শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০
walton

বাণিজ্য মেলায় ক্রেতা টানতে বিশেষ ছাড়

যাযাদি রিপোর্ট
  ২৮ জানুয়ারি ২০২৪, ১০:১১

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীর সংখ্যা বেড়েছে। শনিবার সরকারি ছুটির দিন থাকায় মেলা প্রাঙ্গণে বিভিন্ন বয়সি মানুষকে ভিড় করতে দেখা যায়। যা ছিল চোখে পড়ার মতো। তবে ক্রেতা টানতে ব্যবসায়ীরা দিচ্ছেন বিশেষ ছাড়। বেচাকেনা নিয়েও স্বস্তি প্রকাশ করেছেন বিক্রেতারা। অভিযোগও রয়েছে বেশি দাম রাখার। এদিকে, মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, এখনো পুরোপুরি শেষ হয়নি অনেক স্টলের নির্মাণকাজ। তবে দ্রুত গুছিয়ে ওঠার চেষ্টা করছেন সংশ্লিষ্টরা। অন্যদিকে, এশিয়ান হাইওয়ে বাইপাস সড়কে যানজটের কারণে ভোগান্তির শিকার হয়েছেন দর্শনার্থী ও ক্রেতারা। যানজট পুরোপুরি নিরসন না হলে মেলায় আসা ক্রেতাদের সংখ্যা কমে যেতে পারে বলে ধারণা করছেন ব্যবসায়ীরা।

সরেজমিন দেখা যায়, মেলার সপ্তম দিন শনিবার দুপুর ১২টার পর থেকেই দলে দলে দর্শনার্থী ও ক্রেতারা আসতে শুরু করেন। জমে ওঠে মেলা। গত ২১ জানুয়ারি মেলা উদ্বোধনের পর থেকে দর্শনার্থীর সংখ্যা তেমন বেশি না থাকলেও শুক্রবারও একই চিত্র ছিল। বিভিন্ন দেশের পণ্যের স্টল থাকলেও দেশীয় উদ্যোক্তাদের পণ্যে বেশি আগ্রহ দেখান ক্রেতা-দর্শনার্থীরা।

মেলায় পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ঘুরতে এসেছেন মিরপুর থেকে শান্ত ইসলাম। তিনি বলেন, ছুটির দিন, তাই পরিবারের সবাইকে নিয়ে চলে এলাম। মেলা ঘুরে বিভিন্ন পণ্য দেখছি। পছন্দ হলেই কিনব।

রাজধানীর মাতুয়াইল থেকে কয়েকজন বন্ধু মিলে মেলায় এসেছেন রকি। তিনি বলেন, আমরা ছুটির দিন ঘুরতে এসেছি। কদিন পর মেলায় ভিড় বেড়ে যাবে এ কারণে আসা। তবে ছুটির দিন হওয়ায় ভিড় লেগেছে।

কোনো কিছু কিনেছেন কিনা জানতে চাইলে রকি বলেন, এখন স্টল-প্যাভিলিয়নের অফারগুলো দেখছি। কেনার ইচ্ছা তেমন নেই। তবে দামে মিলে গেলেও কিনতে পারি।

প্রকাশ মণ্ডল স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে এসেছেন মেলায়। তিনি বলেন, মেলাতে গতবার আসা হয়নি। এবার প্রথম দিকেই এসেছি। মেলায় ক্রোকারিজ আইটেমে ছাড় থাকে। এ কারণে পরিবার নিয়ে আসা। কিছু পোশাক কিনতে চাই, যদি সাধ্যের মধ্যে থাকে।

ক্রেতা টানতে ছাড়

এদিকে, মেলায় ক্রেতা টানতে বিশেষ ছাড় ও অফার নিয়ে হাজির হয়েছে বিভিন্ন স্টল-প্যাভিলিয়ন। খাদ্যপণ্যের স্পেশাল ছাড় দিচ্ছে বিস্ক ক্লাব। তাদের স্টলে ওয়েফার, কুকিজ ও কেকের স্পেশাল বক্সে ৩১০ টাকার আইটেম পাওয়া যাচ্ছে ২৪৯ টাকায়। এর সঙ্গে বক্স দেওয়া হচ্ছে ফ্রি। সেলস এক্সিকিউটিভ শাহরিয়ার জামান বলেন, স্টলের প্রতিটি পণ্যেই রয়েছে বিশেষ ছাড়। এ ছাড়া বিভিন্ন কম্বো ও ফ্যামিলি কম্বো প্যাকেও রয়েছে আকর্ষণীয় ছাড়। মি. নুডলস এর কম্বো প্যাকের সঙ্গে টমেটো সসের বোতল দেওয়া হচ্ছে ফ্রি।

পোশাক ও ক্রোকারিজ আইটেমেও রয়েছে ছাড়। মেলায় ক্লাসিকাল হোমটেক্স বিশেষ ডিসকাউন্টে কম্বল, কমফি, ব্রেড কাভার, পিলো, কাশমিরি চায়না পর্দা বিক্রি করছে।

হোমটেক্সও দিচ্ছে কম্বল, বিছানার চাদরসহ আরও কয়েকটি পণ্য। প্রভিডেন্স দিচ্ছে জুতা, জ্যাকেট, শার্ট, পলো শার্ট, প্যান্টসহ আরও কয়েকটি পণ্যে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত মূল্য ছাড়। বনানী ও উত্তরায় শোরুমেও চলছে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়। ক্রোকারিজ আইটেমেও চলছে নানা অফার। এ ছাড়া ছাড় দিচ্ছে আরএফএল এর প্লাস্টিক পণ্যসহ বিভিন্ন দেশি-বিদেশি ফার্নিচার প্রতিষ্ঠানগুলোও। রয়েছে উপহারও। স্টল মালিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শুরু হওয়া এই মেলায় এতদিনে তেমন কোনো ক্রেতা-দর্শনার্থী দেখা যায়নি। তবে ছুটির দিন দর্শনার্থী অনেক বেশি। বিক্রিও বেড়েছে। আগামী মাসের শুরু থেকে মেলা আরও জমে উঠবে বলে জানান বিক্রেতারা।

গত ২১ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার পূর্বাচলে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী প্রদর্শনী কেন্দ্রে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০২৪ এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবারের বাণিজ্য মেলার প্রবেশ টিকিট মূল্য গতবারের চেয়ে ১০ টাকা বাড়িয়ে ৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর শিশুদের টিকিটের মূল্য ২০ থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩০ টাকা।

এবারের আয়োজনে বিভিন্ন ক্যাটাগরির প্যাভিলিয়ন ও স্টলের সংখ্যা ৩৫১টি। এ ছাড়া দুই হলে ১৭৪টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে থাকছে রেস্তোরাঁ, মসজিদ, ব্যাংক, এটিএম বুথ, শিশুপার্ক এবং মা ও শিশুকেন্দ্র।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে