প্রস্ত্মাবিত 'ফুলবাড়ী সেতু' দেখতে মানুষের ভিড়ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) সংবাদদাতা ফুলবাড়ী উপজেলার ধরলা নদীর ওপর নির্মিত প্রস্তাবিত ফুলবাড়ী সেতু - যাযাদিকুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলা সদর থেকে পশ্চিম দিকে ২ কিলোমিটার পর অবস্থিত ফুলবাড়ী টু লালমনিরহাট সংযোগের ধরলা নদীর উপর নির্মাণাধীন ৯৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের দ্বিতীয় ধরলা সেতু বা এলাকাবাসীর প্রস্ত্মাবিত 'ফুলবাড়ী সেতু'টি এখন দর্শনার্থীদের জন্য দেখার আর্কষণীয় স্থান হয়েছে। কুড়িগ্রামের অন্যান্য আকর্ষণীয় স্থানের মধ্যে ধরলা নদীর পাড়ের 'ফুলবাড়ী সেতু'টি অন্যতম। অন্যান্য দিনের চেয়ে পহেলা বৈশাখের উৎসবমুখী ছুটির দিনটিতে এই সেতু দেখার জন্য ধরলা নদীর পাড়ে দর্শনার্থীদের ভিড় পড়ে যায়। প্রকৃতিপ্রেমী ভ্রমণপিপাসু শত শত নারী-পুরম্নষের আগমনে ধরলা নদীর পাড়টি বৈশাখের আনন্দে হয়েছে মুখরিত। দুষ্ট ছেলের দল বোতলে রঙ ঢুকিয়ে রঙের হুলিয়া খেলে। কেউ কেউ ধরলা নদীর তীরে বাঁধা মাঝির নৌকা নিয়ে ধরলা নদীর হাঁটু পানিতে ভেসে বেড়ায়। প্রেমিক প্রেমিকারা বৈশাখের এই দিনটিতে কিছু সময় ধরলা নদীর পাড়ে কাটিয়ে যান। এখনও বৃহৎ এই সেতুটি জনসাধারণের চলাচলের জন্য আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন না হওয়ায় চলাচলের নিষেধাজ্ঞায় সেতুটির পূর্ব-পাড়ে পুলিশ পাহারা বসানো হয়েছে। এতে দর্শনার্থীরা দূর থেকে সেতুটি দেখে যাচ্ছেন। স্থানীয় খড়িবাড়ী এলাকা থেকে আসা দর্শনার্থী মুকুল ম-ল (২৪) ও পলাশ মিয়া (২৫) জানান, আমরা পহেলা বৈশাখের আনন্দ সময়টি কাটাতে এই বৃহৎ সেতুটি দেখতে এসেছি। আমাদের খুব ভালো লেগেছে। তবে সেতুটির পূর্ব পাড়ের মূল ফটকে পুলিশি পাহারা থাকায় সেতুটির উপর দিয়ে হাঁটতে না পেরে তারা একটু কষ্ট পেয়েছেন বলে জানান। দর্শনার্থী আরিফিন খুশি (২০) ও সামিয়া সূচনা (১৬) জানান, তারা বৈশাখের আনন্দঘন দিনটির একটি মুহূর্ত ধরলা নদীর পাড়ে কাটাতে পেরে তারা আনন্দিত হয়েছেন।
হধরলা নদীর উপর নির্মিত বৃহৎ 'ফুলবাড়ী সেতু'টি দেখে তারা অভিভূত। এই সেতুটির সঙ্গে তাদের নিজের ছবি তারা ক্যামেরায় বন্দি করেছেন বলে জানান। এ সময় তারা সেতুটি দ্রম্নত সময়ে জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করার দাবি করেন। সেতুটির মূল ফটকে পাহারায় থাকা ফুলবাড়ী থানা পুলিশ সদস্যরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ধরলা নদীর পাড়ের নির্মাণাধীন বৃহৎ সেতুটি এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়নি। সেতুটি দেখতে আসা অনেক মানুষের ভিড়ে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে পারে এ জন্য সেতুটির মূল ফটকে পুলিশি পাহারা বসানো হয়েছে বলেও জানান তারা।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
স্বদেশ -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close