বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

বোদায় মরিচের চাষের বাম্পার ফলন

ভালো দাম পেয়ে কৃষকের মুখে হাসি
বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি
  ০৩ মে ২০২৩, ০৯:৪৯
বোদায় মরিচের চাষের বাম্পার ফলন

পঞ্চগড়ের বোদায় চলতি মৌসুমে মরিচ চাষের বাম্পার ফলন হয়েছে।

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এই ফলন হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তারা। ভাল ফলনের পাশাপাশি মরিচের ভালো দাম পেয়ে খুশি চাষিরা।

বর্তমান বাজারে মরিচের ভাল দাম পেয়ে কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, এ বছর এই উপজেলায় ২০০০ হেক্টর জমিতে ঝাল মরিচ ও স্থানীয় উন্নত জাতের মরিচের চাষ হয়েছে। স্থানীয় বাজার গুলো ঘুরে জানা যায়, বর্তমানে ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া শুকনো মরিচ বিক্রি হচ্ছে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা কেজি দরে। এ দিকে উপজেলার উৎপাদিত কাঁচামরিচ ও শুকনো মরিচ প্রতিদিনই রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে কিনতে আসছেন পাইকাররা।

প্রতি সপ্তাহের শনি ও বুধবার বোদা হাট থেকে মরিচ কিনে নিয়ে যান দেশের বড় মসলা কোম্পানির প্রতিনিধিসহ বড় বড় ব্যবসায়ীরা।

এ বিষয়ে উপজেলার বেংহারী বনগ্রাম ইউনিয়নের ছেতনাইপাড়া গ্রামের মরিচ চাষি ওসমান গনি জানান, তিনি ৪২ শতাংশ জমিতে এ বছর মরিচের চাষ করেছেন। এতে তার খরচ হয়েছে ৪০ হাজার টাকা। কাঁচামরিচ বিক্রি করেও চার মণ মরিচ শুকনো উত্তোলন করেছেন। ক্ষেতে যে পরিমান মরিচ রয়েছে তাতে আরো ৪/৫ মণ মরিচ উত্তোলন করা যাবে এতে বর্তমান বাজারে শুকনা মরিচ ৮০ হতে ৯০ হাজার টাকায় বিক্রি করতে পারবেন বলে তিনি আশা করেছেন।

আরো কথা হয় ঝলইশালশিরি ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের কৃষক দেলোয়ার হোসেন এর সাথে, তিনি বলেন ১ বিঘা জমিতে মরিচের চাষ করেছি। এরই মধ্যে ১০ মণ কাঁচামরিচ বিক্রি করেছি। আরো ৪ মণ মরিচ শুকিয়ে রেখেছি। বতৃমানে ক্ষেতে যে পরিমাণ মরিচ রয়েছে তাতে আরো তিনি ৫ মণ শুকনা মরিচ উত্তোনন করতে পারবেন, তাহলে লাখ টাকার মরিচ বিক্রি করতে পারবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

এ ব্যপারে উপজেলা কৃষি অফিসার আহম্মেদ রাশেদ উদ নবী বলেন, চলতি বছর এই উপজেলায় ২০০০ হেক্টর জমিতে মরিচের চাষ হয়েছে। মরিচের বাম্পার ফলন ও ভালো দাম পেয়ে কৃষকরা খুব খুশি হয়েছেন। আগামীতে তারা আরো বেশি জমিতে মরিচ চাষে আগ্রহী হবে বলে তিনি জানান।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে