প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছুটি ৭৫ দিন, বার্ষিক কর্মঘণ্টা অনুমোদনযাযাদি রিপোর্ট চলতি বছরে সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৭৫ দিন ছুটি অনুমোদন এবং বার্ষিক কর্মঘণ্টা ও পরীক্ষা সূচি অনুমোদন করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।
এ ছাড়া জাতীয় দিবসগুলো যথাযোগ্য মর্যাদায় বিদ্যালয়ে পালনের নির্দেশনা দিয়ে সংরক্ষিত ছুটি থানা/উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা অনুমোদন করতে পারবেন বলে জানানো হয়েছে।
সরকারি-বেসরকারি মাধ্যমিক ও নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এর আগে ২০১৭ সালে ৮৫ দিন ছুটি অনুমোদন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আদেশে জানানো হয়, প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর কার্যক্রম সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত চলবে। বৃহস্পতিবার বিদ্যালয় খোলা থাকবে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত।
আর রোজার সময় সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা কার্যক্রম চলবে।
দুই শিফট বিদ্যালয়ের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির বার্ষিক কর্মঘণ্টা ৬০০ ঘণ্টা এবং এক শিফট বিদ্যালয়ের জন্য বার্ষিক ৯২১ ঘণ্টা নির্ধারণ করা হয়েছে।
তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণিতে দুই শিফট বিদ্যালয়ে ৭৯১ ঘণ্টা এবং এক শিফট বিদ্যালয়ে বার্ষিক কর্মঘণ্টা হবে এক হাজার ২৩১ ঘণ্টা।
পরীক্ষাসূচি অনুযায়ী, ২৩ থেকে ৩০ এপ্রিলের মধ্যে প্রথম সাময়িক, ৬ থেকে ১৩ আগস্টের মধ্যে দ্বিতীয় সাময়িক এবং ১১ থেকে ১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে বার্ষিক পরীক্ষা (প্রথম-চতুর্থ শ্রেণি) নিতে হবে।
এছাড়া পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার জন্য ২০ থেকে ৩০ নভেম্বর সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin