পরবর্তী সংবাদ
চাপা বেদনার ঈদ মুস্ত্মাফিজেরক্রীড়া প্রতিবেদক আইপিএল খেলতে গিয়ে বাঁ-পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলে চোট পাওয়ায় সদ্য সমাপ্ত আফগান সিরিজ খেলতে পারেননি পেসার মুস্ত্মাফিজুর রহমান। চোটাক্রান্ত্ম আঙ্গুল সারিয়ে তুলতে ই?তোম?ধ্যেই পুনর্বাসন শুরম্ন করে দিয়েছেন টাইগার এই কাটার স্পেশালিস্ট। কিন্তু ১৮ দিনেও ফিজের উন্নতি দৃশ্যমান না হওয়ায় স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৪ জুলাই থেকে অ্যান্টিগুয়ায় অনুষ্ঠেয় দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে তাকে খেলতে পারছেন না মুস্ত্মাফিজ।
ইনজুরিতে খেলতে না পারায় আফসোসে পুড়ছেন লাল-সবুজের ক্রি?কে?টের এই পেস সেনসেশন। সেটা অন্য কোনো কারণে নয়। দেশের হয়ে বল হাতে প্রতিপক্ষের শিবিরে কাঁপন ধরাতে পারবেন না বলেই। আর সেজন্য তিনি ভাগ্যকেই দুষছেন।
গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় ঈদ উদযাপন করতে তিনি ঢাকা ছাড়েন একরাশ মানসিক চাপ নিয়ে। কারণটিও সঙ্গত। ঈদ শেষে তার সতীর্থরা যখন ওয়েস্টইন্ডিজ সিরিজকে সামনে রেখে মিরপুরে ব্যাটে-বলে অনুশীলন করবেন তখন তিনি ব্যস্ত্ম থাকবেন চোট কাটিয়ে মাঠে ফেরার যুদ্ধে। দলের সবাই যখন সিরিজে অংশ নিতে দেশ ছাড়ার প্রস্তুতি নেবেন তিনি তখন মাত্র বোলিং শুরম্ন করবেন। তাছাড়া প্রথম টেস্ট থেকে ছিটকে যাওয়ার বেদনা তো আছেই।
অনুমিতভাবেই তাকে পুরো ঈদ অবকাশেই বয়ে বেড়াতে হবে। সব মিলিয়ে এবারের ঈদটি তার জন্য বর্ণহীন, চাপা বেদনার এক উৎসবের নামান্ত্মর। তবে তার সেই বেদনার প্রশমন কিছুটা হলেও গর্ভধারিণী মা, জন্মদাতা পিতা ও স্বজনদের মুখ দেখে মিলতে পারে।
গতকাল বুধবার মিরপুরস্থ বিসিবি একাডেমি মাঠে গণমাধ্যমকে মুস্ত্মাফিজ বলেন, 'খেলতে গেলে এমন ইনজুরি হবেই। এখন আমার কপালে এমন ছিল, কি করার আছে।'
'আফসোস তো থাকারই কথা। সব ক্রিকেটারের জন্যই এটা সত্য। কি করব এখন, আমি চেষ্টা করি, সব সময় ফিট থাকার। কিন্তু ইনজুরি হলে কিছু করার নেই, যোগ করেন ফিজ।
ইনজুরি জয় করে দ্বিতীয় টেস্ট দিয়ে মাঠে ফিরতে বিসিবির ফিজিওদের সঙ্গে চলছে তার প্রাণপণ চেষ্টা। চোটাক্রান্ত্ম আঙ্গুল সারিয়ে তুলতে পুনর্বাসন শুরম্ন করে দিয়েছেন টাইগার এই কাটার স্পেশালিস্ট।
তিনি আরও বলেন, 'আমার ইনজুরি হয়েছে, এখন আমি চেষ্টা করছি কীভাবে দলে থাকা যায়। আমাকে পুনর্বাসনের যেই পরিকল্পনা দেয়া হয়েছে, সেটা মেনে চলার চেষ্টা করছি।'
ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ক্যারিয়ারে এই নিয়ে মোট চারবার ইনজুরিকে আলিঙ্গন করলেন মুস্ত্মাফিজ। প্রথমটি ছিল ২০১৬ সালে। প্রথমবারের মতো আইপিএল খেলে মাস খানেক বাদে ইংল্যান্ডে কাউন্টি খেলতে গিয়ে কাঁধে ব্যথা পান ফিজ। ওই প্রথম তার শরীরে ইনজুরি হানা দেয়। দ্বিতীয় দফায় তাকে ইনজুরি আলিঙ্গন করে ওই বছরের শেষে নিউজিল্যান্ড সফরে। কোমরে চোট পেয়ে ছিটকে যান সিরিজ থেকে। এরপর তৃতীয় দফায় ইনজুরিতে পড়েন গেল বছরের অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে। স্বাগতিকদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে ১৪ অক্টোবর অনুশীলনে ফুটবল খেলতে গিয়ে বাঁ-পায়ের গোড়ালি মচকে যাওয়ায় দেশে ফেরেন। সেই চোট কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই আবার ইনজুরিতে পড়লেন এই বাঁহাতি পেস ওয়ান্ডার।
তার কথায় সেই ইঙ্গিতই মিলল, 'বাড়িতে অনেক দিন পর যাচ্ছি, ঈদে বাড়ি গেলে ভালো লাগবে। বাবা-মা ও পরিবারের সবাই থাকবে। টেস্ট দলে থাকতে পারলেও ভালো লাগবে। এখন যেমন শুধু পরিবার নিয়ে থাকা লাগবে, দলের সাথে থাকলে দুই দিক থেকেই ভালো লাগত।'
 
পরবর্তী সংবাদ
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close