনো দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দলের আচরণ নয়।
ঈদের আগে বুধবার ঢাকার গাবতলী বাস টার্মিনাল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নে বিএনপি নেতাদের সফর নিয়ে এই প্রতিক্রিয়া জানান তিনি।
সম্প্রতি ভারত সফর করে এসে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরম্ন মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, তারা বাংলাদেশের আগামী নির্বাচন নিয়ে দেশটির 'দৃষ্টিভঙ্গির' পরিবর্তন দেখেছেন।
বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি ও বিএনপিকে নিয়ে 'অপপ্রচারের' কথা ভারতের নেতা ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের কাছে তুলে ধরেছেন বলেও জানান তিনি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, 'আমরা তো ক্ষমতার জন্য ভারতে যাইনি। আমরা ভারতে গিয়ে তিস্ত্মার কথা বলেছি, রোহিঙ্গা সমস্যা, আমাদের জাতীয় স্বার্থ নিয়ে কথা বলেছি। বিএনপি জাতীয় স্বার্থ নিয়ে কি কোনো কথা বলেছে?
তারা গেছে ইলেকশনে তাদের সাহায্য করতে এবং নালিশ করতে। দেশে বসেও নালিশ, বিদেশে গেলেও নালিশ। কথায় কথায় অভ্যন্ত্মরীণ ব্যাপার নিয়ে বিদেশিদের কাছে নালিশ করা দেশের জন্য শুভ নয়। এটা দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দলের পরিচয় হতে পারে না।'
আমির খসরম্ন বলেছিলেন, বাংলাদেশের নির্বাচনের ক্ষেত্রে ভারতের ভূমিকা যদি 'দৃশ্যমান হয়', সেটা দুই দেশের সম্পর্কের জন্য ইতিবাচক।
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, 'আমাদের দেশের জনগণ যে রায় দেবে, সেই ক্ষমতায় আসবে। এখানে ভারত কি আমাদের দেশের জনগণকে প্রভাবিত করবে? আমার তো মনে হয় না।
এখানে কোনো বিদেশি শক্তির নির্বাচনে হস্ত্মক্ষেপ করার কোনো সুযোগ নেই। আর ভারত এ যাবত আমার জানা মতে কখনো হস্ত্মক্ষেপ করেনি।
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে মন্ত্রী কাদের বলেন, 'সিএমএইচএর চেয়ে ভালো ব্যবস্থা বাংলাদেশের কোথায় আছে? বঙ্গবন্ধুতেও ভালো চিকিৎসক আছে, এরপরও যেহেতু তারা চান না, তাহলে সবচেয়ে ভালো যে হাসপাতাল আছে, বাংলাদেশে সেটা হচ্ছে সিএমএইচ।'
বিএনপি তাদের নেত্রীকে ইউনাইটেড হাসপাতালে নেয়ার দাবি তুলেছে। খালেদা জিয়াও অন্য কোনো হাসপাতালে যেতে অনাগ্রহী।
সিএমএইচে নেয়ার প্রস্ত্মাব গ্রহণ করতে বিএনপিকে আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, 'তাদের প্রত্যাখ্যান করা উচিত নয়, যদি তারা চিকিৎসা চান। আর যদি রাজনীতি করতে চান, সেটা ভিন্ন কথা।'
আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের জোট শরিকদের আসন বেশি চাওয়ার খবর প্রকাশের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেন, 'এ ব্যাপারে এখনো দলীয়পর্যায়ে আলোচনা শুরম্ন করিনি। নেত্রী বিদেশ থেকে ফিরেছেন, আমরা ঈদের পর এসব নিয়ে ভাবনা-চিন্ত্মা করব।'
কাদের এ প্রসঙ্গে বলেন, 'অবশ্যই উইনেবল প্রার্থী হতে হবে, সে যে দলেই হোক। আমরা হারার জন্য মনোনয়ন দেব না। সে আওয়ামী লীগের হোক বা শরিক কেউ হোক।'
 
পূর্ববর্তী সংবাদ
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close