কুড়িয়ে পাওয়া টাকা থানায় জমারিকশাচালক ফিরোজ মিয়ার সততাশ্রীপুর (গাজীপুর) সংবাদদাতা রিকশাচালক ফিরোজ মিয়া -যাযাদিগত বৃহস্পতিবার গাজীপুরের শ্রীপুর-মাওনা সড়কের কেওয়াবাজার থেকে রিকশা নিয়ে মাওনা চৌরাস্ত্মার দিকে যাচ্ছিলেন রিকশাচালক ফিরোজ মিয়া। মাওনা চৌরাস্ত্মা-সংলগ্ন সড়কের ওপর রাবার দিয়ে পেঁচানো অনেকগুলো টাকার একটি বান্ডেল দেখতে পান। আশপাশে তাকিয়ে দেখেন কেউ নেই। পরে হাতে নিয়ে দেখেন এক হাজার টাকার অনেকগুলো নোট। এভাবেই ঘটনার বর্ণনা করছিলেন ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাচালক ফিরোজ মিয়া (৩৭)। তিনি নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলার মাইপুকুরিয়া গ্রামের সুরম্নজ আলীর ছেলে। বাবা-মা, স্ত্রী-সন্ত্মানদের নিয়ে তিনি শ্রীপুর পৌর এলাকায় ভাড়া থাকেন। অভাবের সংসার তাই; স্ত্রী আলপনা আক্তারও স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন। ফিরোজ মিয়া বলেন, 'অনেকগুলো টাকা, কার হাতে দেই, টাকাগুলোই বা কার? টাকাগুলো গুণেও দেখিনি। পরে ভেবেচিন্ত্মে সড়কের পাশের মায়ের দোয়া টাইলস অ্যান্ড স্যানিটারি দোকান মালিক মুজিবুর রহমানের কাছে জমা দেই।' মুজিবুর রহমান জানান, 'ফিরোজ মিয়া রাস্ত্মায় টাকাগুলো কুড়িয়ে পেয়ে আমার কাছে এনে দেন। পরে টাকাগুলো গুণে দেখা গেছে ৯৯টি এক হাজার টাকার নোট ও দুটি ৫০০ টাকার নোট। মোট এক লাখ টাকার বান্ডেল। ফিরোজ মিয়া আমার কাছে টাকা রেখে চলে যান। এদিকে পৌর এলাকার বৈরাগীরচালা গ্রামের আবদুল মোতালেবের ছেলে আবদুল মান্নান শিকদার (৩৭) তার ফেসবুক ওয়ালে টাকা হারানোর স্ট্যাটাস দেন। তিনি বলেন, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মোটরবাইকযোগে মাওনা চৌরাস্ত্মা এক্সিম ব্যাংকে মাসিক কিস্ত্মি পরিশোধ করতে টাকা জমা দিতে যাচ্ছিলেন। ব্যাংকের গিয়ে পকেটে হাত দিয়ে দেখেন টাকার বান্ডেলটি নেই। অনেক খোঁজাখুঁজির পর টাকা হারানোর বিষয়ে শ্রীপুর থানায় লিখিতভাবে অবহিত করেন। এদিকে মুজিবুর রহমান রিকশাচালক ফিরোজ মিয়াকে সঙ্গে নিয়ে টাকাগুলো থানায় জমা দেন। শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ হেলাল উদ্দিন বলেন, টাকা পাওয়ার পর সন্ধ্যায় অবহিতকারী আবদুল মান্নান শিকদারকে ডেকে থানায় আনা হয়। পরে প্রকৃত মালিক হিসেবে চিহ্নিত করে টাকা তার হাতে তুলে দেয়া হয়। এ সময় মান্নান শিকদার পুরস্কার হিসেবে ফিরোজ মিয়াকে ১৫ হাজার দেন। শ্রীপুর-কালিয়াকৈর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) শাহিদুল হক জানান, সততার মানদ- যে ধনী-গরিবের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়, এর প্রমাণ এই রিকশাচালক ফিরোজ মিয়া। নিজে অভাবের মধ্যে থেকেও তিনি তার সততায় অবিচল ছিলেন। সে সত্যিই আমাদের আদর্শ।

 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
স্বদেশ -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close