বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

বশেমুরবিপ্রবিতে এশিয়ান পার্লামেন্টারি ডিবেটের উপর ওয়ার্কশপ

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
  ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:০৩

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) " ডিবেটিং ক্লাব" এর উদ্যোগে আইন বিভাগের পৃষ্ঠপোষকতায়  "এশিয়ান পার্লামেন্টারি ডিবেটের" ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত হয়।

মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের  একাডেমিক ভবনে (কনফারেন্স রুম ৫০১) আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়।

প্রোগ্রামটি তিন সেশনে ভাগ করা হয়। ফার্স্ট সেশন, সকাল ১০ টা থেকে ১০:২০ ফ্রেসার'সদের-কে ফুল দিয়ে রিসিপশন, ১০.২০ থেকে দুপুর ১২:০০ টা "এশিয়ান পার্লামেন্টারি ডিবেটে'" উপর ওয়ার্কশপ।

সেকেন্ড সেশনঃ দুপুর ১২ টা থেকে ১২:৩০ ফ্রেশার' ডিবেট টিম ক্যাপ করা / টা বা যতোগুলো টিম হয় করে দেয়া, দুপুর ১২:৩০-দুপুর :২০ পর্যন্ত ফার্স্ট রাউন্ড ডিবেট, দুপুর :২০ থেকে দুপুর টা লাঞ্চ ব্রেক,দুপুর টা থেকে বিকাল :২০ সেকেন্ড রাউন্ড ফাইনাল রাউন্ড ডিবেট।

থার্ড সেশনঃ বিকাল :২০ থেকে :০০ আমন্ত্রিত অতিথিদের সংক্ষিপ্ত বক্তব্য, সম্মাননা স্মারক,বিজয়ী রানার্সআপ দলের জন্য পুরষ্কার,ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণকারী সকল পার্টিসিপেন্টদের-কে সার্টিফিকেট প্রদান এবং বিকাল টায় সমাপণী বক্তব্যের মাধ্যমে ডিবেটিং ক্লাবের প্রোগ্রাম শেষ হয়।

এই ওয়ার্কশপ সম্পর্কে আইন বিভাগের শিক্ষার্থী এবং ডিবেটিং ক্লাবের সদস্য সচিব শফিকুল ইসলাম বলেন,  আইন বিভাগের পৃষ্ঠপোষকতায় ডিবেটিং ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রেশার্সদের মাঝে বিতর্ক ছড়িয়ে দিতে এই আয়োজন ,ভালো বিতার্কিক বের করে আনা এই আয়োজনের মূল লক্ষ্য ছিলো।

আইন বিভাগ,বশেমুরবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটি এবং সাংবাদিক সোসাইটি সকলের সহযোগিতার জন্য বিশেষ ধন্যবাদ।

আইন বিভাগের চেয়ারম্যান মানসুরা খানম বলেন, অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীদের তুলনায় আইন বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আইন বিভাগের শিক্ষার্থীদের এক সময় কোর্টে যেতে হয়।

কেস ট্রায়াল এর একটা পর্যায় আছে যেখানে আর্গুমেন্ট বা যুক্তি উপস্থাপনের বিষয় থাকে। এক্ষেত্রে আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা যদি ধরনের বিতর্ক কর্মশালায় যুক্ত থাকে তাহলে যুক্তি দেয়া এবং যুক্তি খন্ডানোর বিষয়গুলো তাদের মধ্যে প্রবলভাবে তৈরি হয় যেটা পরবর্তীতে আইন পেশায় অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। আইন বিভাগ নিয়মিতভাবে ধরনের বিতর্ক কর্মশালা আয়োজনে সহযোগিতা করবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এবং আইন অনুষদের ডিন . রাজিউর রহমান বলেন, এই ধরনের ওয়ার্কশপ আইনের শিক্ষার্থীদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ক্লিনিকাল লিগ্যাল এডুকেশন ব্যবস্থার সঙ্গে শিক্ষার্থীদের অভ্যস্ত করার একটি অন্যতম নিয়ামক হয়ে উঠতে পারে এই ধরনের ওয়ার্কশপ। শিক্ষার্থীদের চিন্তা-চৈতন্যে আর যৌক্তিক করে তোলে এই ধরনের ওয়ার্কশপ। সুতরাং আইনের শিক্ষার্থীদের জন্য এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

ডিবেটিং ক্লাব নিয়ে প্রত্যাশা সম্পর্কে তিনি বলেন, ডিবেটিং ক্লাবকে আমরা আরো উন্নত একাডেমিক, প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো দিতে চাই। এটি শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন একাডেমিক এবং আইনি প্রতিযোগিতায় দক্ষতার স্বাক্ষর রাখতে সহায়ক হবে। ডিবেটিং ক্লাব আইন অঙ্গনে বিশেষ দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে সেই প্রত্যাশা করি। ওয়ার্কশপের আয়োজক, অংশগ্রহণকারী শিক্ষক- শিক্ষার্থীদের সকলের জন্য আইন বিভাগের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে