শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯
walton1

কোন খাতে কত বাড়ল গ্যাসের দাম?

যাযাদি ডেস্ক
  ১৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫:০৬
ছবি: সংগৃহীত

গ্যাসের দাম বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। বুধবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে এই প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকারের বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়।

প্রজ্ঞাপনে বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য প্রতি ঘনমিটার গ্যাসের দাম পাঁচ টাকা দুই পয়সা থেকে বাড়িয়ে ১৪ টাকা করা হয়েছে। ক্যাপটিভ বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য ১৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩০ টাকা। আর সার কারখানার জন্য বাড়ানো হয়নি, সেটি আগের মতো অর্থাৎ ১৬ টাকাই রয়েছে।

শিল্প-কারখানার ক্ষেত্রে বৃহৎ শিল্পে প্রতি ঘনমিটার গ্যাসের দাম ১১ টাকা ৯৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। মাঝারি শিল্পে ১১ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা এবং ক্ষুদ্র শিল্পে ১০ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে।

বাণিজ্যিক গ্রাহকদের (হোটেল, রেস্তোরাঁ) ক্ষেত্রে প্রতি ইউনিটের দাম ২৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩০ টাকা। তবে সিএনজি স্টেশনে গ্যাসের দাম আগের মতোই প্রতি ঘনমিটার ৪৩ টাকা থাকছে।

এদিকে আবাসিকে এবার গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়নি, সেটি আগের মতোই রয়েছে। রান্নার গ্যাসের জন্য দুই চুলার (ডাবল বার্নার) মাসিক বিল ১০৮০ টাকা, এক চুলার মাসিক বিল ৯৯০ টাকাই রয়েছে। আর প্রিপেইড মিটারে প্রতি ইউনিট ১৮ টাকা।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়েছে, এই প্রজ্ঞাপনের অধীন প্রাকৃতিক গ্যাসের ভোক্তা পর্যায়ের গ্যাসের পুনর্নির্ধারিত মূল্য ফেব্রুয়ারি মাস হতে কার্যকর হবে। গৃহস্থালি ব্যতীত অন্যান্য গ্রাহকশ্রেণি, যথা: বিদ্যুৎ (সরকারি, আইপিপি ও রেন্টাল বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র), ক্যাপটিভ বিদ্যুৎ (ক্যাপটিভ পাওয়ার প্ল্যান্ট, স্মল পাওয়ার প্ল্যান্ট ও বাণিজ্যিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র), সার, শিল্প, চা-শিল্প (চা-বাগান), বাণিজ্যিক (হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট ও অন্যান্য) এবং সিএনজি এর ক্ষেত্রে প্রতি ঘনমিটারে (মাসিক অনুমোদিত লোডের বিপরীতে) ০.১০ টাকা হারে ডিমান্ড চার্জ প্রযোজ্য হবে।

তবে বিদ্যুৎ গ্রাহকশ্রেণির আওতাধীন কোনো বিদ্যুৎকেন্দ্রে এবং সার গ্রাহকশ্রেণির আওতাধীন কোনো সার কারখানায় কোনো মাসে গ্যাস সরবরাহকারী/বিতরণ কোম্পানি কর্তৃক ১৫ (পনেরো) দিন বা তার বেশি গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখা হলে উক্ত গ্রাহকের ক্ষেত্রে উক্ত মাসে ডিমান্ড চার্জ প্রযোজ্য হবে না।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে