আদালতে হাজিরা দিলেন সিলেট ও হবিগঞ্জের দুই মেয়রসিলেট অফিস সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়া হত্যা মামলায় আদালতে হাজিরা দিয়েছেন সদ্য জামিনে মুক্ত হওয়া সিলেট সিটি করপোরেশনের সাময়িক বরখাস্ত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও হবিগঞ্জ পৌরসভার সাময়িক বরখাস্ত মেয়র জি কে গউছ। বুধবার দুপুরে সিলেট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মকবুল আহসানের আদালতে হাজিরা দেন তারা। শুনানি শেষে ১৮ জানুয়ারি পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেছেন আদালত।
বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিশেষ সরকারি কৌঁসুলি কিশোর কুমার কর জানান, কোনো সাক্ষী না থাকায় বিচারক শুনানি শেষে ১৮ জানুয়ারি পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেছেন।
২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বৈদ্যের বাজারে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভা শেষে ফেরার পথে গ্রেনেড হামলায় নিহত হন সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়াসহ পাঁচজন। মামলার সম্পূরক অভিযোগপত্রে নাম আসায় ২০১৪ সালের ৩০ ডিসেম্বর হবিগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে আত্মসমর্পণ করার পর থেকে কারাগারে ছিলেন দুজন। কিবরিয়া হত্যা মামলার পর এ ঘটনায় দায়ের করা বিস্ফোরক মামলায়ও অভিযুক্ত হন তারা।
এ ছাড়া ২০০৪ সালের ২১ জুন দিরাইয়ে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের জনসভায় গ্রেনেড হামলা হলে যুবলীগের এক কর্মী নিহত ও ২৯ জন আহত হন। ওই ঘটনায় দিরাই থানায় করা হত্যা ও বিস্ফোরক আইনের মামলায় আরিফুলসহ ১৩ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। পরে ওই দুটি মামলায় কারাবন্দী অবস্থায় আরিফুল ও গউছকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।
উচ্চ আদালত থেকে পর্যায়ক্রমে চারটি মামলা থেকে জামিন পাওয়ায় ৪ জানুয়ারি সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন আরিফুল ও গউছ।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
প্রথম পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin