আপত্তিকর ভিডিও ধারণ নিয়ে যে যুক্তি দিলেন মিথিলা

আপত্তিকর ভিডিও ধারণ নিয়ে যে যুক্তি দিলেন মিথিলা

সদ্য অনুষ্ঠিত ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০২০’ আসরে সেরা হয়েছেন তানজিয়া জামান মিথিলা। মুকুট মাথায় নেওয়ার পর থেকেই বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না তার। অভিযোগ উঠেছে 'বিশেষ সহায়তা' নিয়ে এবারের মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ তিনি। এমন অভিযোগের তীর যখন মিথিলার দিকে তখন নতুন করে সমালোচনার জন্ম দিলেন এ সুন্দরী।

২০১৮ সালের একটি ইউটিউব সাক্ষাৎকারে মডেল মিথিলা এবং সামিরা খান মাহিকে দেখা গেছে। উপস্থাপকের করা বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছিলেন তারা। ভিডিওতে মিথিলা ও মাহি বলেন, পুরুষ শৌচাগারে ঢুকে এক ব্যক্তির নগ্ন ভিডিও ধারণ করেছিলেন তারা। সেটি আবার নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন মডেল মাহি। তাতে দেখা গেছে, ভিডিও ধারণ শেষে হাসতে হাসতে দৌঁড়ে বেরিয়ে আসছেন মিথিলা ও মাহি।

ব্যাপক সমালোচনার পর ওই ঘটনার জন্য ক্ষমা চান মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-২০২০ তানজিয়া জামান মিথিলা। নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক আইডি থেকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে তিনি ক্ষমা চান।

এ বিষয়ে মিথিলা সংবাদিকদের বলেন, ‘আমি যেটা করেছি, ভুল করেছি। আমি মাফ চাইছি। মানুষ ভুল করে এটাই স্বাভাবিক। কেউ ভুল করে যদি মাফ চায় তারপর তো আর প্যাঁচানোর কিছু নাই। মানুষ ছোট থাকতে বা অনেকে না বুঝে ভুল করে ফেলে। মানুষ যদি কারও কাছে মাফ চায় সেখানে আমরা মাফ করে দিতেই পারি।’

মুনিয়া নামের একজন লিখেছেন, "আমরা একটা লোককে কাপড় ছাড়া ওয়াশ রুমের ভিতর দিয়ে ভিডিও করেছি, হা হা হা হা"। এটা একটা পিওর সেক্স্যুয়াল হ্যারেসমেন্ট। বয়স কম ছিল, প্র‍্যাংক ছিল, এইসব বলে আসলে খুব একটা লাভ হয়না। you were not that under age and এই ধরনের কাজ করে পাবলিকলি প্রাউডলি বলার জন্য অনেক বেশি এথিকলেস হতে হয়।

এদিকে, যে ব্যক্তির ভিডিওচিত্র ফেসবুকে প্রকাশ করা হয়েছিল তাকে কাছের বন্ধু বলে দাবি করেছেন মিথিলা। তিনি বলেন, ‘ও যদি বিষয়টাকে হয়রানি মনে না করে, তাহলে মানুষ কেন আমাকে বিচার করবে যে, আমি হয়রানি করেছি তাকে। তারপরও আমি মাফ চেয়েছি।’

আগামী ১৬ মে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিতব্য ‘মিস ইউনিভার্স ২০২০’ প্রতিযোগিতার মূল মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন মিথিলা। তার আগে একের পর এক বিতর্ক উঠছে তাকে নিয়ে।

যাযাদি/ এমডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে