বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১

বার কাউন্সিলে নতুন আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হলেন ৫৩২৯ জন

আইন ও বিচার ডেস্ক
  ১৪ মার্চ ২০২৩, ০০:০০

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের আইনজীবী তালিকাভুক্তির মৌখিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এতে ৫ হাজার ৩২৯ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। এছাড়া ২০ জন প্রার্থীর ফল স্থগিত রাখা হয়েছে। ফল স্থগিত রাখা প্রার্থীদের বার কাউন্সিলে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এনরোলমেন্ট কমিটির নির্দেশে ৯ মার্চ সংস্থার সচিব জেলা ও দায়রা জজ ড. ওয়াহিদুজ্জামান সিকদার সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞপ্তির তথ্যানুযায়ী, গত ১২ ফেব্রম্নয়ারি থেকে ২৬ ফেব্রম্নয়ারি পর্যন্ত অনুষ্ঠিত মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী প্রার্থীদের মধ্যে ৫ হাজার ৩২৯ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। উত্তীর্ণ প্রার্থীরা দেশের যে কোনো (অধস্তন) আদালত ও ট্রাইবু্যনালে আইন পেশায় নিযুক্ত হতে পারবেন। এক্ষেত্রে তাদেরকে ৬ মাসের মধ্যে জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্যপদ গ্রহণ করতে হবে।

এদিকে পৃথক এক বিজ্ঞপ্তিতে তালিকাভুক্তির মৌখিক পরীক্ষার ফলাফলে চূড়ান্তভাবে উত্তীর্ণ কতিপয় প্রার্থীর তথ্যগত কিছু ত্রম্নটি সংশোধন করতে বলা হয়েছে। এতে বলা হয়, পরীক্ষার ফরম পূরণ, অ্যাডমিট কার্ড প্রাপ্তি প্রভৃতি কর্মকান্ড অনলাইনে সম্পাদিত হয়েছিল। এক্ষেত্রে কতিপয় প্রার্থীর নাম ও পিতার নামের বানান, জন্ম তারিখ প্রভৃতি কয়েকটি মৌলিক ইসু্যতে ত্রম্নটিপূর্ণ ডাটা এন্ট্রি হয়েছিল মর্মে কিছুসংখ্যক প্রার্থীকে বার কাউন্সিল অফিস অবহিত করেছেন।

যদিও ফরম পূরণের সময় প্রার্থী নিজেদের যে সব তথ্য অনলাইনে এন্ট্রি করেছেন, ঠিক সে তথ্যসমূহই অবিকল প্রার্থীদের অ্যাপিস্নক্যান্ট কপি, অ্যাডমিট কার্ড, ফরমসহ পরবর্তী সব ডাটাবেইজে মুদ্রিত হয়েছে। ফলে প্রকাশিত তালিকাভুক্তির চূড়ান্তভাবে ঘোষিত ফলাফলে উত্তীর্ণ কতিপয় প্রার্থীর ডাটাবেইজে উলিস্নখিত তথ্যসমূহে কিছু কিছু ত্রম্নটি-বিচু্যতি থেকে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এমতাবস্থায় বর্ণিত ফলাফলে উত্তীর্ণ রোল নাম্বারধারী প্রার্থীদের মধ্যে যদি কারো অ্যাপিস্নক্যান্ট কপি, অ্যাডমিট কার্ড, ফরমে কিংবা প্রযোজ্য ক্ষেত্রে রিঅ্যাপিয়ার ফরমে প্রার্থীর নাম ও পিতার নামের বানান বা জন্ম তারিখ সংক্রান্ত ভুলভ্রান্তি থাকে তাহলে এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের ৭ দিনের মধ্যে সংশোধনীর সপক্ষে কাগজপত্রসহ বার কাউন্সিল অফিসের এনরোলমেন্ট শাখায় যোগাযোগ করতে হবে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে