স্ত্রীর অধিকারের দাবিউপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের ঘর তছনছমৌলভীবাজার প্রতিনিধি নাজমা বেগম নামে মৌলভীবাজারের রাজনগর থানার এক নারী এসআই স্ত্রীর অধিকার পেতে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারম্নক আহমদের বাড়িতে গিয়ে ঘর তছনছ করেছেন এমন অভিযোগ উঠেছে। তিনি ঘরের মালামাল ভাংচুর ছাড়াও বাড়ির কেয়ারটেকারের ওপর হামলা চালিয়েছেন-এমন অভিযোগের ভিত্তিত্বে এসআই নাজমা বেগমকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে। এ ঘটনায় জেলা জুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। রাজনগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শ্যামল বণিক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, বিষয়টি মৌলভীবাজার পুলিশ সুপারকে জানালে তিনি এসআই নাজমাকে তাৎক্ষণিক ক্লোজ করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করেন। তিনি আরও জানান, অসৌজন্যমূলক আচরণের কারণে তাকে ক্লোজ করা হয়েছে। জানা যায়, ২০১৪ সালের মাঝামাঝি সময়ে রাজনগর থানায় যোগ দেন উপ-পরিদর্শক নাজমা বেগম। পরবর্তীতে ট্রেনিং ও জুড়ি উপজেলায় আরও তিন মাস কাটিয়ে তিনি ফের রাজনগর থানায় যোগ দেন। এরই মধ্যে রাজনগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফারম্নক আহমদ মামলাসংক্রান্ত্ম বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ওই থানায় যাওয়া-আসার সুবাদে পরিচয় হয় দুজনের। এক সময় দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠলে বিষয়টি বিয়ে পর্যন্ত্ম গড়ায়। এসআই নাজমা বেগম ও ভাইস চেয়ারম্যান ফারম্নক আহমদ উভয়েই বিবাহিত ছিলেন। তাদের আগের সন্ত্মানও রয়েছে। দু'জনের বিয়ের পর ভাইস চেয়ারম্যান ফরম্নক আহমদ নাজমাকে ঘরে তুলছেন না এমন খবর ও ঘোরপাক খায় সর্বমহলে। আর ওই কারণেই গত বৃহস্পতিবার বিকালে এসআই নাজমা বেগম ফারম্নক আহমদের বাড়ি যান। একপর্যায়ে নাজমা ঘরের মালামাল তছনছ করাসহ কেয়ারটেকারের ওপর হামলা করেন এমন অভিযোগ উঠে। এ বিষয়ে জানতে সোমবার বিকালে এসআই নাজমা বেগমের মুঠোফোনে কথা বললে তিনি এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
স্বদেশ -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close